×
বলিউডবিনোদন

কেমন আছেন অমিতাভ বচ্চনের ‘জুম্মা চুম্মা’ গানের অভিনেত্রী কিমি, রইল এখনকার ছবি

বর্তমানে পুনে শহরে পরিবারের সাথে রয়েছেন কিমি কাতকার

Advertisement

বলিউড শাহেনশাহ অমিতাভ বচ্চনের প্রায় সব সিনেমাই হিন্দি সিনেমার ইতিহাসে অন্যতম উল্লেখযোগ্য অবদান রেখেছে। বলা যেতে পারে, পুরনো হিন্দি সিনেমার ভান্ডার অমিতাভ বচ্চনের বহুমুখী সিনেমার তালিকা ছাড়া বড্ড বেমানান। তখন থেকে শুরু করে এখনকার দিনেও কোনো পার্টি বা প্রোগ্রামে নাচ অমিতাভের ‘জুম্মা চুম্মা’ গান ছড়া অসম্পূর্ণ থেকে যায়। এই গানটি ছিল হিন্দি সিনেমা, হাম এ। এই সিনেমায় অমিতাভের পাশাপাশি ব্যাপক অভিনয় করে অনেকের মন জয় করে নিয়েছিলেন কিমি কাতকার। ১৯৯১ সালের সিনেমার গান এখনও অব্দি সমানভাবেই জনপ্রিয়। তবে কখনও কি ভেবে দেখেছেন এখন কেমন রয়েছেন অভিনেত্রী কিমি কাতকার?

Advertisement

আসলে ‘জুম্মা চুম্মা’ গানে অসাধারণ পারফরম্যান্স দেখিয়ে সকলের মনে জায়গা করে নিয়েছিলেন কিমি কাতকার। তিনি খুব অল্প সময়ের মধ্যেই জনপ্রিয়তার শীর্ষে পৌঁছে গিয়েছিলেন। কিন্তু তা সত্ত্বেও তিনি হঠাৎ করেই বলি ক্যারিয়ার ত্যাগ করে সকলকে অবাক করে দিয়েছিলেন। শুরু করা যাক প্রথম থেকেই। ১৯৮৫ সালে ‘পাথর দিল’ সিনেমার মধ্য দিয়ে বলিউডে পা রাখেন তিনি। তারপর থেকে একাধিক সিনেমায় মনে রাখার মত কাজ উপহার দেন তিনি। মোট ৭ বছরের বলিউড ক্যারিয়ারে এই অভিনেত্রী ৪৫ টি সিনেমায় কাজ করেন কিমি।

Advertisement

একাধারে সুপারহিট সিনেমাতে তিনি যেমন কাজ করেছিলেন, ঠিক তেমনই কিছু বোল্ড সিনেমাতেও অভিনয় করে দর্শকদের মন জয় করেছেন তিনি। টারজান সিনেমাতে তাঁর বোল্ড সিনের জন্য তিনি প্রায় রাতারাতি বলি লাইমলাইটে চলে এসেছিলেন। এর পাশাপাশি কিমি একাধিক নামজাদা বলিউড স্টারের সাথে স্ক্রিন শেয়ার করেছেন। প্রখ্যাত বলি অভিনেতা গোবিন্দার সাথে ৬ টি সিনেমায় কাজ করেন তিনি। এছাড়াও সঞ্জয় দত্ত, অনিল কাপুর ইত্যাদির সাথে একাধিক হিট ফিল্ম যেমন তেজা, খুন কা কার্জ ইত্যাদি সিনেমায় কাজ করেছেন তিনি।

তবে জুম্মা চুম্মা গান অতিরিক্ত হিট হলেও তিনি তারপর থেকেই বলিউডের সাথে দূরত্ব বাড়াতে শুরু করেন। জানা যায়, অভিনেত্রী অভিযোগ করতেন যে বলি টাউনে অভিনেতা এবং অভিনেত্রীদের মধ্যে অনেক ধরনের ভেদাভেদ রাখা হত। সেই জন্যেই প্রায় হঠাৎ করেই গ্ল্যামার ওয়ার্ল্ড ছেড়ে দেন তিনি। তারপর হাম সিনেমার ফটোগ্রাফার এবং ফিল্মমেকার শান্তনুর সাথে বিয়ে করে সংসার শুরু করেন। তবে বিয়ের পর ছেলের অসুস্থতার কারণে অভিনেত্রী অস্ট্রেলিয়া চলে যান। তারপর ঘটনাচক্রে আর দীর্ঘদিন দেশে ফেরা হয়নি তার। অবশেষে ২০০৬ সালে তিনি আবার ভারতে ফিরে আসেন। বর্তমানে পুনে শহরে পরিবারের সাথে রয়েছেন তিনি। কোনো বিশেষ অনুষ্ঠান ছাড়া তাঁকে মিডিয়ার সামনে দেখা যায় না।

Related Articles

Back to top button