খেলাক্রিকেট

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ের পর বড় ঘোষণা কুলদীপ যাদবের, বলিউড অভিনেত্রীকে বিয়ে করছেন?

নিজের বিয়ের পরিকল্পনার কথা জানান কুলদীপ যাদব। বলিউডের কোনও অভিনেত্রীকে বিয়ে?

Advertisement
Advertisement

বিশ্বকাপ জিতে দেশে ফিরে নিজের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে খোলামেলা কথা বললেন ভারতীয় দলের তারকা স্পিনার কুলদীপ যাদব। কুলদীপ যাদবকে স্বাগত জানাতে ভক্তরা ভিড় করেছিলেন কানপুরে। কুলদীপের সম্মানে আতশবাজি, ঢাক-ঢোল ও গানের আয়োজন করেছিলেন ভক্তরা। এ সময় গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপচারিতায় নিজের বিয়ের পরিকল্পনার কথা জানান তিনি। এর সঙ্গে তিনি এটাও স্পষ্ট করে দিয়েছেন যে বলিউডের কোনও অভিনেত্রীকে বিয়ে করবেন না।

Advertisement
Advertisement

বলিউডের কোনও অভিনেত্রীকে বিয়ে?

সাক্ষাৎকারে কুলদীপ বলেন, ‘খুব শিগগিরই সুখবর পাবেন, তবে আমার জীবনসঙ্গী অভিনেত্রী হবে না। এটা গুরুত্বপূর্ণ যে তিনি আমার এবং আমার পরিবারের যত্ন নিতে পারেন।’ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয় নিয়ে কুলদীপ যাদব বলেন, ‘আমরা খুব খুশি। আমরা দীর্ঘদিন ধরে এর জন্য অপেক্ষা করছিলাম। এখানে লোকজনকে দেখে খুব ভালো লাগছে। বিশ্বকাপ এনে দিতে পারাটা দারুণ আনন্দের। এটা আমাদের চেয়ে ভারতের জন্য বেশি গুরুত্বপূর্ণ। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে দেখা করে ভাল লাগল।’

Advertisement

১২৫ কোটি টাকার পুরষ্কার

দিল্লিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে বৈঠক সেরে মুম্বইয়ের উদ্দেশে রওনা দেন ক্রিকেটাররা। মুম্বইয়ের মেরিন ড্রাইভ থেকে আইকনিক ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়াম পর্যন্ত একটি উন্মুক্ত বাসের বিজয় প্যারেডের আয়োজন করেছিল মেন ইন ব্লুজ। উৎসাহী ভক্তদের উল্লাস, স্লোগান এবং করতালির মধ্যে দলটি ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে গিয়েছিল, যেখানে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই) কর্মকর্তারা তাদের ১২৫ কোটি টাকার পুরষ্কার প্রদান করেছিল। জনাকীর্ণ মাঠে খেলোয়াড়রা তাদের জয় এবং টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মূল খেলোয়াড়দের পারফরম্যান্স নিয়েও কথা বলেন।

Advertisement
Advertisement

kuldeep yadav said about marriage plan

পাঁচ ম্যাচে ১০ উইকেট

অনুষ্ঠানে দেশের জাতীয় সঙ্গীত ‘বন্দে মাতরম’-এর সুরে খেলোয়াড়দের উইনিং ল্যাপ নিতেও দেখা গেছে। টুর্নামেন্টের লিগ রাউন্ডে কুলদীপ যাদব প্লেয়িং ইলেভেনে সুযোগ পাননি। তবে তিনি সুপার ৮ রাউন্ড থেকে ফাইনাল পর্যন্ত ধারাবাহিকভাবে দলের অংশ ছিলেন। এই সময়ে পাঁচ ম্যাচে ১০ উইকেট নিয়েছিলেন।

ফাইনালে দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারানোর পর বার্বাডোজে ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড় বেরিলে আটকে যায় ভারতীয় দল। বিমানবন্দরগুলি সিল করে দেওয়া হয়েছিল। ৪ জুলাই সকাল ৬ টায় দিল্লি পৌঁছেছিল টিম ইন্ডিয়া। ক্রিকেটার ও তার পরিবার ছাড়াও বোর্ডের কর্মকর্তা, সাপোর্ট স্টাফ এবং কিছু ভারতীয় সাংবাদিকও এই ফ্লাইটে উপস্থিত ছিলেন।

Advertisement

Related Articles

Back to top button