টলিউডবাংলা সিরিয়ালবিনোদনভাইরাল & ভিডিও

Soumitrisha Kundu : ‘কামড়ে দেব আমি’, মেক-আপ রুমে কাকে কামড়ানোর হুমকি দিলেন ‘মিঠাই’ রানী ? রইল ভিডিও

এই বছরের মতো দুর্গাপুজো শেষ! তেমনই পুজোর ছুটি শেষ৷ পুজোর ছুটি শেষ হতেই ফের সচল টলিপাড়া। আবার শ্যুটিং ফ্লোরে নিজেদের কাজেদের জায়গায় ফিরে এসেছেন সকল অভিনেতা অভিনেত্রীরা। বাদ পড়েনি মিঠাই রানী। আর শুটিংয়ের প্রথম দিনেই মেকআপ রুমে হঠাৎ কামড়ে দেওয়ার কথা বললো সকলের প্রিয় মিঠাই। কিন্তু কাকে বললো এই কথা?

টেলিভিশনের এক নম্বর৷ ধারাবাহিক হল ‘মিঠাই’। টিআরপি তালিকায় সাত মাস ধরে এক নম্বরে ‘মিঠাই’ নিজের জায়গা কায়েম করে রেখেছেন। আর জি বাংলার এই ধারাবাহিকের বিপুল সাফল্যের পিছনে রয়েছে সৌমিতৃষা-আদৃতের জমজমাট অনস্ক্রিন কেমিস্ট্রি। পুজো শেষ হতেই ফের সৌমিতৃষা টিআরপির যুদ্ধে শামিল হয়েছেন। কোমর বেঁধেই তাই গতে বাঁধা রুটিনে ফিরেছেন অভিনেত্রী।
মিঠাইরানি রিলে যেমন দুষ্টু আর মিষ্টি স্বভাবের। অফস্ক্রিনেও। সৌমিতৃষা নিজের দুষ্টু-মিষ্টি স্বভাবের জেরে দর্শকদের মন জিতে নেন সবসময়ই।

কিন্তু এর মাঝে কাজে ফিরতেই আচমকাই ‘মিঠাই’-এর মেক-রুমে আজব কাণ্ড ঘটালেন তিনি। হঠাৎ কামড়ে দেওয়ার কথা বললো সকলের প্রিয় মিঠাই। মিঠাইয়ের মেকআপ রুম মানে দারুণ মজা হাসি ঠাট্টা। দুর্গাপুজো কাটিয়ে সোমবার সকালে আবার ফিরেছেন নিজেদের কাজে। স্টুডিও পাড়া আবারো সেই চেনা লাইট-ক্যামেরা-অ্যাকশন এর শব্দ বেজে উঠলো। সকলেই জানেন, বেশিরভাগ সময় একই মেকআপ রুমে থাকেন পর্দার নন্দা, মিঠাই এবং তোর্সা। দারুন মজার সব মুহূর্ত মাঝেমধ্যেই ক্যামেরাবন্দিও করেন এই তিন সখী।

ঠিক এমনই একটি মুহূর্ত গতকাল ক্যামেরাবন্দী করলেন সকলের প্রিয় নন্দা তথা অভিনেত্রী কৌশাম্বী। আর সেই ভিডিও মিঠাইয়ের ফ্যানপেজে প্রকাশ্যে এল। যেখানে দেখা যাচ্ছে মিঠাইয়ের মেকআপ চলছে আর মেকআপ করতে ব্যস্ত সৌমিতৃষা। হেয়ার ড্রেসার অভিনেত্রীর চুল সেট করছে। আর নিজের মনে দাঁত বার করে নানারকম অঙ্গভঙ্গি করছে সৌমিতৃষা। ক্যামেরার ওপার থেকে কৌশাম্বী প্রশ্ন করেন,’কী করবি তুই দাঁত দিয়ে?’ মিঠাই তখন জবাব দেয়- ‘রেগে গেলেই আমি কামড়ে দেব কিন্তু’। সত্যি সত্যি অভিনেত্রী কামড়ায়নি। পুরোটাই কৌশাম্বীকে মজা করে এই কথা বললেন অভিনেত্রী। মিঠাই-এর ফ্যান পেজগুলোর দৌলতে এখন সৌমিতৃষার এই কাণ্ড রীতিমতো ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়াতে। মিঠাইয়ের এরুপ কান্ড দেখে সকলেই মজা পেয়েছেন।

Related Articles

Back to top button