দেশনিউজ

উত্তরপ্রদেশ পঞ্চায়েত নির্বাচনে গেরুয়া ঝড়, ধারে কাছে নেই অখিলেশের সমাজবাদী পার্টি

নির্বাচনের প্রস্তুতিতে নতুন খুশি বিজেপি হাইকমান্ড



উত্তর প্রদেশ বিধানসভা নির্বাচনের আগে রীতিমত গেরুয়া ঝড় বয়ে গেল সারা উত্তরপ্রদেশ দিয়ে। আজকেই ফলপ্রকাশ হলো উত্তর প্রদেশের পঞ্চায়েত নির্বাচনের। তারপরও প্রকাশ হতেই চক্ষুচড়কগাছ বিরোধীদের। এবারের পঞ্চায়েত নির্বাচনে ৭৫টি আসনের মধ্যে বিজেপির ঝুলিতে গেছে ৬৭টি আসন। মাত্র ৬ আসন নিয়ে থেমে গেছে অখিলেশ যাদবের সমাজবাদী পার্টি। বাকি ২টি আসন পেয়েছে নির্দলীয়রা।

বিধানসভা নির্বাচনের আগে এরকম একটি নির্বাচনে এত বড় ব্যবধানে বিজেপির জয় কার্যত ভারতীয় জনতা পার্টির কাছে একটি পজিটিভ অনুঘটক এর মত কাজ করছে। আর এক বছরের মধ্যেই উত্তরপ্রদেশের বিধানসভা নির্বাচন। তবে তার আগে এই নির্বাচন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ছিল ভারতীয় জনতা পার্টির কাছে। এই নির্বাচনে জয়লাভ করা মানে বিধানসভা নির্বাচনের দিকে এক পা এগিয়ে যাওয়া। আর এবারের সেটাই হলো ভারতীয় জনতা পার্টির সঙ্গে।

তবে, এই জয়লাভ কে খুব একটা গুরুত্ব দিতে নারাজ রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। তারা বরং জানাচ্ছেন, ২০১৬ সালে উত্তরপ্রদেশে বিজেপি কিছুটা থমকে গিয়েছিল, সেই সময় হয়েছিল এই পঞ্চায়েত নির্বাচন। সেখানে সমাজবাদী পার্টি জয়লাভ করেছিল। অনেকগুলি আসনে নাকি প্রার্থী দিতে পারেনি বিজেপি। কিন্তু তবুও ২০১৭ বিধানসভা নির্বাচনে, বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতায় এসেছিল যোগী আদিত্যনাথের বিজেপি।

দিনকয়েক অনুষ্ঠিত হয়ে গেল রাজ্যের ত্রিস্তরীয় পঞ্চায়েত ভোট। সেই ভোটে একে অপরের বিরোধী দুটি দল ৯০০ এর কিছু বেশি আসন দখল করে। ৩০৫০ আসনের মধ্যে দুজনেই বেশ ভালো যোগাযোগ রেখে। তবে উত্তরপ্রদেশের প্রয়াগরাজ সহ বেশ কিছু জায়গায় বিরুদ্ধে ছাপ্পা ভোট দেওয়ার অভিযোগ ওঠে। এই প্রসঙ্গে বিজেপি নেতা বলেছেন, ২০২২ সালে বিধানসভা নির্বাচনে জয়লাভের দিকে এটি একটি বড় পদক্ষেপ।

Related Articles

Back to top button