বলিউডবিনোদন

ইন্ডিয়ান আইডলের প্রতিযোগীকে লোন শোধ করতে সাহায্য করলেন নেহা কক্কর, ভাইরাল ভিডিও

Advertisement

এই মুহূর্তে বলিউডের ‘রিমেক কুইন’ গায়িকা নেহা কক্কর সোনি টিভির জনপ্রিয় সিঙ্গিং রিয়েলিটি শো ইন্ডিয়ান আইডল-এর বিচারক। সম্প্রতি জয়পুর থেকে আসা প্রতিযোগী শাহজাদ আলি নিজের গায়কীর সাহায্যে বিচারকদের মন জয় করে নেন। শাহজাদের গানে খুশি হয়ে নেহা তাঁকে কিছু উপহার দেওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেন। তখন শাহজাদ তাঁর জয়পুর থেকে ইন্ডিয়ান আইডলের মঞ্চে উঠে আসার কাহিনী বলেন বিচারকদের। শাহজাদের কাছে বিচারকরা জানতে পারেন, ইন্ডিয়ান আইডলে শাহজাদকে নিয়ে আসার জন্য তাঁর ঠাকুমার প্রচুর দেনা হয়েছে। এই কথা শুনে নেহার চোখে জল চলে আসে। তিনি শাহজাদকে এক লক্ষ টাকা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। নেহা বলেন, তাঁর দেওয়া এক লক্ষ টাকার সাহায্যে শাহজাদের ঠাকুমা কিছুটা হলেও দেনা শোধ করতে পারবেন। সোনি টিভির ইন্ডিয়ান আইডলের এই পর্বের ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় যথেষ্ট ভাইরাল হয়েছে। নেটিজেনরা নেহার মানবিকতার প্রশংসা করেছেন।

গত 24 শে অক্টোবর দিল্লীর একটি গুরুদ্বারায় ধর্মীয় নিয়ম অনুযায়ী বিয়ে করেন নেহা ও রোহনপ্রীত। এরপর দিল্লিতেই হয় তাঁদের রিসেপশন। দিল্লির পর পঞ্জাবে হয় নেহা ও রোহনপ্রীতের দ্বিতীয় রিসেপশন। তবে নেহার লাল রঙের লেহেঙ্গা চোলির ডিজাইন নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোল করা হয় নেহাকে। নেটিজেনরা বলতে শুরু করেন, নেহা অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার বিয়ের জন্য তৈরি লেহেঙ্গা চোলির ডিজাইন অনুকরণ করেছেন। বিয়ের কিছু দিন আগেই নেহা ও রোহনপ্রীত একটি মিউজিক ভিডিও তৈরী করেন। ‘নেহু দা বেহা’ নামে এই মিউজিক ভিডিওটি মুক্তি পাবার সঙ্গে সঙ্গেই নেট দুনিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়।

এর আগে নেহা অভিনেতা হিমাংশ কোহলির সঙ্গে সম্পর্কে ছিলেন। কিন্তু হিমাংশ ও তাঁর পরিবারের বিরুদ্ধে মানসিক নির্যাতনের অভিযোগ আনেন নেহা। নেহা ও হিমাংশ-এর ব্রেক-আপ হয়ে যায়। এরপর নেহা ও গায়ক উদিত নারায়ণের পুত্র আদিত্য নারায়ণের বিয়ের গুজব ছড়িয়ে পড়ে। পরে আদিত্য ও নেহার একটি মিউজিক ভিডিও ইউটিউবে লঞ্চ হলে তাঁরা দুজনেই এই গুজবকে তাঁদের মিউজিক ভিডিওর প্রোমোশনের অংশ বলে জানান। এর পরেই রোহনপ্রীত ও নেহার সম্পর্কের খবর প্রকাশ্যে আসে এবং তাঁরা দুজনে বিয়ে করেন। গায়ক উদিত নারায়ণ নেহা ও রোহনপ্রীতকে বিয়ের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। নেহা জানিয়েছেন, রোহনপ্রীতের পরিবার থেকে তিনি যথেষ্ট ভালোবাসা পেয়েছেন।

Tags

Related Articles

Back to top button