টলিউডপলিটিক্সবিনোদন

বিয়ে-সন্তান নিয়ে বিতর্কের কারণে কি সাংসদ নুসরতকে উপ নির্বাচনের প্রচার তালিকা থেকে বাদ দিল তৃণমূল!



ফের ভোটের দামামা বেজে গিয়েছে। চলতি মাসের মাস শেষেই রাজ্যের তিন কেন্দ্রে পুনঃনির্বাচন। ৩০ সেপ্টেম্বর ভবানীপুরে উপনির্বাচন। ভোট হবে মুর্শিদাবাদের সামশেরগঞ্জ এবং জঙ্গিপুরে। এদিকে ভবানীপুরের তৃণমূলের প্রার্থী হচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে অন্যান্য দলের প্রার্থীদের নাম এখনও ঘোষণা হয়নি। এদিকে সবুজ শিবিরের প্রচার শুরু করে ফেলেছে তৃণমূল।

ভোটের দিন ঘোষণা হতেই গোটা এলাকা ঢেকে গিয়েছে ‘ঘরের মেয়ে ভবানীপুরে’র স্লোগানে। গোটা এলাকা ছেয়ে গিয়েছে পোস্টার-ব্যানারে ভবানীপুরের উপ নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রচারে নামছেন মুখ্যমন্ত্রী স্বয়ং। বুধবার তাঁর প্রথম কর্মিসভা। শীঘ্রই এই নির্বাচনের আগেই ভোটের প্রচার শুরু হবে।অন্যদিকে সোমবারই প্রকাশিত হল সবুজ শিবিরের প্রচারকের নতুন তালিকা।

তবে এই তালিকা থেকে বাদ পড়লেন অভিনেত্রী তথা বসিরহাটের সাংসদ নুসরত জাহান। রয়েছেন ২০ জন নেতা-নেত্রী। তবে রাজ্যের বাইরের অন্য কোনও দলের নেতা-নেত্রীর নাম নেই এই প্রচার তালিকায়। এই তালিকায় প্রথমেই রয়েছেন খোদ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, সুব্রত বক্সি, পার্থ চট্টোপাধ্যায়, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, সৌগত রায়, ফিরহাদ হাকিম, অরূপ বিশ্বাস, চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য, কুণাল ঘোষ, সুখেন্দুশেখর রায়, মনোজ তিওয়ারি, শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়রা। আর তারকাদের মধ্যে থাকছেন রুপোলি পর্দার সায়নী ঘোষ, জুন মালিয়া, দেব, মিমি চক্রবর্তী, শতাব্দী রায়, রাজ চক্রবর্তীরা। 

প্রশ্ন হল কেন এই লিস্টে নাম নেই সাংসদ নুসরত জাহানের? দিন কয়েক আগেই প্রথমবার মা হয়েছেন তিনি। সদ‍্যোজাত ছেলে ঈশানকে নিয়েই সময় কাটছে তাঁর। এপ্রিল মাসে বিধানসভা ভোটের সময়ে অন্তঃসত্ত্বা থাকাকালীন ভোটের প্রচার সামলেছেন অভিনেত্রী। তবে এই সময় তিনি সদ্য সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। তাই তাঁর পক্ষের দলের হয়ে বাইরে বাইরে প্রচার করা এক্কেবারে সম্ভব নয়৷

তবে নুসরতের এইভাবে নাম বাদ পড়াকে অনেকে বাঁকা চোখে দেখছেন। নুসরতকে এইভাবে তালিকা থেকে বাদ দেওয়া নিয়ে নীতি পুলিশের নানা মত। কারোর মতে, সদ‍্যোজাত সন্তান সামলে নুসরতের পক্ষে সম্ভব নয় এখন দলের হয়ে প্রচারে নামা। তাই আগে থেকেই তৃণমূলের তরফে বাদ রাখা হয়েছে তাঁর নাম। আবার অনেকের বক্তব‍্য, বিজেপির যশ দাশগুপ্তের সঙ্গে সম্পর্ক আর নিখিল জৈনের সঙ্গে বিয়ে অস্বীকার, প্রথম বিয়েকে লিভ ইন নাম দেওয়া, পিতৃপরিচয় বাদ দিয়ে সন্তান জন্ম এই সব নিয়ে বেশ বিতর্কের মধ্যে রয়েছেন নুসরত। তাই এইসন ঝামেলা এড়াতেই অভিনেত্রীর নাম বাদ দিয়েছে দল। তবে নুসরতের পুত্র জন্ম দিতেই মুখ্যমন্ত্রী প্রকাশ্যে প্রেস কনফারেন্সে শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন।

Related Articles

Back to top button