টেক বার্তা

ভারতে আসবে হণ্ডা কোম্পানির নতুন ইলেকট্রিক স্কুটার, সস্তা দামে পেয়ে যাবেন এইসব দুর্দান্ত ফিচার

ভারতের বাজারে এই জাপানি অটো মেকার কোম্পানিটি খুব শীঘ্রই তাদের নতুন ইলেকট্রিক স্কুটার নিয়ে আসতে চলেছে

×
Advertisement

ভারত এবং বিশ্বের বড় বড় টু হুইলার নির্মাতা কোম্পানিগুলি ধীরে ধীরে বিদ্যুৎ চালিত স্কুটার এবং বাইক তৈরি করার দিকে অগ্রসর হচ্ছেন। কিন্তু জাপানের তিনটি সবথেকে বড় টু হুইলার জায়ান্ট এই বিদ্যুৎ চালিত যানবাহনের ব্যাপারে ছিল সম্পূর্ণরূপে নীরব। এর মধ্যে সবথেকে বড় কোম্পানি ছিল honda। ভারতের প্রতিটি কোম্পানি ইলেকট্রিক স্কুটার তৈরি করার দিকে অগ্রসর হলেও হন্ডার ইলেকট্রিক স্কুটারের ব্যাপারে এতদিন পর্যন্ত কিছুই জানা যায়নি। তবে এবারে, এই ব্যাপারে নীরবতা ভাঙলেন হোন্ডার চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার। জানা গিয়েছে, খুব শীঘ্রই ভারতে দুটি নতুন ইলেকট্রিক স্কুটার লঞ্চ করবে হোন্ডা। আগামী বছরের মধ্যেই দুটি নতুন ইলেকট্রিক স্কুটার লঞ্চ করতে পারে এই জাপানি অটো মেজরটি। দুটো ইলেকট্রিক স্কুটার একেবারে স্ক্র্যাচ থেকে তৈরি হবে এবং তারা একেবারে নতুন আর্কিটেকচারে সেট হবে বলেই জানিয়েছে হন্ডা।

Advertisements
Advertisement

সূত্রের খবর, হোন্ডা কোম্পানিটি এই ইলেকট্রিক স্কুটার গুলি তৈরি করবে তাদের E প্ল্যাটফর্মের উপর। এই নতুন প্লাটফর্মে কেবলমাত্র এই দুটি নয়, বরং ভবিষ্যতে আরো বেশ কিছু ইলেকট্রিক স্কুটার লঞ্চ করতে পারে honda। এই প্লাটফর্মে বিভিন্ন ড্রাইভ ট্রেন এবং বিভিন্ন বডি টাইপের ইলেক্ট্রিক স্কুটার লঞ্চ করতে পারে হণ্ডা। তবে, এতদিন পর্যন্ত ভারতে এমন ব্যাটারি দিয়ে ইলেকট্রিক স্কুটার তৈরি হতো যেগুলিকে আলাদা করে খোলা যেত। কিন্তু হন্ডা ভারতের প্রথম ফিক্সড ব্যাটারি বিশিষ্ট ইলেকট্রিক স্কুটার লঞ্চ করবে। হোন্ডা কোম্পানির এই ইলেকট্রিক স্কুটারের ব্যাটারি খোলা যাবে না এবং দামের দিক থেকেও হবে অপেক্ষাকৃত অনেকটা বেশি সস্তা। ইতিমধ্যেই এই নতুন ডিজাইনের জন্য একটি পেটেন্ট নিজের নামে করে নিয়েছে হন্ডা কোম্পানিটি। এই ইলেকট্রিক স্কুটারে আপনারা পেয়ে যাবেন একটি হাব মোটর, এবং সাথেই থাকবে এমন ব্যাটারি যা খুব তাড়াতাড়ি চার্জ হয়ে যাবে।

Advertisements

তবে শুধুমাত্র ইলেকট্রিক স্কুটারের ব্যাটারিটাই নয়, অন্যান্য ফিচারের দিক থেকেও ভারতের নামিদামি কোম্পানিগুলোকে টেক্কা দেবে হোন্ডা। এই ইলেকট্রিক স্কুটারের মোটর সম্পূর্ণভাবে তৈরি হবে ভারতে। ফলে জাপানি ব্র্যান্ডের ইলেকট্রিক স্কুটার হলেও, স্কুটারটিকে মেড ইন ইন্ডিয়া বলা যেতে পারে। এর ফলে ভারতে এই ইলেকট্রিক স্কুটারের দাম অন্যান্য দেশের থেকে খানিক সস্তা হবে। এর পাশাপাশি হোন্ডা ভারতে বেশ কিছু ইলেকট্রিক চার্জিং স্টেশন তৈরি করবে বলে জানা যাচ্ছে। সেই সমস্ত চার্জিং স্টেশনে যদি আপনি হন্ডা ইলেকট্রিক স্কুটার নিয়ে চার্জ করতে যান, তাহলে আপনার জন্য থাকবে অগ্রাধিকার। ফলে সবদিক থেকেই হোন্ডা কোম্পানিটি ভারতের ইলেকট্রিক ইকোসিস্টেমকে পাল্টে দেবে বলে মনে করা হচ্ছে। এখন অপেক্ষা শুধুমাত্র আগামী বছরের জন্য, যে কবে এই নতুন ইলেকট্রিক স্কুটারকে বাজারে নিয়ে আসে হণ্ডা।

Advertisements
Advertisement

Related Articles

Back to top button