টলিউডবিনোদন

পোশাকের ফাঁকে সুস্পষ্ট ‘স্তনযুগল’, বোল্ড ফটোশ্যুটে ট্রোলড হলেন অভিনেত্রী নুসরত

×
Advertisement

কিছুদিন আগেই শোনা গিয়েছিল, অভিনেত্রী-সাংসদ নুসরত জাহান (nusrat jahan)-কে বিবাহ বিচ্ছেদ চেয়ে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছেন তাঁর স্বামী তথা ‘রঙ্গোলি ফ্যাশন’-এর সিইও নিখিল জৈন (Nikhil jain)। সংবাদমাধ্যমে নিখিল জানিয়েছেন, এই বিষয়ে তিনি পরে কথা বলবেন। 14ই ফেব্রুয়ারি নিখিল আকারে-ইঙ্গিতে জানিয়েছিলেন নুসরত বদলে গেলেও তিনি একই রকম আছেন। কিন্তু পরে বাধ্য হয়ে আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করলেন নিখিল। ঘনিষ্ঠ সূত্রে প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, নুসরত এখনও নিখিলের ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করেন। এমনকি মনে করা হচ্ছে, নিখিলের সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদের সময় নুসরত মোটা অঙ্কের অর্থ খোরপোষ হিসাবে দাবি করতে পারেন। কারণ নুসরতের প্রাক্তন সম্পর্কগুলি থেকেও আর্থিক লেনদেনের বিনিময়ে নুসরত বেরিয়ে এসেছিলেন। বরাবরের মতই যশ দাশগুপ্ত (yash Dasgupta)- কে নিয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাননি নিখিল। কিন্তু নুসরত জাহান জানিয়েছেন, বিবাহ বিচ্ছেদের কোনো আইনি নোটিশ নিখিল তাঁকে পাঠাননি।

Advertisement

ইতিমধ্যেই একটি ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদের পাতায় নুসরতের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। কিন্তু তার সাথেই নেটিজেনদের একাংশ নুসরতকে ট্রোল করা শুরু করেছিলেন। ফলে নুসরত তাঁর ইন্সটাগ্রাম অ্যাকাউন্টের কমেন্ট সেকশন অফ করে দিয়েছেন। ছবিতে নুসরতকে গোলাপি-সাদা রঙের শার্ট টপ ও ট্রাউজারে দেখা যাচ্ছে। কিন্তু শার্ট টপের ফ্রন্ট ওপেন করে দৃশ্যমান হচ্ছে নুসরতের গোলাপি ব্রা। আর এখানেই মার খেয়ে গেছেন নুসরত। শুধু স্লিম না হয়ে নুসরত যদি একটু টোনড হতেন, তাহলে তাঁকে এই স্টাইল অনায়াসেই মানিয়ে যেত। সুতরাং পরের বার যদি নুসরত টোনড ফিগারে সামনে আসেন, তাহলে নেটিজেনরাও খুশি হবেন।

Advertisement

গত বছর গোড়ার দিকে নুসরত জাহান প্রচুর ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে ভর্তি হয়েছিলেন হাসপাতালে। কিন্তু জৈন পরিবারের তরফে এই ঘটনার কথা অস্বীকার করা হয়। এমনকি নুসরত মিডিয়ায় অবাস্তব একটি বয়ানে বলেছিলেন, তিনি নাকি ভুল করে বেশি ঘুমের ওষুধ খেয়ে ফেলেছিলেন। এরপর থেকেই নুসরত নিজের সোশ্যাল মিডিয়া প্রোফাইলে তাঁর স্বামী নিখিল জৈন এর সাথে প্রচুর ছবি শেয়ার করতে শুরু করেন। এমনকি দিওয়ালির সময় নুসরতের পোস্ট করা ভিডিও দেখে ওপেন ফোরামে নিখিল স্ত্রীর প্রশংসা করেন। পেশায় গারমেন্ট ব্যবসায়ী নিখিল নুসরতকে একটি শাড়িও উপহার দেন যাতে নুসরতের এতদিন ধরে অভিনয় করা সমস্ত চরিত্রের নাম খোদিত ছিল।

কিন্তু গত বছর ডিসেম্বর মাসে কালো অফ শোল্ডার টপে নিজের একটি ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছিন নুসরত। ওপেন ফোরামে এই ছবিটির প্রশংসা করেছিলেন অভিনেতা যশ দাশগুপ্ত (yash Dasgupta)। তিনি নুসরতকে ঢেউ তুলে স্রোতের বিপরীতে সাঁতার কাটতে বলেছিলেন। কিন্তু নুসরত বলেছিলেন, সাংঘাতিক ঢেউয়ে সাঁতার কাটতে জানেন না তিনি, হাইড্রোফোবিয়া রয়েছে তাঁর। তাঁদের এই সাংকেতিক কথাবার্তায় নেটিজেনরা অন‍্য আভাস পেয়েছিলেন। সম্প্রতি রাজস্থানে একসঙ্গে ছুটি কাটাতে গিয়েছিলেন যশ ও নুসরত। রাজস্থান থেকে যশ ও নুসরত অনেক ছবিও শেয়ার করেছেন ইন্সটাগ্রামে। অপরদিকে কলকাতায় বসে নিখিল তাঁর ও নুসরতের দাম্পত্যে চিড় ধরার কথা অস্বীকার করলেও নুসরতের ইন্সটাগ্রাম প্রোফাইল কিন্তু অন্য কথা বলছে। তাঁর ইন্সটাগ্রাম প্রোফাইলে নিখিলের অধিকাংশ ছবি ডিলিট করে দিয়েছেন নুসরত। এমনকি এই মুহূর্তে শ্বশুরবাড়ি ছেড়ে বন্ডেল রোডে নিজের ফ্ল্যাটে থাকতে শুরু করেছেন নুসরত। ঘনিষ্ঠ সূত্রে জানা গেছে, নুসরতের রাজনৈতিক জীবন তাঁর বিবাহিত জীবনে চিড় ধরিয়েছে।

