×
টেক বার্তা

মাত্র ৭৪ হাজার টাকা খরচ করে বাড়ি নিয়ে আসুন মারুতির এই নতুন গাড়ি, দেখে নিন ফিচার এবং অফার

আপনার বাজেট যদি একটু কম থাকে তাহলে এই গাড়িতে আপনি সেরা এবং লেটেস্ট ফিচার পেয়ে যাবেন এবং সঙ্গেই পাবেন সিএনজি ইঞ্জিন

Advertisement

যদি আপনি নতুন গাড়ি কেনার পরিকল্পনা করে থাকেন এবং আপনি দুর্দান্ত মাইলেজ বিশিষ্ট এবং অত্যাধুনিক ফিচার বিশিষ্ট একটি গাড়ি সস্তা দামের মধ্যে কিনতে চান তাহলে আপনার জন্য আমরা নিয়ে এসেছি একটি নতুন গাড়ির সুলুক-সন্ধান। বর্তমানে ভারতের সবথেকে বড় গাড়ি নির্মাতা কোম্পানিগুলির মধ্যে একটি হলো মারুটি সুজুকি এবং প্রায়শই তারা বিভিন্ন ধরনের নতুন নতুন গাড়ি নিজেদের প্রোফাইলে যুক্ত করতে থাকে। সম্প্রতি তারা লঞ্চ করে দিয়েছে তাদের একেবারে নতুন মডেল মারুতি সুজুকি সেলেরিও সিএনজি। আপনারা যারা পেট্রোলের দাম নিয়ে সমস্যায় রয়েছেন তাদের জন্য সিএনজি চালিত এই গাড়ি সবথেকে ভালো অপশন হতে চলেছে।

Advertisement

শুধুমাত্র যে পেট্রোলের দিক থেকেই এই গাড়ি সাশ্রয়ী সেটা কিন্তু নয়, এই গাড়ির সঙ্গে আপনারা সেরা এবং লেটেস্ট ফিচার পেয়ে যাবেন যা এই গাড়িতে করে তোলে একেবারে অনন্য। সেলেরিও সিএনজি গাড়িটি আপনারা ৫.১৪ লক্ষ টাকা থেকে ৬.৯৩ লক্ষ টাকা দামের মধ্যে পাওয়া যাবে। এটি হলো এই গাড়ির এক্স শোরুম দাম। তবে যদি আপনি মারুতি সুজুকির একটি নতুন অফার গ্রহণ করেন তাহলে আপনারা মাত্র ৭৪ হাজার টাকা ডাউনপেমেন্ট করেই এই গাড়ি বাড়িতে নিয়ে যেতে পারবেন। তারপর আপনাকে ৫ বছরের জন্য ৯.৫ শতাংশ সুদে মান্থলি ইএমআই দিতে হবে। এই মান্থলি ইএমআই ১৪,০০০ টাকার কাছাকাছি দাঁড়াবে।

স্পেসিফিকেশন –

Advertisement

মারুতি সুজুকির সিএনজি মডেলের এই জনপ্রিয় হ্যাচব্যাক গাড়ি তার পেট্রোল মডেলের মতোই ডিজাইন এবং ফিচারসের দিক থেকে অত্যন্ত উন্নত। সংস্থার তরফে সিএনজি গাড়িতে কেবল একটি মাত্র বদল করা হয়েছে। সেটা হলো এখানে আপনারা পেট্রোল ইঞ্জিন এর পরিবর্তে সিএনজি ইঞ্জিন পাবেন। ১.০ লিটার ডুয়াল জেট ডুয়াল ভিভিটি কে সিরিজের একটি ইঞ্জিন দেওয়া হয়েছে এই গাড়ির সঙ্গে। ৬০ লিটার ক্ষমতা বিশিষ্ট সিএনজি ট্যাঙ্কারের সঙ্গে এই ইঞ্জিন সংযুক্ত। মারুটি সুজুকি জানিয়েছে সেলেরিও সিএনজি গাড়ির মাইলেজ ৩৫.৬০ কিলোমিটার। তবে সর্বাধিক মাইলেজ পেতে গেলে আপনাকে কিন্তু নিয়মিত এই গাড়ি সার্ভিসিং করাতে হবে।

অন্যদিকে সেলেরিও সিএনজি গাড়িতে আপনারা ৮২.১ ন্যানোমিটার টর্ক জেনারেট করার ইঞ্জিন পেয়ে যাবেন। পেট্রোল ভার্সন এর ৮৯ ন্যানোমিটার টর্কের থেকে এটি সামান্য একটু কম। পাশাপাশি, সিএনজি মডেলে আপনারা ৫৬ হর্সপাওয়ারের ক্ষমতা পেয়ে যাবেন। যদিও এটা পেট্রোল ইঞ্জিনের থেকে বেশ কিছুটা কম। পেট্রল ইঞ্জিনে ইঞ্জিনের পাওয়ার ক্ষমতা ৬৪ হর্স পাওয়ার। তবে মাইলেজের দিক থেকে পেট্রোল ইঞ্জিনের থেকে সিএনজি ভেরিয়েন্ট অনেকটাই বেশি। তাই যদি আপনি পাওয়ার এবং টর্কের দিক থেকে আপস করতে পারেন তাহলে আপনি দুর্দান্ত মাইলেজ পেয়ে যাবেন এই সিএনজি মডেলের গাড়ির সঙ্গে।

Related Articles

Back to top button