জীবনযাপনসৌন্দর্য

Skin Care Tips: দুধে এক চামচ হলুদ মিশিয়ে লাগান, ত্বক হয়ে উঠবে কারিনা কাপুরের মতো ফর্সা

×
Advertisement

বর্তমানের কর্মব্যস্ত জীবনে প্রতিদিন নিয়ম করে নিজের এবং ত্বকের যত্ন নেওয়া সম্ভব হয় না। তবে সম্ভব না হলেও কিছু কিছু ক্ষেত্রে নিতেই হয়। আর তা নাহলে ত্বক নিজের স্বাভাবিক উজ্জ্বলতা হারিয়ে ফেলে। দেখা দেয় নানা সমস্যা। তবে বর্তমানে নিজের ও ত্বকের যত্ন নিতে সাধারণ মানুষ ব্যবহার করে থাকেন নানা রাসায়নিক দ্রব্য যুক্ত ক্রিম ও ফেসপ্যাক। সেগুলি যে বিভিন্নভাবে ত্বকের স্বাভাবিকতাকে নিজেদের অজান্তেই নষ্ট করে দেয়, তা আর আলাদাভাবে বলার অপেক্ষা রাখে না। তবে ঘরোয়াভাবেও ত্বকের স্বাভাবিক উজ্জ্বলতা বজায় রাখা সম্ভব। ত্বকের যত্ন নিতে সেই পুরনো আমল থেকেই ব্যবহার করা হয়ে থাকে হলুদ। আর দুধ হলুদের সংমিশ্রণ ত্বককে করে তোলে আরো উজ্জ্বল।

Advertisement

ছেলে-মেয়ে নির্বিশেষে সকলেরই ত্বকের যত্ন নেওয়া উচিৎ। প্রতিটি মানুষের ত্বকের ধরন আলাদা হয়। তবে যেকোনো ধরনের ত্বকের পক্ষে হলুদ কার্যকরী। কারণ হলুদে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি ও অ্যান্টি-মাইক্রোবিয়ালের মতো উপাদান বর্তমান থাকে। অতএব, প্রাচীনকাল থেকেই ত্বকের যত্ন নিতে হলুদ আবশ্যিকভাবে ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

হলুদ ও দুধ একসাথে মিশিয়ে সেই প্রলেপ যদি রাতে শুতে যাওয়ার আগে ফেসপ্যাক হিসাবে লাগানো হয়, তাহলে ত্বক ফিরে পায় তার নিজের স্বাভাবিক রঙ। পাশাপাশি পাওয়া যাবে উজ্জ্বল ও সমস্যাহীন ত্বকও। জানুন বিস্তারিত।

Advertisement

• দুধ ও হলুদদের মিশ্রণে কিভাবে বানাবেন ফেসপ্যাক?

প্রথমে একটি ছোট বাটির অর্ধেক দুধ নিয়ে নিতে হবে। এরপর তাতে মেশাতে হবে এক চা চামচ হলুদ গুঁড়ো। এবার ভালো করে দুধের সাথে মিশিয়ে নিতে হবে হলুদটি। দুধে পুরোপুরি হলুদ মিশেছে কিনা! ত্বকে প্রলেপটি লাগানোর আগে সেটি ভালো করে দেখে নিতে হবে।

• ফেসপ্যাক লাগানোর পদ্ধতি:

১) মিশ্রণটি বানানো হয়ে গেলে সেটি হাত কিংবা সুতির কাপড় দিয়ে যত্ন সহকারে সারা মুখে লাগিয়ে নিতে হবে।

২) মিশ্রণটি মুখে ভালো করে লাগিয়ে শুকানোর জন্য ছেড়ে দিতে হবে। যতক্ষণ না শোকাচ্ছে, ততক্ষণ মুখ ধোয়া যাবেনা।

৩) এরপর প্রলেপটি শুকিয়ে গেলে পরিষ্কার জল দিয়ে ভালো করে মুখ ধুয়ে করে নিতে হবে।

৪) সপ্তাহে দুই থেকে তিনবার এই প্রলেপ যদি ত্বকে প্রয়োগ করা যায় তাহলে, ফিরবে ত্বকের রঙ। পাশাপাশি উজ্জ্বলতাও।

৫) এই পুরো ব্যাপারটাই যদি রাতে শুতে যাওয়ার আগে ত্বকে প্রয়োগ করা হয় তাহলে তা বেশি উপকারী। কারণ ঘুমানোর সময় ত্বকও বিশ্রামে থাকে।

Related Articles

Back to top button