×
দেশনিউজ

লাদাখের পর আবারও পিছু হটলো লালফৌজ, সরে গেল চিনা নৌবহর

Advertisement

লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় সীমান্ত সংঘর্ষের পর জোর ধাক্কা খেল চিনের লালফৌজ। সীমান্ত এলাকায় দুই দেশের হাতাহাতির ঘটনায় ২০ জন ভারতীয় সেনা শহীদ হওয়ার পর থেকেই আকসাই চিন অঞ্চলে যুদ্ধের জন্য তৈরি ভারতীয় সেনাবাহিনী। ভারতীয় বায়ুসেনার সুখোই, অ্যাপাচের মতো অত্যাধুনিক যুদ্ধবিমান ও হেলিকপ্টারের মাধ্যমে লাগাতার টহল চলছে ফরওয়ার্ড বেসগুলি থেকে। একইসঙ্গে, দেশের জলসীমাকে সুরক্ষিত রাখতে ময়দানে নেমেছে ভারতীয় নৌবাহিনীও। ফলে ভারতের জলসীমা এলাকা থেকে পিছু হটতে শুরু করেছে চিনা নৌবাহিনী।

Advertisement

সূত্রের খবর, লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় চিনা আগ্রাসনের পর বিশেষ তৎপর হয়েছে ভারত। ভারতের সমুদ্রে চিনের দাদাগিরি ঠেকাতে যুদ্ধবিমান, সাবমেরিন ও রণতরী নিয়ে নজরদারি শুরু করেছে ভারতীয় নৌবাহিনী। কড়া নজরদারি চালানো হচ্ছে মালাক্কা প্রণালী থেকে হর্ন অব আফ্রিকা পর্যন্ত। জলদস্যুদের ঠেকাতে পাকিস্তানের গদর ও লোহিত সাগরের মুখে অবস্থিত জিবৌতি নৌঘাঁটি এলাকা থেকে মালাক্কা প্রণালীতে নজরদারি চালাচ্ছে চিনা যুদ্ধজাহাজ।

২০১৮ সাল থেকেই ভারত মহাসাগর ও ভারতের আন্তর্জাতিক জলসীমায় ঘোরাঘুরি করে থাকে চিনা নৌবহর। ফলে জলসীমায় নজরদারি বাড়ায় ভারতীয় নৌসেনা। এরপরই চিনের তিনটি যুদ্ধজাহাজ এডেন উপসাগরে ও আরও তিনটি যুদ্ধজাহাজ মালাক্কা প্রণালী থেকে নিজেদের ঘাঁটিতে চলে যায়। শুধু তাই নয়, ইন্দোনেশিয়ার সমুদ্র এলাকা থেকেও সরতে শুরু করেছে চিনা নৌবহর।

Advertisement

Related Articles

Back to top button