টলিউডবিনোদন

Nushrat Jahan: নতুন বছরের শুরুতে রুদ্রাণী রূপেই বড় পর্দায় দেখা মিলবে নুসরাত জাহানের, ‘স্বস্তিক সংকেত’ দিয়েই শুরু করবেন দ্বিতীয় ইনিংস

রুদ্রাণী নিয়ে আসছে বড়পর্দায়। ইতিহাস নির্ভর থ্রিলার ছবি ‘স্বস্তিক সংকেত’এ রুদ্রাণী রূপেই দেখা যাবে নুসরাত জাহানকে। সায়ন্তন ঘোষাল পরিচালিত আসন্ন এই ছবিতে অভিনেত্রীর প্রথম লুক সামনে এলো সকলের। অভিনেত্রী নিজেই নিজের টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে ছবির পোস্টের শেয়ার করলেন সকলের সাথে।

ছবিটি শেয়ার করে অভিনেত্রী ক্যাপশনে লিখেছেন, “পুরনো যুদ্ধ, নতুন অস্ত্র। সিলেভাসের বাইরে গিয়ে ইতিহাসের কথা বলবে। আমাদের ছবি ‘স্বস্তিক সংকেত’এর প্রথম টিজার পোস্টার সামনে এল।” এই ক্যাপশন দিয়ে ছবির অন্যান্য অভিনেতাদের মেনশন করেছেন অভিনেত্রী। সম্প্রতি অভিনেত্রীর এই টুইটার পোস্ট ভাইরাল হয়েছে নেট নাগরিকদের মধ্যে।

আসন্ন এই ছবিতে নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর চরিত্রে দেখা মিলবে শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়ের। সুভাষ চট্টোপাধ্যায় ও তার বাবা এই দুই চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যাবে রুদ্রনীল ঘোষকে। এই ছবির সংলাপ লিখেছেন সৌগত বসু। উল্লেখ্য, লেখিকা দেবারতী মুখোপাধ্যায়ের লেখা নরক সংকেত অবলম্বনে এই ছবির চিত্রনাট্য ও সংলাপ তৈরি করা হয়েছে। জানা গিয়েছে, এই ছবিতে উল্লেখ থাকবে করোনা ভাইরাসেরও।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়কালের প্রেক্ষাপটের উপর ভিত্তি করেই এই ছবি তৈরি হয়েছে। থাকছে হিটলারের সাথে নেতাজির সাক্ষাৎ, বায়োলজিক্যাল ওয়েপন নিয়ে গবেষণা, থাকবে হিটলারের রণকৌশল তৈরির পরীক্ষানিরীক্ষার কথাও। এই সমস্ত বিষয় নিয়ে একটি বই লেখেন এই ছবির মূল চরিত্র রুদ্রাণী অর্থাৎ নুসরাত জাহান। বোঝাই যাচ্ছে এই ছবিতে একজন লেখিকা হিসেবে দেখা মিলবে অভিনেত্রীর। গল্পের সাথে সাথে কিভাবে রহস্যে জড়াবেন রুদ্রাণী? এই প্রশ্নের উত্তর পেতে গেলে অপেক্ষা করতে হবে আরো বেশ কিছুদিন। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে ২০২২’এর ২১’শে জানুয়ারি মুক্তি পেতে পারে ‘স্বস্তিক সংকেত’। একই দিনে মুক্তি পেতে চলেছে ‘ধর্মযুদ্ধ’ও। বড়পর্দায় টলিউডের দুই প্রথম সারির অভিনেত্রীর জোর টক্কর হতে চলেছে তা স্পষ্ট।

মা হওয়ার পর নুশরাত ও শুভশ্রী দুজনেরই এটি প্রথম ছবি। বলাই বাহুল্য দুজনেই এই ছবি নিয়ে বেশ এক্সাইটেড রয়েছেন। এই মুহূর্তে দুই অভিনেত্রীই ফুল ফর্মে ফিরেছেন কাজে। সিনেমাপ্রেমীরা রীতিমতো অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করে আছেন এই ছবিগুলোর জন্য। দর্শকদের নিউ ইয়ার গিফট দিতে চলেছেন তারা। কোন ছবি বেশি নজর কাড়ে সেটাই দেখার। তবে বলাই বাহুল্য, রাজ চক্রবর্তীর ‘ধর্মযুদ্ধ’এর প্রচার অনেক বেশি সায়ন্তন ঘোষালের ‘স্বস্তিক সংকেত’এর তুলনায়।

Related Articles

Back to top button