×
বিনোদনবলিউড

জাহ্নবী-সারা একে অপরের সাথে পারিবারিক সূত্রে বাধা পড়তে চলেছিলেন, শ্রীদেবীর জন্যই সেই ঘটনা ঘটেনি

Advertisement

শ্রীদেবী বলিউড ইন্ডাস্ট্রির প্রথম সারির অভিনেত্রীদের মধ্যে একজন ছিলেন। সেইসময়ের সুন্দরী অভিনেত্রীদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন তিনি। তবে কয়েকবছর আগেই দুর্ঘটনায় দুবাইতে প্রয়াত হয়েছেন তিনি। তবে বর্তমানে মিডিয়াতে প্রায়ই চর্চায় থাকতে দেখা যায় অভিনেত্রীকে, কারণ তার মেয়ে জাহ্নবী কাপুর। তিনি বর্তমান সময়ে বলিউডের অন্যতম সুন্দরী তরুণ অভিনেত্রীদের মধ্যে একজন। ইতিমধ্যেই একাধিক হিট ছবি উপহার দিয়েছেন নিজের দর্শকদের।

Advertisement

শ্রীদেবীর মতোই সাইফ আলি খান বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় নক্ষত্র। নব্বইয়ের দশকের জনপ্রিয় অভিনেতা তিনি। বর্তমানে মিডিয়াতে প্রায়ই চর্চায় থাকেন অভিনেতা। স্ত্রী কারিনা কাপুর খান ও দুই ছেলের জন্য চর্চায় থাকতে দেখা যায় অভিনেতাকে। তবে তার প্রাক্তন স্ত্রী অমৃতা সিং ও তার কন্যা সারা আলি খানের জন্যও প্রায়ই চর্চায় থাকেন তিনি। সারা আলি খানও বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় প্রথম সারির তরুণ সুন্দরী অভিনেত্রী। তিনিও ইতিমধ্যেই নিজের জায়গা পাকা করে ফেলেছেন ইন্ডাস্ট্রিতে। উল্লেখ্য, সারা আলি খান ও জাহ্নবী কাপুর দুজনেই একে অপরের বেশ ভালো বন্ধু তার প্রমাণ মিলেছে একাধিকবার।

এবার প্রশ্ন উঠতেই পারে, হঠাৎ করে শ্রীদেবীর পাশাপাশি সাইফ আলি খানের প্রসঙ্গ কেন উঠে এলো? আসলে এনারা দুজনেই বর্তমানে নিজেদের মেয়ের সূত্র ধরেই চর্চায় মিডিয়াতে। সম্প্রতি একটি পুরানো তথ্য উঠে এসেছে মিডিয়ার হাত ধরেই। জানা গেছে, একটা সময় নাকি শ্রীদেবীকন্যা ও সাইফকন্যা দুজনেই একে অপরের সাথে পারিবারিক সূত্রে বাঁধা পড়তে চলেছিলেন। তবে সেইসময়ে শ্রীদেবীর জন্যই নাকি সেই ঘটনা আর বেশি দূর এগোয়নি।

Advertisement

আসল বিষয়টা হল, জাহ্নবী কাপুর ও সারা আলি খান দুজনেই মুম্বাইয়ের প্রখ্যাত রাজনীতিবিদ সুশীল কুমার শিন্ডের দুই নাতি শিখর ও বীরের সাথে সম্পর্কে জড়িয়ে ছিলেন। সেই সম্পর্ক বিয়ে পর্যন্ত গড়িয়েছিল। তবে শেষপর্যন্ত শ্রীদেবী কিংবা সাইফ আলি খান কেউই এই বিয়ে কিংবা এই সম্পর্ক মেনে নেননি। বিশেষ করে শ্রীদেবী কখনই চাননি এই সম্পর্ক বেশিদূর যাক। সেইসময় অত ছোট বয়সে নিজের মেয়ের বিয়ে দিতে চাননি অভিনেত্রী। সম্প্রতি সেই তথ্যই উঠে এসেছে প্রকাশ্যে। জাহ্নবী কাপুর ও সারা আলি খান সেইসময় একে অপরের সাথে পারিবারিক সূত্রে বাঁধা পড়তে পড়তেও পরেননি শুধুমাত্র শ্রীদেবীর জন্যই।

Related Articles

Back to top button