নিউজপলিটিক্সরাজ্য

“নতুন বোতলে পুরনো মদ”, নাম না নিয়ে কোচবিহার জনসভা থেকে মিহির গোস্বামীকে কটাক্ষ মমতার

Advertisement

একুশের নির্বাচনের আগে তৃণমূল কংগ্রেস পূর্ণ উদ্যমে ভোট প্রচারের কাজে নেমে পড়েছে। তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তিন দিনের জন্য উত্তরবঙ্গ সফরে গিয়েছেন। গতকাল জলপাইগুড়ি জেলায় জলপাইগুড়ি ও আলিপুরদুয়ারে জনতার জন্য জনসভা করেছিলেন। তিনি আজ অর্থাৎ বুধবার কোচবিহারের রাসমেলা ময়দানে জনসভা করছেন। আর সেই জনসভা থেকে সদ্য তৃণমূল ছাড়া বিজেপিতে যোগ দেওয়া কোচবিহারের বিধায়ক মিহির গোস্বামীকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করলেন।

Advertisement

আজ অর্থাৎ বুধবার কোচবিহারের রাসমেলা ময়দানে দাঁড়িয়ে উপস্থিত জনতার সামনে মিহির গোস্বামীর নাম না নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, “দলের অভিযোগের ভিত্তিতে আমরা দল থেকে তাড়িয়ে দিয়েছিলাম। আর সে বিজেপিতে যোগদান করেছে। ব্যাপারটা অনেকটা নতুন বোতলে পুরনো মদের মতো।” সেই সাথে তিনি প্রাক্তন তৃণমূল বিধায়ককে কটাক্ষ করে বলেছেন, “যে নানা রকম মিথ্যা কথা বলে, কুৎসা করে, চরিত্র হনন করে তার দলে না থাকাই ভালো।”

অন্যদিকে কোচবিহার দক্ষিণের বিধায়ক মিহির গোস্বামী দল পরিবর্তন করার পর একটা জল্পনা উঠেছিল এবারে দক্ষিণের বিধায়ক পদে কে নিযুক্ত হবে। আর তারই মধ্যে মমতার উত্তরবঙ্গ সফর শুরু হয়ে গিয়েছে। তিনি আজ সাফ ভাষায় জানিয়ে দিয়েছেন, “যারা প্রথম থেকে তৃণমূলে আছে তারা তৃণমূলের সম্পদ। একটা দুটো জোয়ারে আসে আবার ভাটায় চলে যায়। তাদের নিয়ে কিছু ভাবে না তৃণমূল বা তৃণমূলের কিছু যায় আসে না। কিন্তু যারা দলের প্রথম দিন থেকে শেষ দিন অবধি আছে তাদের আমরা সম্মান করি। মানুষ তো আর রোজ চরিত্র বদল করতে পারে না। জামা কাপড় বদলানো যায়। আদর্শ নয়।”

Advertisement

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, মিহির গোস্বামী গত ২৭ নভেম্বর দিল্লিতে গিয়ে বিজেপিতে সদরদপ্তরে গেরুয়া শিবিরে যোগদান করেছিলেন। তার আগেই তিনি ফেসবুকে সাফ জানিয়ে দিয়েছিলেন, “আমার দল আর আমার নেত্রীর হাতে নেই। তাই আমি আর এই দলে থাকতে চাই না। আমি দল থেকে আমার সমস্ত রকম সম্পর্ক ছিন্ন করছি।”

Advertisement

Related Articles

Back to top button