টেক বার্তানিউজ

Electric Scooter: প্রতি ঘণ্টায় ছুটবে ৬০কিমি, আসছে বাজাজের নতুন ভার্সন ইলেকট্রিক স্কুটার

নতুন বছরে নতুন রূপে ফিরে এল পুরনো স্মৃতি। যাঁরা স্কুটার চালাতেন, তাঁদের মনে চেতক স্কুটারের স্থান ছিল পাকাপাকি। কিন্তু বাইকের রমরমার বাজারে বন্ধ হয়ে গিয়েছিল বাজাজের চেতক স্কুটার। ১৪ বছর পর ফিরে এল সে। তবে এ বার এসেছে নতুন স্কুটি রূপে। ২০২০ সালে ভারতের বাজারে নতুন করে লঞ্চ হয়েছিল বাজাজের সেই ইলেকট্রিক স্কুটার চেতক। এত বছর নতুন ভাবে প্রত্যাবর্তন হয়েছিল ব্যাটারিচালিত অবতারে। দু’বছর পর চেতক ইলেকট্রিক স্কুটারের আপডেটেড ভার্সন আনার পথে এবার বাজাজ।

ইতিমধ্যে এই স্কুটি ভারতে নতুন ভাবে লঞ্চ করার জন্য সরকার থেকে অনুমোদনও পেয়ে গিয়েছে বাজাজ। আর ফাঁস হওয়া নথি বলছে বর্তমান প্রজন্মের চেতক তুলনায় নতুন মডেলটি কিছুটা বেশি শক্তিশালী হয়েছে। আর আগের চেয়ে এই নতুন আপডেটেড ভার্সনে ছোট ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে। অর্থাৎ নতুন মডেলের ব্যাটারি ক্যাপাসিটিও অনেকটা কমানো হয়েছে।

বাজাজ চেতক’র টাইপ অ্যাপ্রুভাল সার্টিফিকেট থেকে জানা গিয়েছে, প্রতি ঘন্টাতে ৬০ কিলোমিটার বেগে চলার সময় ই-স্কুটারটির মোটরের রেটেড পিক পাওয়ার ৪.২ কিলোওয়াট পাওয়ার থাকবে। আবার উল্লিখিত গতিতে ৩০ মিনিট ধরে ৪ কিলোওয়াট পাওয়ার শক্তি উৎপন্ন করার ক্ষমতা রয়েছে বাজাজের এই নতুন চেতক’এ।

নতুন এই চেতক প্রথম এই ভারতীয় সংস্থার তৈরি প্রথম ইলেকট্রিক স্কুটার। এর মধ্যে আর্বানে ও প্রিমিয়াম— এই দু’টি মডেল প্রাথমিক ভাবে চলে এসেছে ভারতীয় বাজারে। ছ’টি নানান রঙে পাওয়া যাবে এই ই-স্কুটার। আর এতে থাকা লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারির আয়ুষ্কাল প্রায় ৭০ হাজার কিলোমিটার। আর আট বছর ওয়ার‌্যান্টি রয়েছে এই নতুন ব্যাটারির। এই স্কুটির ব্যাটারি একশো শতাংশ চার্জ হতে সময় লাগবে পাঁচ ঘণ্টা। আর সেই চার্জে ইকো মোডে যাওয়া যাবে ৯৫ কিলোমিটার ও স্পোর্টস মোডে থাকবে ৮৫ কিলোমিটার। বাজারে চেতকে’র দাম ১,৪২,৩৯০ টাকা। বাজাজ চেতক এখন অন্ধ্রপ্রদেশ, মহারাষ্ট্র, কর্ণাটক, তেলেঙ্গানা, তামিলনাড়ু, দিল্লি, গোয়া, গুজরাত, এবং কেরালা’য় পাওয়া যাচ্ছে। তবে এই নতুন বছরে ২২টি নতুন শহরে চেতকের এই নতুন ভার্সন লঞ্চ করার লক্ষ্যমাত্রা স্থির করেছে বাজাজ।

Related Articles

Back to top button