নিখিল তাঁদের সম্পর্ক বাঁচানোর চেষ্টা করলেও নুসরতের এই বিয়ে টিকিয়ে রাখার ইচ্ছা নেই বলেও জানা যাচ্ছে। তার আরেকটি অন্যতম কারণ হল যশ ও নুসরতের যৌথ ব্র‍্যান্ড ভ‍্যালু। যশ ও নুসরত জুটিকে এই মুহূর্তে বিভিন্ন স্টেজ শো-তে এবং বিজ্ঞাপনে দেখতে চাইছেন প্রযোজক ও নির্মাতারা। যশ ও নুসরতের সম্পর্ক তৈরী হলে তাঁরা হয়ে যাবেন টলিউড ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম পাওয়ার কাপল। কিন্তু সংবাদমাধ্যমের কাছে নুসরত এই সম্পর্কের কথা অস্বীকার করে বলেন, মানুষ তাঁকে সবসময় দোষী সাব্যস্ত করলেও তিনি চান, মানুষ তাঁর ব্যক্তিগত জীবন দিয়ে তাঁকে বিচার না করে তাঁর কাজ দিয়ে বিচার করুক। নুসরত তাঁর ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে কোনো মন্তব্য করতে চাননি। অপরদিকে যশ বলেছেন, নুসরতের বিবাহিত জীবন নিয়ে তাঁর কোনো ধারণা নেই। তবে প্রতি বছর যশ রোড ট্রিপে যান। তিনি বলেন, রাজস্থানে তো এখন অনেকেই ঘুরতে যাচ্ছেন। অপরদিকে নুসরত দাবি করেছেন, তিনি ইন্ডাস্ট্রির অনেককে নিয়ে আজমেঢ় শরিফ গিয়েছিলেন। তাহলে শুধুমাত্র নুসরত ও যশের ছবি ভাইরাল হলো কেন? ইন্ডাস্ট্রির তথাকথিত আজমেঢ় শরিফ যাত্রীদের ছবি কোথায়? এর মধ্যেই অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চ্যাটার্জি (srabanti chatterjee)-এর ছেলে অভিমন্যু (abhimanyu chatterjee) ও তাঁর প্রেমিকা দামিনী ঘোষ (Damini Ghosh) আজমেঢ় শরিফ গিয়েছিলেন। তবে তাঁরা তো নিজেরাই গিয়েছিলেন, নুসরতের সঙ্গে নয়। নুসরত সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন, তাঁর ব্যক্তিগত জীবনে তিনি কার সাথে ঘুরতে যাবেন, সেটা তাঁর ব্যাপার। নুসরতের কার্যকলাপ দেখে মনে হচ্ছে বৈবাহিক জটিলতার সঙ্গেই নুসরতের জীবনে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক জটিলতা। ‘উওম্যানাইজার’ নায়ক যশ এই মুহূর্তে নুসরতের জীবনে ‘ছাই ফেলতে ভাঙা কুলো’-র কাজ করছেন।

তবে এত কিছু চর্চার মধ্যেও নুসরত কিন্তু ভাবিত নন কোনো কিছুই নিয়ে। তাঁর মনোভাব হল, “জাম রাখ‍্যা হ্যায়, পি লো, বাদ মে দেখা যায়েগা”। ফলে নুসরত ইন্সটাগ্রামে নিজের দেদার ছবি শেয়ার করছেন। তার মধ্যে একটি ছবিতে কালো রঙের অফ শোল্ডার ড্রেসে নুসরতকে দেখা যাচ্ছে। ড্রেস জুড়ে গোলাপের প‍্যাটার্নের এমব্রয়ডারি। তবে নুসরত ভোলেননি তাঁর হৃদয়ের কাছাকাছি থাকা ট‍্যাটুটি শো-অফ করতে। এর আগে ট‍্যাটুটি করিয়ে নুসরত ছবি শেয়ার করে বলেছিলেন, এটি ভালোবাসার স্মারক। এরপরেই নুসরতের জীবনে যশের প্রবেশ। তবে নুসরতের ভালোবাসার স্মারক কদিন যশকে আটকে রাখতে পারে, এখন সেটাই দেখার।

গত বছর মুক্তি পেয়েছে নুসরত জাহান ও যশ দাশগুপ্ত অভিনীত ফিল্ম ‘sosকোলকাতা’। এই ফিল্মে যশ অভিনয় করেছেন এক পুলিশ অফিসারের চরিত্রে যার মূল উদ্দেশ্য হলো জঙ্গি দমন করা। নুসরত এই ফিল্মে যশের বিপরীতে অভিনয় করছেন। নুসরত ও যশের অভিনয় করা একটি র‍্যাপ সঙ ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। এই ভিডিওটি ‘sosকোলকাতা’র প্রমোশনাল সং ভিডিও।

Related Articles

Back to top button