Today Trending Newsকলকাতানিউজরাজ্য

বড় খবর! টেট পরীক্ষার মাধ্যমে নবনিযুক্ত শিক্ষকদের বেতন বন্ধ করা হল

×
Advertisement

কলকাতা: টেট (TET) নিয়ে বড় খবর, বেতন বন্ধ করা হল নবনিযুক্ত শিক্ষকদের (Teacher)! টেট দুর্নীতির অভিযোগে হাইকোর্টে (High Court) ৬টি মামলা হয়েছিল রাজ্য সরকারের (State Govt) বিরুদ্ধে। গত ২৩ ডিসেম্বর (Decmeber) পর্ষদ ১৬ হাজার ৫০০টি শূন্য পদের জন্য প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি করে। ২০২১ জানুয়ারি (January) মাসের ১০ থেকে ১৭ তারিখ পর্যন্ত ইন্টারভিউ হয়। প্রায় ত্বরিৎগতিতে সমগ্র প্রক্রিয়া শেষ করে ১৬ ফেব্রুয়ারি (February) ফল প্রকাশ করে বোর্ড। শুরু হয় কাঊন্সেলিং ও নিয়োগপত্র দেওয়ার কাজ। সেই নিয়োগেই স্থগিতাদেশ দিয়েছে আদালত। অন্যদিকে, সিঙ্গেল বেঞ্চের সেই স্থগিতাদেশকে চ্যালেঞ্জ করে এবার ডিভিশন বেঞ্চের দ্বারস্থ হয়েছে পর্ষদ। এখনও শুনানি হয়নি।

Advertisement

গত সোমবার প্রকাশিত মেধা তালিকায় রয়েছেন ১৫ হাজার ২৮৪ জন। অভিযোগ, প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগের জন্য সদ্য প্রকাশিত মেধা তালিকা ত্রুটিপূর্ণ। এর পিছনে বড় মাপের দুর্নীতি রয়েছে বলে অভিযোগ। তা নিয়েই মামলা হয় কলকাতা হাইকোর্টে। মোট ৬ টি মামলা হয়েছে প্রাথমিক নিয়োগে দুর্নীতি নিয়ে। ৫টি মামলা লড়ছেন আইনজীবী ফিরদৌস শামিম এবং একটি মামলা লড়ছেন, পার্থ ভট্টাচার্য।

টেট দুর্নীতির মামলাটি ওঠে বিচারপতি রাজর্ষি ভরদ্বাজের এজলাসে। বিচারপতি মামলা শুনে আপাতত ৪ সপ্তাহের জন্যে স্থগিতাদেশ দিয়েছেন নিয়োগে। পরবর্তী শুনানি হবে ৪ সপ্তাহ পর। প্রসঙ্গত চাকরি প্রার্থীদের একাংশ অভিযোগ করে এই নিয়োগের পেছনে রয়েছে চরম দূর্নীতি। ১৬ হাজার ৫০০ শিক্ষক নিয়োগে স্থগিতাদেশ দিয়েছে হাইকোর্টের সিঙ্গেল বেঞ্চ। আর তারপরেই আজ বেতন বন্ধ হল নব নিযুক্ত শিক্ষকদের।

Advertisement

পর্ষদের মেধা তালিকায় নাম উঠেছিল ১৫ হাজার ২৮৪ জন। অনেকে স্কুলে যোগও দিয়ে দিয়েছিলেন। কিন্তু এবার হাইকোর্টের স্থগিতাদেশের পাশাপাশি তাঁদের বেতন বন্ধ করে দেওয়া হল। হাইকোর্টের পক্ষ থেকে স্থগিতাদেশের পাশাপাশি জানিয়ে দেওয়া হয়েছে ২০১৪ সালের টেট নিয়োগের ক্ষেত্রে বেতনের বিল পাঠানো বন্ধ রাখতে হবে।

Related Articles

Back to top button