×
ভাইরাল & ভিডিও

বাবা-ছেলে উভয়েই রেলকর্মী, আলাদা দুই ট্রেন থেকে সেলফি ক্লিক করে ব্যাপক ভাইরাল ইন্টারনেটে

বাবা রেলের গার্ড পদে কর্মরত এবং ছেলে নতুন টিকিট পরীক্ষক হিসাবে চাকরি পেয়েছে

Advertisement

বর্তমান ডিজিটাল যুগে প্রত্যেকের কাছেই স্মার্টফোন অবশ্যই রয়েছে। আসলে এখন দুনিয়ার সাথে পাল্লা দিয়ে চলতে গেলে প্রযুক্তির ব্যবহার অবশ্যই করতে হবে। বেশিরভাগ কাজকর্ম আজকালকার দিনে মুঠোফোনের মাধ্যমেই করা যায়। এখন আস্তে আস্তে জনপ্রিয়তা হারাচ্ছে টিভি, রেডিও এবং সংবাদপত্র। সেই জায়গায় বিনোদনের স্মার্ট পরিপূরক হয়ে উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়া। ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম, টুইটার ইত্যাদি বিভিন্ন জায়গাতে যেকোনো সময় গেলেই বিভিন্ন ধরনের মজাদার বা অবাক করা ঘটনার ভিডিও বা ছবি দেখা যায়।

Advertisement

সোশ্যাল মিডিয়াতে একদিকে যেমন মানুষ নিজেদের প্রতিভা প্রদর্শনের জন্য ভিডিও বানিয়ে পোস্ট করে, তো ঠিক অন্যদিকে কেউ কেউ আবার বিভিন্ন মজাদার বা অবাক করে দেওয়ার ঘটনার ভিডিও বানিয়ে পোস্ট করে থাকে। রোজ ইন্টারনেট দুনিয়াতে বিভিন্ন ধরনের ভিডিও ভাইরাল হয়ে থাকে। সম্প্রতি এমন একটি ভিডিও ভাইরাল হচ্ছে যা সত্যিই আপনার মন ছুঁয়ে যাবে।

আমাদের প্রত্যেকের জীবনে এমন কিছু না কিছু মুহূর্ত আছে যা সকলেই ক্যামেরাবন্দি করে সারা জীবনের জন্য রেখে দিতে চায়। কিছু কিছু আবেগঘন বিশেষ মুহূর্ত ফ্রেমবন্দি না হলেই নয়। সম্প্রতি বাবা ছেলের একটি সুন্দর মুহূর্তের ছবি ইন্টারনেট দুনিয়াতে ব্যাপক ভাইরাল হচ্ছে। ওই ভাইরাল ছবিতে দেখা গিয়েছে বাবা এবং ছেলে দুজনেই রেলকর্মী হিসাবে নিযুক্ত। বাবা রেলের গার্ড পদে কর্মরত এবং ছেলে নতুন টিকিট পরীক্ষক হিসাবে চাকরি পেয়েছে। তাদের পৃথক দুই ট্রেনে ডিউটি পড়লেও কাকতালীয়ভাবে দুজনের ট্রেন একই সময়ে পরস্পর বিপরীতমুখী যাচ্ছিল। সেই সময় চলন্ত ট্রেন থেকে ছেলে বাবার সাথে একটি সেলফি ক্লিক করে। বাবার সাথে ছেলের এই অত্যন্ত বিরল এবং অমূল্য ছবি এখন সোশ্যাল মিডিয়াতে সুপারহিট হয়ে গেছে।

Advertisement

এই ছবি ঝড়ের গতিতে ইন্টারনেট দুনিয়াতে ব্যাপক ভাইরাল হচ্ছে। বাবা-ছেলের এমন বিশেষ মুহূর্তের নিজস্বী দেখে আবেগপ্লুত গোটা ইন্টারনেট দুনিয়া। আপনাকে জানিয়ে রাখি, অত্যন্ত কম সময়ের মধ্যেই এই ছবিতে ৭৩ হাজারের বেশি মানুষ লাইক করেছেন। বলাবাহুল্য অসংখ্য মানুষ এই ছবি দেখেছেন। অনেকে কমেন্ট করে লিখেছেন, “সত্যিই এটি একটি দুর্দান্ত বিরল মুহূর্ত।” আবার কেউ লিখেছেন, “এই সেলফি বিশ্বের সবচেয়ে মূল্যবান।” সব মিলিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে এখন রাজ করছে বাবা-ছেলের দুর্মূল্য নিজস্বী।

Related Articles

Back to top button