টলিউডবিনোদন

Nusrat-Nikhil: আদালতে হাজির ছিলেন না নুসরত-নিখিল, ফের সহবাস সঙ্গীর সঙ্গে বিচ্ছেদ মামলা পিছোল নতুন মায়ের



সদ্য প্রথম সন্তানের মা হয়েছেন অভিনেত্রী তথা সাংসদ নুসরত জাহান। ছেলের বয়স হয়েছে মোটে ৯ দিন। এই মুহূর্তে অভিনেত্রী সব কাজ ভুলে নতুন মাতৃত্বের স্বাদ চেটে পুটে উপভোগ করছেন। ছেলের দেখভালের দায়িত্ব একা হাতে সামলাচ্ছেন। তবে এর মাঝেই গত শুক্রবার (৩রা সেপ্টেম্বর) আলিপুর আদালতে নুসরতের বিরুদ্ধে নিখিলের তরফে দায়ের করা দেওয়ানি মামলার শুনানি ছিল। এদিন আদালত চত্বরে হাজির হননি নুসরত-নিখিল দুজনেই। দুজন উপস্থিত না থাকলেও উভয়পক্ষের আইনজীবী সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

গত ১৮ই অগস্ট এই ডিভোর্সের মামলার শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছিল, তবে শেষ মুহূর্তে হবু মা নুসরত সেইসময় নিজের আইনজীবী বদল করার সিদ্ধান্ত নেন। আর এর জন্যই সেইদিন আদালতে শুনানির কাজ স্থগিত হয়ে যায়, পরবর্তী তারিখ হিবাসে ৩রা সেপ্টেম্বর অর্থাৎ গতকাল ধার্য করেছিলেন বিচারক। কিন্তু এই দিন নতুন মাম্মাও হাজির ছিলেননা এমনকি নিখিল ও না। এই দেওয়ানি মামলায় নুসরতের পক্ষে প্রথমে লড়ছিলেন সৌমেন রায়চৌধুরী, এখন নুসরতের হয়ে কোর্টে সওয়াল জবাব করছেন চিন্ময় গুহ ঠাকুরতা।

তবে যাদের নিয়ে মান অভিমানের পালা তারা উপস্থিত না থাকলেও এদিন চিন্ময় বাবু ও নিখিলের আইনজীবী সত্যব্রত চক্রবর্তীর সওয়াল-জবাব পর্ব আদালতে হয়। দুই পক্ষের উকিলের কথা মন দিয়ে শোনেন বিচারক। জানা গিয়েছে, এদিন নিখিলের অভিযোগ নিয়ে লিখিত জবাব দিয়েছেন নুসরত জাহানের আইনজীবি। সেই বিবৃতিতে অভিনেত্রী নুসরত জানিয়েছেন, নিখিলের সঙ্গে তাঁর বিয়ে ‘অবৈধ ও বেআইনি’। এরপর এই ডিভোর্সের মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য হয়েছে অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহে। 

উল্লেখ্য, গত বছর নভেম্বর মাস থেকে আলাদা থাকছেন নিখিল -নুসরত। অভিনেত্রীর অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবর প্রকাশ্যে আসতে নিখিল এই সন্তানের পিতৃত্ব অস্বীকার করেন। এরপরেই গত ৯ই জুন সংবাদমাধ্যমে বিবৃতি জারি করে নুসরত জাহান জানান, তাঁর সাথে নিখিলের বিয়ে স্পেশ্যাল ম্যারেজ অ্যাক্টের আওতায় রেজিস্ট্রার করা হয়নি, তাই সেই বিয়ে অবৈধ। নিজেদের সম্পর্ককে লিভ ইনের নাম দেন নুসরত, আর লিভ ইনে কোনো ডিভোর্সের প্রশ্ন ওঠেনা।

এরপর প্রাক্তন নুসরতের দাবি মেনেও নেন নিখিল, পরের দিন বিবৃতি নিয়ে নিখিলও দাবি করেন, স্পেশ্যাল ম্যারেজ অ্যাক্টের আওতায় বারবার অনুরোধ করা সত্ত্বেও বিয়ের রেজিস্ট্রেশন করাননি নুসরত। তবে এই সমাজে কিন্তু তাঁরা চোখে স্বামী-স্ত্রী’র মতোই জীবনযাপন করেছেন। আর তুরষ্কের বিয়ে নিয়ে প্রশ্ন করেছেন। এই কারণে আইনি প্রক্রিয়ায় বিয়ে না হওয়ায় অ্যানালমেন্টের মাধ্যমে নুসরতের থেকে আলাদা হতে চেয়েছেন নিখিল। সেই জন্যই এই বিচ্ছেদ মামলা করা হয়েছে। তবে কেন এই বিচ্ছেদ সেই কারণ এখনো জানা যায়নি। অন্যদিকে নুসরতের বর্তমান সহবাস সঙ্গী যশ তা আর বলার অপেক্ষা রাখেনা৷ অভিনেত্রীর মা হওয়ার জার্নি থেকে এখনো ঈশানকে আগলে রাখার প্রতিটি মুহূর্তে অভিনেত্রীর পাশে আছেন যশ।

Related Articles

Back to top button