টলিউডবিনোদন

নির্বাচনী ব্যস্ততার মাঝেও বন্ধুত্বকে সময়, ডিনার ডেটে গেলেন যশ এবং নুসরত

দুজনেই নিজেদের সোশ্যাল মিডিয়া প্রোফাইলে তাদের খাবারের ছবি ছেড়ে একে অপরকে করলেন মেনশন

×
Advertisement

নির্বাচনী ময়দানে দেখতে গেলে দুজনের সম্পর্ক একেবারে সাপে নেউলে। কিন্তু আদতে তারা দুজনে আবার একে অপরের অত্যন্ত ‘ভালো বন্ধু’। হ্যা, ঠিকই ধরেছেন, কথা হচ্ছে বাংলার রাজনীতির দুই সেলিব্রিটির ব্যাপারেই। যশ দাসগুপ্ত এবং নুসরত জাহান, এরা এখন শুধু রাজনৈতিক পাতার নয় এদের সম্পর্ক এখন পেজ থ্রি এই একেবারে গরমাগরম টপিক। এই দুই অভিনেতা এবং অভিনেত্রী নাকি একে অপরের সাথে ডেট করছেন! এমনটাই মতামত টলিপাড়ার অভিজ্ঞদের। কিন্তু মুখে কেউ কোনোদিন কিছুই স্বীকার করেন না। কিন্তু ‘বোলনে ওয়ালে তো বোলতে রেহেঙ্গে’, এই ধারণাকে বদ্ধমূল করে নিয়েই নিজের জীবনে এগিয়ে যাচ্ছেন এই দুই তারকা নেতা নেত্রী।

Advertisement

নির্বাচনের উত্তাপ এবং তিক্ততা যতই হোক না কেনো, সম্পর্কের মিষ্টতাকে কখনোই অস্বীকার করা যায় না। আবারো প্রমাণ করে দিলেন এরা দুজনে। তাই তো রবিবার রাতে দুজনের ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে উঠে এলো বেশ কিছু ছবি যাতে তাদের দুজনের সম্পর্কের মিষ্টতা আবার লক্ষিত হলো। এই ছবিতে আমরা দেখতে পাচ্ছি একটি পাঁচতারা হোটেলে সাজানো টেবিলে দুজন বেশ লোভনীয় ডেজার্ট গ্রহণ করছেন। আবার দুজনের ক্যাপশন দুজনকে নিয়েই। তাতেই একেবারে চক্ষু চড়কগাছ সকলের।

Advertisement

নুসরতের ক্যাপশন, “আমার টেবিলে আমার সবথেকে প্রিয় কিছু খাবার… সঙ্গে প্রিয় যশ দাশগুপ্ত।” এই কমেন্টের রিপ্লাইটাও ছিল খাসা। যশ লিখলেন, “তোমার এই আনন্দটা আমি কিন্তু সিরিয়াস ভাবেই নিচ্ছি।” রাজনীতিতে নুসরাত যশের সিনিয়র। কিন্তু, রাজনীতির ময়দানে যাই হোক না কেনো, বন্ধুত্বের জায়গায় রাজনীতির স্থান নেই। সেখানে শুধুই নিখাদ “গভীর বন্ধুত্ব”ই রাখতে চান যশ এবং নুসরাত দুজনেই।

Related Articles

Back to top button