নিউজপলিটিক্সরাজ্য

তৃণমূল বিধায়ককে “গ্যাঁড়া বামন” বলে কটাক্ষ বিজেপি সাংসদ সুনীল মন্ডলের, রাজনৈতিক তরজা তুঙ্গে

কাটোয়ায় পরিবর্তন যাত্রায় উপস্থিত থেকে বিজেপি সাংসদ সুনীল মণ্ডল তৃণমূল বিধায়ক রবীন্দ্রনাথ চট্টোপাধ্যায়কে কটাক্ষ করেছেন

×
Advertisement

বিধানসভা নির্বাচন শিয়রে। এই মুহূর্তে রাজ্যের সমস্ত রাজনৈতিক দল পূর্ণ উদ্যমে ভোট প্রচারের উদ্দেশ্যে মাঠে নেমে পড়েছে। তেমনি বিজেপি শুরু করে নিয়েছে তাদের পরিবর্তন যাত্রা। কিন্তু প্রচারের মাঝে এক দলের নেতা অন্য দলের নেতাকে কটাক্ষ করতে ছাড়েনি। তবে এবার কটাক্ষ করতে গিয়ে শালীনতার সীমা অতিক্রম করলেন বিজেপি সাংসদ সুনীল মণ্ডল। তিনি কাটোয়ার পরিবর্তন যাত্রা কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করে তৃণমূল বিধায়ক রবীন্দ্রনাথ চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে কুকথা বর্ষণ করেছেন। আর তার জেরে বঙ্গ রাজনীতিতে ফের রাজনৈতিক দ্বন্দ্ব চরমে উঠেছে।

Advertisement

আজ অর্থাৎ রবিবার কাটোয়া শহরের পরিবর্তন যাত্রায় অংশগ্রহণ করেছিলেন বিজেপি নেতা সুনীল মণ্ডল। তিনি তারপর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে রবীন্দ্রনাথ চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে নজিরবিহীনভাবে আক্রমণ করেন। শালীনতার সমস্ত সীমা অতিক্রম করে তিনি কটাক্ষ করে বলেছেন, “এই রথ যাত্রার মধ্য দিয়ে তৃণমূলের দুর্নীতি তোলাবাজি ও গ্যাঁড়া বামুন রবি চ্যাটার্জির কুকীর্তি আমরা প্রচার করতে চাই। তৃণমূলের নেতারা যে দুর্নীতি করেছে সেই সমস্ত টাকা আদায় করে আমরা এলাকার উন্নয়নের কাজে লাগাবো।”

রবীন্দ্রনাথ চট্টোপাধ্যায় সুনিল মন্ডলের কটাক্ষের পাল্টা জবাব দিয়ে বলেছেন, ‘আমি গরিব ব্রাহ্মণ। বিজেপি আমাকে গ্যাঁড়া বামুন বলবে এটাই স্বাভাবিক। ওদের সংস্কৃতি এরকমই।’ এছাড়াও এদিন রবীন্দ্রনাথ চট্টোপাধ্যায় সুনীল মণ্ডল এর বিরুদ্ধে কটাক্ষ করে বলেছেন, “সুনীল মণ্ডল নিজে একজন দুর্নীতিগ্রস্ত মানুষ। ও অনেক দুর্নীতি করেছে। আমাদের দলে থাকার সময় ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে দলের শীর্ষ নেতৃত্বের জানানো হয়েছিল। আর তখনই ও দল ছেড়ে চলে যায়। ও বুঝে গিয়েছিল দুর্নীতির প্রমাণ হয়ে গেলে হাতকড়া পড়ে যাবে। তাই ভয় পেয়ে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করেছে।”

Advertisement

Related Articles

Back to top button