নিউজপলিটিক্সরাজ্য

কালীঘাটে কি ভ্যাকসিন কারখানা আছে? মমতাকে কটাক্ষ দিলিপের

দিলীপ ঘোষের (Dilip Ghosh) এর দাবি, কমবেশি যা হয়েছে অভিযোগ করা উচিত

×
Advertisement

কালীঘাটে কি কোন ভ্যাকসিন কারখানা তৈরি হয়েছে? টিকাকরণ কর্মসূচির প্রথম দিন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) কে নিশানা করে মন্তব্য করলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ ( Dilip Ghosh)। তিনি বলেছেন,” ভ্যাকসিন কমবেশি যা হয়েছে তা নিয়ে অভিযোগ করা উচিত। কেন্দ্রীয় সরকার দায়িত্ব নিয়েছে। তাই হালকা কথা বলা উচিত নয় আপনার।”

Advertisement

কলকাতাতেও কড়া নজরদারিতে শুরু হয়ে গিয়েছে ভ্যাকসিনেশন। করোনা টিকাকরণ কর্মসূচিতে সকলকে ঠিকমতো ভ্যাকসিন দেওয়া হচ্ছে কিনা সেই নিয়ে সকাল থেকে তদারকি করছেন মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় (Alapan Banerjee)। এছাড়াও তার ফোন থেকে জেলা শাসক এবং স্বাস্থ্য কর্মীদের সঙ্গে সরাসরি কথা বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা। মমতা বলেছেন,” প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন রাজ্যের যথেষ্ট পরিমান ভ্যাকসিন পাঠানো হয়েছে। কিন্তু সেই খবরটি ঠিক নয়। এই নিয়ে কোনো সমস্যা হয়েছে তৈরি না হয় সেদিকে নজর রাখতে হবে জেলাশাসকদের। মুখ্যমন্ত্রী দাবি করেছেন,” কেন্দ্রীয় সরকার পরিমাণে কম ভ্যাকসিন পাঠিয়েছে। এদের সবার কুলানো সম্ভব নয়। কেন্দ্রীয় সরকার কম পরিমাণে ভ্যাকসিন পাঠিয়েছে, তাই রাজ্যের সব নাগরিককে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেওয়ার ব্যবস্থা করবে রাজ্য সরকার নিজে।”

আর এই মন্তব্যের পর সুর চড়িয়েছেন দিলীপ ঘোষ। দিলীপ ঘোষের কটাক্ষ,” চিকিৎসক, স্বাস্থ্য কর্মী এবং পুলিশকর্মীদের আগে টিকা দেওয়া হবে। কারণ এরা হাই রিস্ক জোনেই কাজ করেন। কিন্তু বাংলায় তৃণমূল বিধায়ক টিকা নিয়েছেন। এই কারণে ভ্যাকসিন এর পরিমাণ কম পড়েছে।” উল্লেখ্য, এদিন সকাল থেকে কলকাতাসহ রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে সাধারণ মানুষকে টিকা দেওয়া শুরু করা হয়। এই তালিকায় শাসকদলের জনপ্রতিনিধিরাও ছিলেন। ভ্যাকসিন নিয়েছেন তৃণমূলের ২ বিধায়ক এবং একজন প্রাক্তন বিধায়ক। টিকাকরণের তালিকায় নাম ছিল শাসক দলের আরেক বিধায়ক সৌরভ চক্রবর্তীর। তবে বিতরকের মুখে তিনি শেষ পর্যন্ত ভ্যাকসিন গ্রহণ করেননি।

Advertisement

অন্যদিকে রাজ্যবাসীকে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করে জেলার অধিকর্তা এবং স্বাস্থ্য কর্তাদের চিঠি পাঠিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। চিঠিতে লিখেছিলেন তিনি,” আমি অত্যন্ত আনন্দের সঙ্গে জানাচ্ছি আমাদের সরকার রাজ্যের সমস্ত মানুষের কাছে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন পৌঁছে দিতে চলেছে।” তবে এই মন্তব্য কে ঘিরে রাজ্য সরকারকে কটাক্ষ করতে ছাড়েনি কোন রাজনৈতিক দল। এমনকি রাজ্য সরকারকে তারা ভ্যাকসিন চোর হিসেবেও মন্তব্য করে।

Related Articles

Back to top button