ভাইরাল & ভিডিও

VIRAL: ৩ চিতা বাঘকে জড়িয়ে ঘুমালেন এই ভদ্রলোক, দুঃসাহসিক কাণ্ড তুমুল ভাইরাল

×
Advertisement

২০১৯’এর একটি ভিডিও কয়েকদিন ধরেই ক্রমাগত নেটমাধ্যমে ঘুরে বেড়াচ্ছে, যা দেখে রীতিমতো আঁতকে উঠেছেন বহুমানুষ। ভাইরাল হওয়া ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে এক ভদ্রলোক তিনটি চিতাবাঘকে একসাথে নিয়ে শুয়ে রয়েছেন। তারা যে ঐ লোকটির কাছে বেশ নিরাপদে রয়েছে, তা দেখেই বোঝা যাচ্ছে। ভিডিওটি সাউথ আফ্রিকার। ভিডিওটিতে যে ভদ্রলোককে দেখা যাচ্ছে তার নাম ভোল্ক ভলকার। ‘দ্যা চিতা ব্রিদিং সেন্টার’এ তিনি ভলেন্টিয়ার হিসেবে তাদের সাথে ছিলেন বিশেষ অনুমতি নিয়ে।

Advertisement

চিতাবাঘের হাবভাব পর্যবেক্ষণ করার জন্যই এই দুঃসাহসিক কাজ করেছেন তিনি। এই ভদ্রলোক একজন পশু আইনজ্ঞ। তার পড়াশোনা জুওলজি নিয়ে। পশুদের সাথে সময় কাটাতে পছন্দ করেন তিনি। কোন একটি নির্দিষ্ট প্রাণীর সাথে থেকে তাদের হাবভাব পর্যবেক্ষণ করা পছন্দ তার। সেই ইচ্ছা থেকেই এমন দুঃসাহসিক কাণ্ড ঘটিয়েছিলেন তিনি।

Advertisement

সাউথ আফ্রিকার একটি চিতা প্রজনন কেন্দ্র চিতাবাঘকে নিয়ে এক্সপেরিমেন্ট করছিলেন। অর্থাৎ তারা বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষার মাধ্যমে চিতাবাঘকে আরো ভালোভাবে জানতে চাইছিল। আর তার জন্যই এই লোকটি বিশেষ অনুমতি পেয়েছিলেন কয়েকটা রাত সেইসমস্ত চিতাবাঘদের সাথে কাটানোর। আর সেই রাত কাটানোর কিছুটা মুহূর্ত ভাইরাল নেটদুনিয়ায়।

উল্লেখ্য এই তিনটি চিতাবাঘ সাউথ আফ্রিকার একটি চিতা প্রজনন কেন্দ্রে জন্মেছিল। যখন কোনো চিতাবাঘ মা হতে চলে তখন তারা খুব সাবধানে ও সংযতভাবে থাকে। তখন তাদের সাথে সময় কাটানো নিরাপদ। আর সেই সময়টাতেই কয়েক রাতের জন্য এই ভদ্রলোক তাদের সাথে রাত কাটানোর এবং তাদেরকে আরো ভালোভাবে জানার সুযোগ পেয়েছিলেন।

ভবিষ্যতে এই চিতাবাঘগুলিকে নিরাপদ জঙ্গলে ছেড়ে দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে তাদের। এই তিন চিতাবাঘের সাথে রাত কাটানোর অনেক আগে থেকেই তাদের সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে তুলেছিলেন তিনি তা স্পষ্ট।

Related Articles

Back to top button