টলিউডবাংলা সিরিয়ালবিনোদন

Mithai: সকলের সামনে নিজের ভালোবাসার কথা বললো মিঠাই



সারা বাংলার সেরা মিষ্টি মেয়ে বললে এখন একটাই নাম মাথায় আসবে। হ্যাঁ ঠিক ধরেছেন অভিনেত্রী সৌমিতৃষা থুরি মিঠাইয়ের কথা বলছি। মিঠাই এখন টানা চার মাস ধরে বেঙ্গল টপারের জায়গা ধরে রেখেছে৷ কোনোভাবে সেই জায়গা থেকে তুফান মেল আর উচ্ছেবাবুকে সরাতে পারছেনা। আসল ব্যপার হল এই জুটির দুষ্টু মিষ্টি ঝগড়া। এই ঝগড়া তো এ-ই ভাব। তবে এখন মনে হচ্ছে মিঠাইতে সিদ্ধার্থ ও মিঠাইয়ের প্রেমের ঘন্টা বাজতে চলেছে।

কারণ দুজন বাড়ির নানান প্রজেক্টে একে অপরের অনেকটা কাছাকাছি চলে এসেছে যে। কখনো নিপা আর রাতুলের বিয়ে বাঁচাতে তো কখনো কর্পোরেট অনুষ্ঠানে চিতৈ পিঠে প্রস্তুত হোক। উচ্ছে বাবু ও তুফানমেল দুজনে জোট বেঁধে একের পর এক চ্যালেঞ্জ জিতে নিচ্ছে। তবে এদের প্রেমের নির্ঘণ্ট কবে বাজবে তা দেখার অপেক্ষায় বসে আছে সক্কলে। সম্প্রতি দুজনের কাপল ড্যান্স সকলের বেশ পছন্দ হয়েছে। তবে এতো হল পর্দার কথা। এবার বাস্তবে নিজের প্রেমের কথা বললেন মিঠাই ওরফে অভিনেত্রী সৌমিতৃষা কুন্ডু।

সৌমিতৃষা খলনায়িকা দিয়ে ধারাবাহিকে অভিনয় শুরু করলেও এখন তিনি মিঠাই হয়ে সকলের মনে পাকাপোক্ত জায়গা করে নিয়েছেন। অভিনেত্রীর সোশ্যাল মিডিয়ার পেজ দেখলে মনে হবে তিনি বুঝি এখনো সিঙ্গেল। তবে কি সত্যি অভিনেত্রী সিঙ্গেল কি বলছেন অভিনেত্রী। এবার প্রথমবার সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের প্রেমের কথা বললেন এই অভিনেত্রী। তবে পোস্ট দেখে মনে হয়েছে অভিনেত্রীর পছন্দের মানুষ আছেন ঠিকই কিন্তু তাকে হয়তো সাহস করে তাকে কখনো বলে উঠতে পারেননি সৌমিতৃষা।

সোশ্যাল মিডিয়ায় সৌমিতৃষা লিখেছেন, ‘I loved you long before I had the guts to let you know’। যার বাংলা অর্থ অনেক সময়ই মনের কথা মুখে প্রকাশ করা যায় না। কার জন্য এমক্ন হয়েছে অভিনেত্রী সৌমিতৃষার মন এমন। অভিনেত্রীর মনের মানুষের নাম এখনো জানা যায়নি। তবে এই পোষ্ট দেখার পর থেকেই অভিনেত্রীর মনের মানুষ কে তা জানতে চেয়েছেন তাঁর অনুরাগীরা। কেউ লিখেছেন এই মনের মানুষ কি তাহলে সিড? আবার অনেকে ভাবছেন এবার হয়তো মিঠাই ধারাবাহিকে সিদ্ধার্থ এবং আদৃত এর দূরত্ব তৈরি হবে? তাইজন্য‌ই কি এমন পোস্ট করেছেন সৌমিতৃষা? অনেকে আবার সৌমিতৃষা কে বলেছেন, তিনি যেন মনের মানুষকে তাঁর কথা জানিয়ে দেন, না হলে পরে আফসোস করতে হবে। তবে অভিনেত্রীর মনের মানুষের কথা জানা না গেলেও এই পোস্ট ভাইরাল।

Related Articles

Back to top button