অফবিটভাইরাল & ভিডিও

পুজো দিয়ে বাইরে বেড়িয়ে আসতে কুকুরকে প্রনাম করল এক যুবক, কুকুরটি দিল আশীর্বাদ, ভাইরাল ভিডিও

Advertisement

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে একটি বিশেষ ভিডিও।  ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রথম পোস্ট করেছেন অরুণ লিমাডিয়া (Arun Limadia) নামে এক নেটিজেন। 18 সেকেন্ডের এই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে মহারাষ্ট্রের সিধাটেক-এর সিদ্ধিবিনায়ক মন্দিরের বাইরে বসে আছে একটি ভারতীয় প্রজাতির সারমেয়।   সিদ্ধিবিনায়কের দর্শন করে যেসব দর্শনার্থীরা মন্দিরের বাইরে আসছেন, তাঁদের দিকে নিজের ছোট্ট থাবা বাড়িয়ে দিচ্ছে সারমেয়টি। সারমেয়টির থাবার ছোঁয়া কেউ মাথায় ছোঁয়াচ্ছেন। কেউ আবার হ্যান্ডশেক করছেন তার সাথে। অরুণ লিমাডিয়া এই ভিডিওটি শেয়ার করে ক্যাপশন দিয়ে লিখেছেন, এটাই সত্যিকারের আশীর্বাদ।

ভারতীয় প্রজাতির সারমেয়রা আজও তার নিজভূমেই অবহেলিত। ভারতীয় পুরাণ অনুযায়ী, ইন্দ্রের কাছে দূত হিসাবে গিয়েছিলেন স্বর্গের কুকুরী সরমা। সব কুকুরকেই তাঁর নামানুসারে সারমেয় বলা হয় যার অর্থ সরমার সন্তান। প্রাচীন আন্দামান-নিকোবর দ্বীপপুঞ্জ থেকে মূল ভারতীয়  ভূখন্ডে আবির্ভাব হয়েছিল প্রাচীন কুকুর প্রজাতি ‘পারিয়া’র। সেইসময় ভারত ছিল ব্রিটিশ শাসনাধীন।  ব্রিটিশরা নিজেদের দেশের কুকুরদের ভারতে নিয়ে আসতো তাদের পরিবারের অংশ হিসাবে।  ভারতীয়রা এইসব বিদেশী কুকুরদের নাম দিয়েছিলেন ‘ডালকুত্তা’। কিন্তু ব্রিটিশরা ক্রমশ নিজেদের দেশের কুকুরদের প্রাধান্য দেওয়ার জন্য  ভারতের ‘নেটিভ’ কুকুর পারিয়া কুকুরদের অবহেলা করতে থাকে। একসময় ভারতীয়দের চোখেও তাদের নিজের দেশের কুকুররা ‘নেড়ি’, ‘ঘেয়ো’ হয়ে ওঠে। অথচ ভারতীয় কুকুরদের আইকিউ এবং শারীরিক শক্তি সবচেয়ে বেশি এবং বিজ্ঞানসম্মত ভাবে তা প্রমাণিত। কয়েক বছর আগে ভারতীয় কুকুর ‘আশা’ অ্যালশেসিয়ান ও ল্যাব্রাডর প্রজাতির কুকুরদের হারিয়ে জায়গা করে নিয়েছে কলকাতা পুলিশের ডগ স্কোয়াডে। ভারতীয় সেনাবাহিনীতেও নিয়োগ করা হচ্ছে ভারতীয় কুকুরদের। সেলিব্রিটিরাও ক্রমশ ঝুঁকছেন ভারতীয় পারিয়া কুকুর পোষার ক্ষেত্রে।  কুকুররা কিন্তু নিজেদের মধ্যে প্রভেদ করে না। একজন গোল্ডেন রিট্রিভার দিব্যি মিশে যায় একজন ভারতীয় পারিয়া কুকুরের সাথে। সন্তানহারা ল্যাব্রাডর মা মাতৃহারা ভারতীয় পারিয়া কুকুরছানাদের নিজের দুধ খাইয়ে মাতৃস্নেহে লালন-পালন করে। কিন্তু মানুষ কুকুরদের মধ্যে ভেদাভেদ করে। অধিকাংশ মানুষ বিদেশী ব্রিডের কুকুর পুষতে চান অথচ পাড়ার অবলা সারমেয়টিকে একটু খাবার খেতে দেন না।

অরুণ লিমাডিয়া-র শেয়ার করা এই ভিডিওটি পশুপ্রেমীদের কাছে অত্যন্ত প্রশংসনীয় হয়েছে।  অনেকে বলেছেন, কুকুরটি হয়তো খাবার চাইছে। কিন্তু কারণ যাই হোক না কেন, বাদামি সারমেয়টির বাড়িয়ে দেওয়া ছোট্ট থাবাটি পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ বন্ধুত্বের হাত, বিশ্বস্ততার ছোঁয়ায় ভরা একরাশ নিঃস্বার্থ ভালোবাসা।

Tags

Related Articles

Back to top button