ভাইরাল & ভিডিও

Viral: পর্যটকের নৌকার উপর হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ল বিশাল পাহাড়! ক্যামেরাবন্দি ভয়ঙ্কর ভিডিও

শীতের সকাল! সুন্দর মনোরম জলপ্রপাতের নীচে নৌকাবিহারে মেতেছিলেন একদল পর্যটকেরা। হঠাৎ করে পর্যটকেরা প্রকৃতির শোভা উপভোগ করার মাঝে নৌকোর উপর ভেঙে পড়ল পাহাড়ের অংশ। হ্যাঁ অবাক হলেও এটাই সত্যি। আর এরকম অবিশ্বাস্য ঘটনা ঘটেছে ব্রাজিলের ফারনাস হ্রদে। হ্রদ পার্শ্ববর্তী পাহাড়ের একাংশ ভেঙে পড়ে মৃত্যুর বুকে তলিয়ে গেলেন প্রায় ৫ জন পর্যটক! এই ঘটনার পর নিখোঁজ হয়েছে কুড়ি জনের বেশি পর্যটক।

শনিবার ব্রাজিলের সাল মিনাস জলপ্রপাতের নীচে হঠাৎ করে এই দুর্যোগ ঘটে বলে জানা গিয়েছে। ব্রাজিলের মিনাস জেরেইস প্রদেশের জনপ্রিয় পর্যটনস্থল ক্যাপিটালিও গিরিখাতের মধ্যে অন্যতম। প্রতি বছরে এই শীতের মরশুমে বহু পর্যটকের ঢল আসেন এখানে। আর সেখানেই সাল মিনাস জলপ্রপাতের নীচের ফারনাস হ্রদে মোটরবোট নিয়ে নৌকাসফর করেন হাজারো পর্যটকেরা। তবে এই দিন ঘটে গেল এই অবিশ্বাস্য ঘটনাটি।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হওয়া সেই ভিডিয়োতে দেখা গিয়েছে শনিবার সকাল থেকেই ওই জলপ্রপাতে নিজের মতো করে ঘুরে বেড়াচ্ছিলেন পর্যটকেরা। হঠাৎ করেই পাথরের একটি বড় স্তম্ভাকৃতি চাঙড় পাথুরে দেওয়াল থেকে ভেঙে আসে দু’টি নৌকার উপর। অত বড় পাথরের দেওয়াল হ্রদের ওপর আসতেই সকলে ভয় পেয়ে যান। পাহাড়ের একাংশ ভেঙে পড়ে নৌকার উপর প্রবল বেগে পর্যটকদের ওপর পড়ে। আর ওই দুই নৌকো থেকে পড়ে নিখোঁজ হয়ে গিয়েছেন প্রায় অনেকে। অনেকের এখনো পর্যন্ত কোনও খোঁজ মেলেনি। অন্য বেশ কয়েকজনের অবশ্য খোঁজ পাওয়া গিয়েছে। অনেকে আহত হয়েছেন। কিন্তু ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে মোট ৭ জনের।

স্থানীয় প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রশাসন সূত্রে খবর পাওয়া গিয়েছে মোট ৩২ জন পর্যটককে গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন করা হয়েছে। এক ব্যক্তির মস্তিষ্কে এবং মুখে গুরুতর চোট পেয়েছেন। ইতিমধ্যে সেই পর্যটকের অবস্থা বেশ আশঙ্কাজনক। ব্রাজিলের নৌবাহিনীর তরফ থেকে বলা হয়েছে, এই ঘটনার কারণ জানতে ইতিমধ্যে তদন্তকারী একটি দল গঠন করা হয়েছে। তবে প্রাথমিক ভাবে মনে করিয়ে দেওয়া হচ্ছে, বিগত কয়েকদিন ধরে ওই এলাকাতে প্রবল বৃষ্টি হয়। আর এই বৃষ্টির কারণে পাহাড়ের গায়ে ফাটল ধরে থাকতে পারে। তবে পুরো ঘটনাটি তদন্ত করে দেখছে ব্রাজিলের প্রশাসন। তবে এই ভিডিও দেখে বহু নেটনাগরিক শোক প্রকাশ করেছেন। তুমুল ভাইরাল হয় এই দিনের এই মর্মান্তিক ঘটনার ভিডিও।

Related Articles

Back to top button