দেশনিউজ

রামবিলাস পুত্র গর্জালেন, কিন্তু বর্ষালেন না

Advertisement

পাটনা: বিহারের গোটা ভোট মরশুমে গর্জালেন কিন্তু বর্ষালেন একদম সামান্য। কথা হচ্ছে সদ্য প্রয়াত রামবিলাস পাসোয়ানের ছেলে চিরাগ পাসোওয়ানকে নিয়ে। এ যাত্রায় বিহারে কোনওক্রমে সরকার বাঁচিয়ে ফেলেছেন নীতীশ কুমার। হাড্ডাহাড্ডি লড়াই দিয়েও শেষ রক্ষা করতে পারলেন না তেজস্বী যাদব। ফলে ফের একবার সরকার গড়তে চলেছেন নীতিশ কুমার। এরপর একক বৃহত্তম দল হিসেবে উঠে এসেছে তেজস্বী যাদবের নেতৃত্বাধীন আরজেডি। কিন্তু গোটা ভোট জুড়ে সবচেয়ে বেশি গর্জে উঠেছিলেন এলজেপি নেতা চিরাগ পাসোওয়ান। কিন্তু ভোটের লাফল যা হয়েছে, তাতে বেশি বর্ষাতে দেখা গেলো না তাকে। মাত্র একটি ভোট পেয়ে সান্তনা পেতে হয়েছে রামবিলাস পুত্রকে।

বিহারে ভোটের চাকা সবে তখন গড়িয়েছে। রামবিলাস পাসোয়ান অসুস্থ হতেই স্টিয়ারিংয়ে বসেন চিরাগ। চিরাগ আসার পর থেকেই একের পর এক বোমা ফাটিয়েছেন। বাবাকে অসম্মান করেছেন নীতীশ কুমার, এই অভিযোগে নীতীশ বিরোধিতা শুরু করেন তিনি। জে পি নড্ডাকে চিঠি দিয়ে তিনি জানান, এনডিএ ছাড়ার কার্যকারণ। তারপর থেকেই নানা তত্ত্ব চিরাগ সামনে আনতে থাকেন। দুর্নীতি অস্ত্রে বিঁধতে থাকেন নীতীশের দলকে। জনসভায় বলেন, পট পরিবর্তন হলে নীতীশকে জেলে পাঠাবেন দু্র্নীতির কারণে।

কিন্তু এত গর্জে লাভটা কি হল? জেডিইউকে টেক্কা দেওয়া তো দূরে থাক, বিহারে গত বেশ কয়েক বছর ধরে নিশ্চিহ্ন হয়ে যাওয়া বামেরা যেখানে ভাল ফল করেছে, সেখানে এলজেপিকে কার্যত খুঁজেই পাওয়া যায়নি। তাই চিরাগের সঙ্গে সেইসব মেঘের তুলনা করা হয়েছে, যা গর্জায় কিন্তু বর্ষায় না।

Tags

Related Articles

Back to top button