আন্তর্জাতিকনিউজ

করোনায় আক্রান্ত হয়ে কুকুরের মৃত্যু হল নিউইয়র্কে

Advertisement

শ্রেয়া চ্যাটার্জি – নিউইয়র্কের স্টেটন আইল্যান্ডের সাত বছর বয়সী একটি জার্মান শেফার্ড কুকুর, যার নাম বাডি, করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ল। ইউনাইটেড স্টেটস এ সেই প্রথম করোনায় আক্রান্ত কুকুর যে মারা গেছে। ন্যাশনাল জিওগ্রাফি রিপোর্ট অনুসারে জানা যায়, বাডি এপ্রিল মাস থেকেই বেশ অসুস্থ ছিল, এই সময় তার মালিক মাহনি করোনা থেকে আস্তে আস্তে সুস্থ হয়ে উঠছিলেন। এপ্রিল মাসের মাঝের সময় থেকেই বাডি শ্বাসকষ্টজনিত রোগে ভুগছিল।

মে মাসের টেস্টে তার করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে। তারপরে আস্তে আস্তে সে কিছুদিন পরে রক্ত বমি করতে থাকে, প্রস্রাবের সঙ্গে রক্ত আসতে শুরু করে। আস্তে আস্তে সে হাঁটতে অক্ষম হয়ে পড়ে। শেষ পর্যন্ত মাহনি এবং তার স্ত্রী আলিশান তাদের পক্ষ থেকে গত ১১ ই জুলাই হারিয়ে ফেলেন। তবে পরীক্ষা করে দেখা গেছে তাই সে যে শুধুমাত্র করোনাভাইরাস এর জন্যই মারা গেছে তা নয়, তার ব্লাড রিপোর্ট প্রমাণ করছে যে তার লিম্ফোমা হয়েছিল অর্থাৎ খাদ্যনালীতে ক্যান্সার। তবে এটা সত্যিই জানা যায়নি যে ক্যান্সারের জন্য সে মারা গেল নাকি করোনা ভাইরাস তার এই ক্যান্সার রোগটিকে আরো উসকে দিল। এতকিছু জানার সময় পাওয়া যায়নি। বাডি তার আগেই চলে গেল।

করোনা কেড়ে নিয়েছে অনেকের প্রাণ। বিশ্ব অর্থনৈতিক কাঠামোকে একেবারে দুমড়েমুচড়ে শেষ করে দিয়েছে। কবে গোটা বিশ্ববাসী এই মহামারির হাত থেকে রক্ষা পাবে তা এখনো অনিশ্চিত। এখনো কত দুঃখ, কত মৃত্যু প্রত্যেককে পেতে হবে তা কেউ জানে না। পোষ্যরা বাড়িতে থাকতে থাকতে বাড়িরই একজন হয়ে ওঠে। বাড়িতে কেউ মারা গেলে যেমন কষ্ট হয়, তেমন সারাক্ষণ ঘুরে বেড়ানো পোষ্য হঠাৎ করে চলে গেলেও কষ্ট হয়। তবে এখানে বাডির মৃত্যু হয় তো হতোই। কারণ সে শারিরিকভাবে এমনিতেই অসুস্থ ছিল। কিন্তু করোনা ভাইরাস এ আক্রান্ত না হলে হয়তো আর কিছুদিন সে বেঁচে যেত।

Tags

Related Articles

Back to top button
×
Close
Close