×
দেশনিউজ

রুখে দেওয়া যাবে ভারত মহাসাগরে চিনের দাদাগিরি, খুব শীঘ্রই সাবমেরিন ধ্বংসকারী বিমান পাচ্ছে দেশ

ভারতীয় নৌবাহিনীর জন্য বিশেষ ভাবে তৈরি করা হয়েছে পি-৮আই বিমানটি।

Advertisement

ভারত মহাসাগরে নিজেদের প্রভাব বাড়াতে চিন দীর্ঘদিন ধরেই জলদস্যু দমনের অজুহাতকে ব্যবহার করে আসছে। চিনের সেই কৌশলকে ভোঁতা করতে তৎপর হয়ে উঠেছে ভারতীয় নৌবাহিনী। সাবমেরিন ধ্বংসকারী আরও ৪ টি পি-৮আই বিমান নিয়ে আসছে ভারত। আগামী বছরই আমেরিকা থেকে সেগুলি ভারতের হাতে এসে পৌঁছাবে বলে জানা গেছে। নতুন দিল্লি সূত্রে জানা গেছে, ২০২১-এ আরও ৬ টি পি-৮আই বিমান কেনা হতে পারে। ভারত মহাসাগরে দেশের প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা আরও জোরদার করতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

Advertisement

ভারতীয় নৌবাহিনীর জন্য বিশেষ ভাবে তৈরি করা হয়েছে পি-৮আই বিমানটি। উপকূলীয় অঞ্চলে নজরদারি, শত্রুপক্ষের জাহাজ এবং সাবমেরিনের অবস্থান চিহ্নিত করা ও প্রয়োজনে তাদের উপর আঘাত হানতে ভারতীয় নৌবাহিনীর জন্য বেশ কার্যকরী হয়ে উঠবে বিমানটি। দেশের প্রতিরক্ষাকে মজবুত করা ও নানা আঞ্চলিক শক্তিকে যোগ্য জবাব দিতেই ২ হাজার ২০০ কিলোমিটার পাল্লার হারপুন ব্লক-২ ক্ষেপণাস্ত্র এবং হালকা ওজনের টর্পেডোকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে এই বিমানে।

শক্তিশালী রেডিয়ো সিগন্যালের সাহায্যে বিমানটি শত্রুপক্ষের সাবমেরিন এবং জাহাজ, দুই-ই ধ্বংস করতে পারবে অনায়াসে। ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ৭৮৯ কিলোমিটার গতিবেগে নির্ভুল নিশানায় ছুটে গিয়ে লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে পারে এটি। গোপনে হানা দেওয়া শত্রুপক্ষের সাবমেরিনকেও নিমেষে ধ্বংস করার ক্ষমতা রয়েছে এই ক্ষেপণাস্ত্রবাহী বিমানের। যুদ্ধ পরিস্থিতি ছাড়াও সমুদ্রে নজরদারি চালাতেও ব্যবহার করা হয় এই পি-৮আই বিমান।

Advertisement

Related Articles

Back to top button