নিউজপলিটিক্সরাজ্য

“নন্দীগ্রামে চলছে দলবিরোধী কাজ”, শিশির অধিকারীকে ব্যবস্থা নিতে বললেন তৃণমূল নেত্রী

Advertisement

বুধবার সৌগত রায়কে মেসেজ পাঠান প্রাক্তন পরিবহণ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। তার পরে শুভেন্দুর বিষয়টিকে ‘ক্লোজড চ্যাপ্টার’ বলে দলের অন্দরে স্পষ্ট করে দিয়েছেন দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এইদিন স্পষ্ট হল সেই বার্তা। শুক্রবার পূর্ব মেদিনীপুরের জেলা সভাপতি শিশির অধিকারীকে দলনেত্রী নির্দেশ দেন, নন্দীগ্রাম-হলদিয়ে এবং কাঁথিতে চলছে দলবিরোধী কাজ। সেই বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে বলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি নাম না নিলেও তার লক্ষ্য যে ঠিক কে ছিলেন তা বুঝতে বাকি থাকেনি কারও।

এইদিন দলের সাংসদ বিধায়ক জেলা সভাপতিদের নিয়ে বৈঠকে বসেছিলেন দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । সেখানেই দল বিরোধীদের কড়া বার্তা দেন তিনি। বিশেষ করে নন্দীগ্রাম, কাঁথিতে দলবিরোধী কাজের বিষয়টিকে তোলেন তৃণমূল সুপ্রিমো।

এছাড়া, পূর্ব মেদিনীপুর এলাকায় বিজেপি আধিপত্যের বিষয়েও এইদিন কথা বলেন নেত্রী। এজেন্সি নিয়ে ভয় দেখাচ্ছে বিজেপি। নেত্রীর বক্তব্য,”আমাদের সাথে যারা নেই তাদের সরিয়ে দিতে হবে।দলের হয়ে কাজ না করতে হলে দলে থাকার কোনও প্রয়োজন নেই।” শুভেন্দু অধিকারীর নাম তিনি বলেননি ঠিকই তবে বৈঠকের নিশানায় ছিলেন তিনি। সেই বিষয়টি দলের বাকি নেতা নেত্রীদের কাছেও স্পষ্ট।

এইদিন নিজের উদাহরণ দিয়ে মমতা বলেন,”ঘরে থাকার সময় নেই। ৭ ডিসেম্বর থেকে আমি শুরু করতে চলেছি প্রচার কর্মসূচি। তেমনই বাকি নেতা কর্মীদের ও নামতে হবে পথে।” প্রসঙ্গত, ৭ই ডিসেম্বর পূর্ব মেদিনীপুর লাগোয়া পশ্চিম মেদিনীপুর থেকে ভোটের কর্মসূচি শুরু করতে চলেছেন দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শাসক দল তাদের কর্মসূচি শুরু করবেন পশ্চিম মেদিনীপুর, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, মুর্শিদাবাদ এবং মালদহ থেকে। এই তিন জেলার পর্যবেক্ষক ছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। সেই কারণেই দল এই জেলাগুলি থেকে নিজের কর্মসূচি শুরু করবেন বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

Tags

Related Articles

Back to top button