টলিউডবিনোদন

১৫ দিন পর ছেলেকে কাছে পেয়ে খুশিতে আত্মহারা অভিনেত্রী পায়েল দে

×
Advertisement

করোনা এমন একটি মারণ ভাইরাস। যে আক্রান্ত হবে তাকে টানা ১৫ দিন আপনজনের থেকে দূরে থাকতে হবে। ইচ্ছে থাকলেও কাছে যাওয়া যাবেনা। একাই নিভৃতবাসে থাকতে হবে। সম্প্রতি করোনার জন্য ছেলের থেকে দূরে থাকতে হল বেহুলা ধারাবাহিকের জনপ্রিয় অভিনেত্রী পায়েল দে। ছেলে মেরাখের থেকে এই প্রথম এত দিন দূরে ছিলেন দেশের মাটি খ্যাত অভিনেত্রী উজ্জ্বয়িনী।

Advertisement

করোনার গ্রাসে আক্রান্ত টলিউডের একাধিক অভিনেতা অভিনেত্রী। সম্প্রতি পায়েলের স্বামী অভিনেতা দ্বৈপায়ন করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন। এরপরই কোভিড টেস্ট করান পায়েল ও। রিপোর্ট নেগেটিভ এলেও বাড়িতে বয়স্ক আর ছোট ছেলের কথা ভেবেই নিভৃতবাস বেছে নিয়েছিলেন৷ একদিকে একমাত্র ছোটড় ছেলে মেরাখ ছিল দাদু-ঠাকুমার কাছে। অন্যদিকে দ্বৈপায়ন ও পায়েল ছিলেন অন্য ফ্ল্যাটে। একই বাড়িতে থাকলেও দুজনে ছিলেন আলাদা ঘরে। এই প্রথম ছেলে মেরাখের জন্মের পর দুজনেই আলাদা ছিলেন। আর এই সময়টা ছিল দুজনের কাছে বেশ বেদনাদায়ক।

টানা ১৫দিন ছেলের থেকে দূরে থেকে যখন মেরাখকে কাছে পায় আর তাকে ছাড়তে চাননি অভিনেত্রী। সেই ছবি দেখা গেল পায়েলের সোশ্যাল মিডিয়ার পেজে। ছেলের সাথে নিজের ছবি দিয়ে ক্যপশানে লিখলেন নিজের আনন্দের কথা। অভিনেত্রীর কাছে আনন্দ হল দীর্ঘ ১৫দিন পর সন্তানের সঙ্গে দেখা হওয়া। পাশাপাশি এও লিখলেন, তাঁদেএ আইসোলেশন পর্ব শেষ হয়েছে। তাঁদের পরিবার, বন্ধু, প্রতিবেশীদের সকলের ভালবাসা, আর সমর্থন যেভাবে পেয়েছেন, তা ধন্যবাদ জানিয়ে খাটো করতে চাননা তিনি। এরপর মা ছেলেকে দেখে অনুগামীরা ভালোবাসা জানিয়েছেন।

Advertisement

আরো লিখলেন, ঈশ্বর সকলের মঙ্গল করুক। সকলে ভালো থাকুক। দ্বৈপায়ন আর পায়েলের তরফে সকলের জন্য অনেক ভালবাসা। করোনামুক্ত হয়েছেন দ্বৈপায়নও। ছেলের সাথে চাক্ষুষ দেখা হবে আগামী সোমবার। প্রথমদিকে ভিডিয়ো কলেই ছেলে মেরাখের সঙ্গে কথা বলতেন অভিনেতা। তবে শেষ পর্যায়ে এই খুদে আর ভার্চুয়ালী বাবা মায়ের সাথে কথা বলতোনা। তবে বাবাকে দেখার অপেক্ষায় আছেন মেরাখও।

Related Articles

Back to top button