×
Today Trending Newsকলকাতানিউজরাজ্য

Narad Case: নারদ মামলা সরছে অন্য রাজ্যে? আজ শুনানি উচ্চ আদালতে

নারদ মামলা গুয়াহাটি অথবা ভুবনেশ্বরে সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার আবেদন করেছে সিবিআই

Advertisement

নারদ মামলা কি সরে যাবে অন্য রাজ্যে নাকি চলবে কলকাতা হাইকোর্টেই? এই বিষয় নিয়ে নিজেদের মন্তব্য জানাতে আজকে শুনানি হওয়ার কথা কলকাতা হাইকোর্টে। এই শুনানিতে নারদ মামলার সম্পূর্ণ গতি প্রকৃতি এবং ভবিষ্যৎ নিয়ে সমস্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে কলকাতা হাইকোর্ট। হাইকোর্ট জানিয়েছে, আজকেও নারদ মামলার শুনানির জন্য তৈরি করা পাঁচ বিচারপতির বৃহত্তর ডিভিশন বেঞ্চ সিবিআই এবং রাজ্যের সমস্ত আবেদন খতিয়ে দেখে তারপরেই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে। আজকেই ফয়সালা হয়ে যাবে, সিবিআইয়ের নিরাপত্তার কারণ দেখিয়ে মামলা সরানোর আর্জি কতটা গ্রহণযোগ্য আর কতটা গ্রহণযোগ্য নয়।

Advertisement

বেলা ১১টা থেকে কলকাতা হাইকোর্টে নারদ মামলার শুনানি হওয়ার কথা। সিবিআইয়ের হয়ে থাকবেন সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহেতা এবং অভিযুক্তদের হয়ে থাকবেন কংগ্রেস সাংসদ তথা আইনজীবী অভিষেক মনু সিংভি। অন্তর্বর্তীকালীন জামিন পাওয়ার পরে বর্তমানে মুক্ত ফিরহাদ হাকিম, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, মদন মিত্র এবং শোভন চট্টোপাধ্যায়। হাইকোর্টের পাঁচ বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ গত শুক্রবার তাদের অন্তর্বর্তীকালীন জামিন মঞ্জুর করেছে। তার সঙ্গে দেওয়া হয়েছে বেশ কিছু শর্ত।

ব্যক্তিগত ২ লক্ষ টাকার বন্ড, এবং বিচারাধীন মামলা নিয়ে প্রকাশ্যে মুখ না খোলা এবং কোন তথ্য প্রমাণ এর উপরে হস্তক্ষেপ না করার আদেশ দেওয়া হয়েছে ওই চার হেভিওয়েট নেতামন্ত্রীকে। জামিন মামলার নিষ্পত্তি হয়ে গেলেও এখনো পর্যন্ত সিবিআই এর কাছে আরও একটি অস্ত্র রয়েছে। সিবিআই দাবি করেছে, যেহেতু এরা চারজন অত্যন্ত প্রভাবশালী ব্যক্তি তাই এদের মামলা অন্যরাজ্যে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া উচিত, যাতে তারা নিজেদের প্রভাব না খাটাতে পারেন। বেলা ১১টা থেকে এই মামলার বিচার শুরু করবেন হাইকোর্টের ৫ বিচারপতি।

Advertisement

বিচারপতির বেঞ্চে থাকছেন ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি রাজেশ বিনদাল, বিচারপতি ইন্দ্রপ্রসন্ন মুখোপাধ্যায়, বিচারপতি হরিশ ট্যান্ডন, বিচারপতি অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায় এবং বিচারপতি সৌমেন সেন। এই ৫ জনের বেঞ্চেই অন্তর্বর্তীকালীন জামিন দেওয়া হয়েছিল এই চারজনকে। এবারেও কি সিবিআই এর যুক্তি খারিজ করবেন এই পাঁচ বিচারপতি?

প্রসঙ্গত, যেদিন সিবিআই এই চারজন নেতা মন্ত্রীকে গ্রেপ্তার করেছিল সেদিন নিজাম প্যালেসের বাইরে এই চারজনের সমর্থকরা বিক্ষোভ সমাবেশ করেছিলেন। তার সঙ্গেই নিজাম প্যালেসে অবস্থান বিক্ষোভ করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নিজাম প্যালেসের বাইরে এতটা ভিড় জমে যায় যে শেষে বাহিনী নামিয়ে এই ভিড় কন্ট্রোল করা হয়। পাশাপাশি সিবিআই আধিকারিকদের হুমকিও দেওয়া হয় বলে খবর। এই সমস্ত বিষয়ের কথা মাথায় রেখেই নারদ মামলাকে ভিন রাজ্যে সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা গ্রহণ করছে সিবিআই। সেক্ষেত্রে সিবিআই জানিয়েছে, ভুবনেশ্বর অথবা গুয়াহাটিতে এই মামলা স্থানান্তর করতে চায় তারা। আজকের শুনানিতে এই বিষয়টি নিয়ে নিজেদের দাবি দাওয়া পেশ করবেন দুই পক্ষ।

Related Articles

Back to top button