×
ভাইরাল & ভিডিও

নীরাহুয়া ও আম্রপালির রোমান্টিক ডান্স ভিডিও দেখে মুগ্ধ নেটিজেনরা, ব্যাপক ভাইরাল ভিডিও

ওই ভোজপুরি ভিডিওটি ১৩ মিলিয়ন মানুষ দেখেছেন

Advertisement

বলিউডের পাশাপাশি আজকালকার দিনে মাঝে মাঝেই চর্চার কেন্দ্রবিন্দুতে আসছে ভোজপুরি ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি। আগের তুলনায় অনেক উন্নতি হয়েছে ভোজপুরি ছবির। বিভিন্ন ভোজপুরি সিনেমার গানের ভিডিও বা ডায়লগ মাঝে মাঝে সুপারহিট হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ার দুনিয়াতে। মোটামুটি যারা ভোজপুরি ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির ফ্যান তাঁরা দীনেশ লাল যাদবের নাম অবশ্যই শুনেছেন। এই অভিনেতার ফ্যান ফলোইং কোনো বলিউড অভিনেতার থেকে কম নয়। ভোজপুরি অনুরাগীরা অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করে কবে তাদের প্রিয় তারকার সিনেমা বা গান রিলিজ করবে।

Advertisement

আসলে এখনকার দিনে বিনোদনের অন্যতম মাধ্যম হয়ে উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়া। ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম, ইউটিউব ইত্যাদি আট থেকে আশি সকলেই ব্যবহার করে থাকেন। এরমধ্যে ইউটিউবে বিভিন্ন ধরনের ভিডিওর সম্ভার পাওয়া যায়। ভোজপুরি ইন্ডাস্ট্রির ক্ষেত্রে ইউটিউব একটি বড় ভূমিকা পালন করে। বেশিরভাগ ভোজপুরি মিউজিক ভিডিও বা সিনেমা এই ইউটিউব দুনিয়াতে ভাইরাল হয়। এক একটি ভিডিওতে ভিউ এবং লাইকের সংখ্যা দেখলে চক্ষু চড়কগাছ হতে বাধ্য।

ভোজপুরি সুপারস্টার দীনেশ লাল যাদব বা নিরাহুয়া ব্যাপক জনপ্রিয়। কোটি কোটি মানুষ তার অনুরাগী। এই সুপারস্টারের নিজস্ব একটি ইউটিউব চ্যানেল আছে যার নাম নিরাহুয়া এন্টারটেইনমেন্ট। এখানে মাঝে মাঝেই তিনি বিভিন্ন ভিডিও পোস্ট করে থাকেন। তবে বিভিন্ন অন্যান্য ইউটিউব চ্যানেল থেকেও পুরনো ভোজপুরি গানও দেখার জন্য সার্চ করে থাকেন দর্শকরা। সম্প্রতি পুরনো একটি ভোজপুরি গান নতুন করে ভাইরাল হচ্ছে যেখানে অভিনয় করেছেন নিরাহুয়া এবং ভোজপুরি অভিনেত্রী আম্রপালি দুবে।

Advertisement

ভাইরাল হওয়া গানটির নাম, “খাটিয়া সে খাটিয়া সাটাইবা কি না”। এই গানটি “বাম বাম বল রাহা হে কাশী” সিনেমার। গানটি গেয়েছেন দীনেশ লাল যাদব এবং প্রিয়া সিং। গানটিতে সুর দিয়েছেন রাজেশ রাজনিস জুটি। অন্যদিকে গানটি লিখেছেন পেয়ারে লাল যাদব। ২০১৬ সালের ৭ জুলাই জনপ্রিয় ইউটিউব চ্যানেল টি সিরিজের হামারে ভোজপুরি ক্যাটাগরিতে এই মিউজিক ভিডিওটি পোস্ট করা হয়। মিউজিক ভিডিওতে নিরাহুয়া এবং আম্রপালির মাখোমাখো রোমান্স দেখানো হয়েছে। বর্তমানে নতুন করে এই ভিডিওটি ব্যাপক ভাইরাল হচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ার জগতে। আপনি জানলে অবাক হবেন, এই ভিডিওটি প্রায় ১৩ মিলিয়ন মানুষ দেখেছেন।

Related Articles

Back to top button