×
টলিউডবিনোদন

দেবের ‘টনিক’ টেক্কা দিচ্ছে আল্লু অর্জুনের ‘পুষ্পা’-কে, বেজায় খুশি দেবভক্তরা

গত রবিবার নন্দনে উপস্থিত থেকে দর্শকদের ধন্যবাদ জানান দেব

Advertisement

গোটা দেশ এখন পুষ্পা ক্রেজে মত্ত। ডিসেম্বর মাসের ১৭ তারিখে মুক্তি পেয়েছিল আল্লু অর্জুনের ছবি ‘পুষ্পা: দ্য রাইজিং স্টার’। দক্ষিণী সিনেমাটি ইতিমধ্যেই বক্সঅফিসে ৪০০ কোটির ব্যবসা করে ভারতের সর্বোচ্চ মুনাফাকারী সিনেমা হয়ে উঠেছে। এই চূড়ান্ত হিট সিনেমা দেশজুড়ে মোট ৫ টি ভাষা অর্থাৎ হিন্দি, তামিল, তেলেগু, কন্নড় ও মালায়ালামে মুক্তি পেয়েছে। সিনেমাটির বেশ কিছু অ্যাকশন সিকোয়েন্স এবং গানের স্টেপ সুপার ট্রেন্ডিং হয়ে উঠেছে। এছাড়া আল্লু অর্জুন এবং রশ্মিকা মান্দানার কেমিস্ট্রি ছিল দেখার মতো। তবে আপনি কি জানেন এই সিনেমার সাথে তাল মেলাচ্ছে টলিউড সুপারস্টার দেবের ছবি টনিক।

Advertisement

করোনা পরবর্তী নিউ নরমালে মুক্তি পেয়েছিল দেব এবং পরান বন্দ্যোপাধ্যায় জুটির টনিক। টনিকের ডোজে রীতিমতো বিভোর বাঙালি দর্শক। এই সিনেমাটি বাঙ্গালীদের এতটাই ভাল লেগেছে যে একাধিক মাল্টিপ্লেক্স হলে চাহিদা দেখে শো বাড়ানো হয়েছিল। দেবের ভক্তদের দাবি, “পুষ্পা ছবির থেকেও পশ্চিমবঙ্গের মানুষ বেশি প্রাধান্য দিচ্ছে দেবের ছবি টনিককে। বাংলার অন্যতম সেরা সিনেমার শিরোপা পেতে চলেছে এই টনিক।”

ডিসেম্বর মাসের শেষ সপ্তাহে রিলিজ করেছিল টনিক সিনেমাটি। এখনও অব্দি বেশিরভাগ শো হাউসফুল চলছে। দেব এবং পরান বন্দ্যোপাধ্যায় অসাধারণ অভিনয় মন জয় করে নিয়েছে আপামর বঙ্গবাসীর। গত রবিবার পর্যন্ত বাংলার সিনেমার হলে হাউসফুল ছিল টনিক শোতে।করোনা পরিস্থিতিতে হাই বাজেট ফিল্ম পুষ্পাকে টেক্কা দিয়ে বক্সঅফিসে কোটি কোটি টাকার ব্যবসা করে টনিক প্রমাণ করে দিয়েছে তার জনপ্রিয়তা। সিনেমার সাফল্যে রীতিমতো আপ্লুত পুরো টনিক টিম।

Advertisement

গত রবিবার দর্শকদের ধন্যবাদ জানাতে নন্দনে উপস্থিত হয়েছিলেন অভিনেতা দেব। দর্শকদের প্রতিঃ তিনি অনেক আগেই ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছিলেন। করোনার মধ্যে হলেও দর্শকদের হলমুখী করতে পেরেছে এই টনিক। যেখানে অন্য রাজ্যে পুষ্পার জয়জয়কার চলছে সেখানে বাংলায় বলিউডকে কোণঠাসা করে জনপ্রিয়তার শিখরে পৌঁছেছে টনিক।

Related Articles

Back to top button