×
নিউজরাজ্য

যশ ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত দীঘা পুনর্গঠনের দায়িত্ব নিলেন খোদ মমতা, ঘুরে দেখলেন পুরো এলাকা

অখিল গিরি বলেছেন, গোটা জেলার ক্ষতির সমস্ত খতিয়ান নিজেই দেখেছেন মমতা

Advertisement

যশ ঘূর্ণিঝড়ের তাণ্ডবে লন্ডভন্ড দীঘা আবার পুনর্গঠনের আশ্বাস দিলেন এবারে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তার জন্য শনিবার সমুদ্র সৈকত ঘুরে সমস্ত কিছু দেখে পর্যবেক্ষণ করলেন মুখ্যমন্ত্রী। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী অখিল গিরি জানালেন মুখ্যমন্ত্রী কলকাতা রওনা দেওয়ার আগে দীঘার সমস্ত কিছু পুনর্গঠন করে দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ক্ষমতায় আসার পর থেকেই দীঘা মন্দারমনি সহ সমস্ত সমুদ্র সৈকত সাজিয়ে তুলেছিলেন নিজের মতো করে।

Advertisement

কিন্তু ভয়াল ভয়ঙ্কর যশ ঘূর্ণিঝড়ের ফলে সাজানো-গোছানো সমুদ্র সৈকত একেবারে ভেঙে গিয়েছিল। হিঙ্গলগঞ্জ থেকে শুরু করে কলাইকুন্ডা সমস্ত জায়গা দেখে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অত্যন্ত হতবাক। কংক্রিটের সমুদ্রতটের পরিস্থিতি থেকে শুরু করে একাধিক দোকান, সমস্ত কিছুই ভগ্নপ্রায় অবস্থায় পৌঁছে গিয়েছে।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই জায়গাটি কে আবারো নিজের নতুন মর্যাদায় ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করছেন বলেও তিনি জানিয়েছেন। অখিল গিরি আশ্বাস দিয়েছেন, “মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজে দীঘা কে নতুন মর্যাদায় ফিরে আনার চেষ্টা করছেন। দীঘা কে আবার নতুন করে সাজানোর পরিকল্পনা গ্রহণ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। দীঘা শঙ্করপুর উন্নয়ন পর্ষদের এবার দায়িত্বে আছেন খোদ মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়।” মুখ্যমন্ত্রী আশা রেখেছেন আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় এর দায়িত্বে দীঘা নিজের পুরনো মর্যাদায় ফিরে আসবে।

Advertisement

অন্যদিকে অখিল গিরির আরো বলেছেন, “শুক্রবার দীঘায় আসার পরে সমুদ্র সৈকতের অবস্থা এবং ক্ষয়ক্ষতির খতিয়ান নিজে খতিয়ে দেখেছেন মুখ্যমন্ত্রী। কাঁথি, খেজুরি এবং নন্দীগ্রামে সমস্ত এলাকাগুলি তিনি নিজে পর্যবেক্ষণ করেছেন। বন্যার তোড়ে দীঘা এবং পাশাপাশি গোটা জেলার ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। যে ক্ষতি হয়েছে সে ক্ষতিপূরণ করার সমস্ত দায়বদ্ধতা নিয়েছে রাজ্য।”

Related Articles

Back to top button