টলিউডবিনোদন

Koel Mallick: অভিনেত্রী কোয়েলের কাছে পুজোর সময় ঘুম মানে একেবারে সময় নষ্ট! রইলো ভিডিও

ঢাকে কাটি পড়ে গিয়েছে। অপেক্ষার অবসান ঘটেছে। একবছর পর আবার মা দুর্গা মর্ত্যে ফিরে এসেছেন। দুর্গাপুজো মানেই বছরের সেরা আনন্দ, বন্ধুদের সাথে হই হুল্লোড়, অনেক আড্ডা, ঘরে ফেরা, আর অনেক অনেক ভুঁড়ি ভোজ । যারা বিদেশে থাকেন এইসময় তারাও দেশে ফেরেন দুর্গোৎসবের জন্য। পুজো মানেই নিজের মায়ের কাছে ফেরা। আজ মহাষষ্ঠী। বাড়ির পুজো নিয়ে অন্যবারের মতো এবারেও ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন অভিনেত্রী কোয়েল মল্লিক।

অবশ্য এবারে পুজোর ব্যস্ততার পাশাপাশি রয়েছে ছেলে কবীরকে নিয়েও আলাদা চিন্তা। এসবের আগে অভিনেত্রী নিজের বৃহত্তর পরিবার অর্থাৎ সকল অনুগামীদের শারদীয়ার শুভেচ্ছা জানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন অভিনেত্রী। কোয়েল প্রথমেই বলেন, ‘পুজো তো এসেই গেল। পুজো আসা মানে আকাশে, বাতাসে হুল্লোড়, মজা আনন্দ…। মা আসছেন বলে কথা। চারিদিকে আলো, সুন্দর প্যান্ডেল, আড্ডা, মজা, ভুরিভোজ…। আড্ডা বলতে মনে পড়ল আমাদের বাড়িতে যেহেতু পুজো হয়, দালানে বসে রাত জেগে আড্ডা। উপোস করে অঞ্জলি, সন্ধ্যারতি দেওয়া। ঘুমনো মানে হচ্ছে টাইম ওয়েস্ট। যেটা আমি আগেও অনেকবার বলেছি। ঘুম তো থাকবেই সারা বছর। কোনও না কোনও সময় হয়েই যাবে। কিন্তু এই চার-পাঁচদিন ঘুম মানেই সময় নষ্ট। সবাই খুব আনন্দ করুন। মন প্রাণ দিয়ে মাকে ডাকুন। শারদীয়ার শুভেচ্ছা এবং ভালবাসা সকলকে।’ পাশাপাশি তিনি এও বলেন, করোনা এখনও যায়নি, সাবধানতা অবলম্বন করেই পুজোর আনন্দে মাততে হবে। মাস্ক পরিধান করাও জরুরি। এছাড়া ছোটদের অনেক অনেক ভালোবাসা আর বড়দের প্রণাম জানিয়েছেন।

গতবছর করোনার বাড়বাড়ন্তে দুর্গা উৎসব খুবই সংক্ষেপে সম্পন্ন হয় মল্লিক পরিবার। এই বছর করোনা থাকলেও ভ্যাক্সিনেশন হয়ে যাওয়ায় ধূমধাম করেই পালিত হচ্ছে দুর্গা মায়ের পুজো। উল্লেখ্য, নিজের ব্যক্তি জীবনের বিভিন্ন ঘটনা ‘কোয়েল কথা’ হ্যাশট্যাগ দিয়ে বিগত কিছুদিন ধরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় সকল অনুগামীদের সাথে শেয়ার করছেন কোয়েল। মল্লিক বাড়ির দুর্গাপুজো অত্যন্ত পুরাতন আর ঐতিহ্যবাহী পুজোর মধ্যে বিখ্যাত পুজো। শহর কলকাতার পাশাপাশি বিদেশ থেকেও অতিথিরা এই পুজো দেখতে আসেন। সে পুজোর স্মৃতিচারণে দিন কয়েক আগে কোয়েল বলেন, ‘পুজো বলতেই মনে পড়ে ভোগ বিতরণ। অভিনেত্রীর ছোড়দি তাঁকে ফ্রকের উপর শাড়ি পরিয়ে দিত। ছোড়দিকে তিনি লিপস্টিক পরিয়ে দিতেন। কোয়েলের মা তাঁকে লিপস্টিক পরতে দিত না। গিন্নি বান্নি হয়ে সেজে পুজো দেখতেন সক্কলে। বয়স্করা নামতে পারতেন না তাই ছোটরা ঘরে ঘরে গিয়ে প্রসাদ দিয়ে আসতো । অনেক ঘর, অনেক সিঁড়ি তাঁদের বাড়িতে।”

আসলে সোশ্যাল মিডিয়া এখন অনুরাগীদের সঙ্গে যোগাযোগের অন্যতম মাধ্যম। তাই সে সুযোগে কোয়েল নিজের নানান আনন্দ ভাগ করে নেন। কবীর এখন কোয়েলের জীবনে প্রথম প্রায়োরিটি। এই মুহূর্তে ছেলেকে সামলে অনেক বেছে বেছে ছবি করছেন। এবছর দুর্গা পুজোত মুক্তি পেয়েছে তাঁর অভিনীত ছবি ‘বনি’। এ ছাড়াও বেশ কিছু নতুন প্রজেক্ট হাতে রয়েছে তাঁর। তার মধ্যে কয়েকটির কাজ শেষ হয়ে গিয়েছে। আর কিছু সিনেমার শ্যুটিং শুরু হবে। আপাতত বাড়িতে ছেলে কবীরকে নিয়ে সময় কাটছে অভিনেত্রীর। সাথে নিজের পরিবারের খেয়াল রাখছেন।

Related Articles

Back to top button