নিউজপলিটিক্সরাজ্য

“অনেকের থাকা-না-থাকা দোদুল্যমান”, বিতর্কিত মন্তব্য করে দলবদলের জল্পনা উস্কে দিলেন পার্থ

Advertisement

তৃণমূলের একাধিক নেতা বর্তমানে দল বদল করতে চলেছেন। তার মধ্যে বেশ অনেকের দলবদল নিয়ে রাজ্য রাজনীতি সরগরম। তারই মধ্যে একটি বিতর্কিত মন্তব্য করে বসলেন তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়। রবিবার একটি সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি জানালেন, ” দলে অনেকের থাকা-না-থাকা দোদুল্যমান।” পার্থ চ্যাটার্জির এই মন্তব্য পরে নতুন করে জল্পনার সৃষ্টি হয়েছে রাজ্য রাজনীতি তে।

তৃণমূলের বেশ কিছু নেতা বিজেপিতে যোগ দেবেন বলে জল্পনা তুঙ্গে। এই তালিকায় রয়েছেন তমলুকের বর্ষিয়ান নেতা তথা তৃণমূলের অন্যতম স্তম্ভ শুভেন্দু অধিকারী। বিজেপির দাবি, এই সমস্ত নেতাদের মধ্যে অন্তত সাংসদ রয়েছেন হাফ ডজন। তবে এতদিন এই দাবিকে ভূয়া বলে উড়িয়ে দিলেও, আজ পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের এই মন্তব্যে একটা বিষয় স্পষ্ট হলো। সেটা হলো, বিজেপির এই দাবি সম্পূর্ণ রূপে ভুয়া না। কিছু সারবত্তা তো আছে।

রবিবার তৃণমূল মহাসচিব কে প্রশ্ন করা হয়েছিল,” শোভন চট্টোপাধ্যায় দলে নেই, তাতে কি কোন সমস্যা হবে?” তিনি উত্তরে জানালেন,” অনেকের থাকা-না-থাকা দোদুল্যমান। আমাদের অসুবিধা ঠিক তখন হবে যখন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ছেড়ে চলে যাবেন।” তিনি আরও জানালেন, ” মমতা ব্যানার্জি ছাড়া কার কত দৌড় আমাদের দেখা আছে। আমরা রাজনৈতিকভাবে অনেক শক্তিশালী, কারণ আমাদের মাথার উপরে আছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।”

তবে, পার্থ চ্যাটার্জির এই মন্তব্যের পর নতুন করে সমীকরণ গঠন শুরু হয়েছে রাজনৈতিক মহলে। সকলের দাবি, তৃণমূলে ভাঙ্গনের চাপ একেবারে উপরমহল পর্যন্ত পৌঁছে গিয়েছে। তবে, পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন, শোভন চট্টোপাধ্যায়ের ওয়ার্ডে আপাতত রয়েছেন রত্না। তিনি সেই ওয়ার্ডের ভালো দেখভাল করেন।

Tags

Related Articles

Back to top button