নিউজপলিটিক্সরাজ্য

আবারো ভাঙ্গন তৃণমূলে, বিজেপিতে যোগ দিতে চলেছেন পূর্ব মেদিনীপুরে তৃণমূলের জেলা সহ-সভাপতি

যদিও সহ-সভাপতি রামকৃষ্ণের এই সিদ্ধান্তকে একেবারে গুরুত্ব দিতে নারাজ তৃণমূল কংগ্রেস

Advertisement

শাসক দলে আরো একবার ভাঙ্গন পূর্ব মেদিনীপুরে। এবারে পূর্ব মেদিনীপুরের তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করার কথা ঘোষণা করলেন তৃণমূলের যুব সহ সভাপতি রামকৃষ্ণ দাস (Ramkrishna Das)। এই সিদ্ধান্তে আরো একবার চাপে পড়ল পূর্ব মেদিনীপুর তৃণমূল কংগ্রেস। তার অভিযোগ, দলে তাকে একেবারেই কোন গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে না। শুধু তাই নয় তৃণমূল থেকে আরও কয়েকজন গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্য এবং নেতা শুভেন্দু অধিকারীর হাত ধরে আগামী ২ জানুয়ারি গেরুয়া শিবিরে যোগ দেবেন। মহিষাদলে হতে চলেছে এই সভা।

যদিও তৃণমূলের জেলা সহ-সভাপতি রামকৃষ্ণ দাস এর দলবদল কে তেমন একটা গুরুত্ব দিতে নারাজ তৃণমূল কংগ্রেস। আবার রামকৃষ্ণ দাস এর এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে বিজেপি। তৃণমূলকে তারা আরো একবার তুলনা করেছে ভাঙ্গা নৌকার সঙ্গে। রামকৃষ্ণ দাস বলেছেন,” শুভেন্দু অধিকারীর হাত ধরে তার সাথী হয়ে লড়াই করার ইচ্ছে রয়েছে। এই কারণেই আনুষ্ঠানিকভাবে ২ জানুয়ারি তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করতে চলেছি।”

ইটা মগরা – ২ গ্রাম পঞ্চায়েতের ভারপ্রাপ্ত প্রধান প্রথম থেকেই শুভেন্দু অধিকারী ঘেষা। তার সাম্প্রতিক কালের কিছু কাজ কর্মের জন্য তৃণমূলের তরফে তাকে শোকজ নোটিশ ধরানো হয় কিছুদিন আগেই। যদিও সেই শোকজ নোটিশের কোন উত্তর তার কাছ থেকে পাওয়া যায়নি বলে তৃণমূল সূত্রের খবর। তারপরেই দলবদল এর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করলেন রামকৃষ্ণ। রামকৃষ্ণ এদিন আরও জানিয়েছেন, আগামী ২ জানুয়ারি মহিষাদলের বিজেপি সভায় তার সঙ্গে আরো বেশ কয়েকজন গেরুয়া শিবিরে যোগদান করবেন ঘাসফুল শিবির ছেড়ে।

যদিও তৃণমূল নেতৃত্ব এই ঘটনাকে একেবারেই গুরুত্ব দিচ্ছে না। তৃণমূলের থেকে জানা যাচ্ছে,” রামকৃষ্ণের এই সিদ্ধান্তে তৃণমূল কংগ্রেসের বিশেষ কিছু অসুবিধা হবে না। আমাদের নেত্রী ঘোষণা করে দিয়েছেন, যারা যেতে চান তারা চলে যেতে পারেন। দলে থেকে তলে তলে দলের ক্ষতি করা থেকে দল ছেড়ে চলে যাওয়া অনেক বেশি ভালো।”

Tags

Related Articles

Back to top button