পলিটিক্সনিউজরাজ্য

বিজেপি যুব মোর্চার নেতার বাড়িতে বোমাবাজির অভিযোগ, সুকান্ত মজুমদার ঘুরে যাওয়ার পরেই হল হামলা

কাঁচরাপাড়ায় বিজেপি যুব মোর্চার নেতার বাড়িতে বোমাবাজির অভিযোগ উঠেছে তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে

×
Advertisement

সুকান্ত মজুমদার ঘুরে যাওয়ার পরেই কাঁচরাপাড়ায় বিজেপি যুব মোর্চার নেতার বাড়িতে বোমাবাজির অভিযোগ উঠল শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে। গতকাল দুপুরে নদিয়া থেকে ফেরার পথে বিজেপির ব্যারাকপুর সাংগঠনিক জেলার যুব মোর্চা সভাপতি বিমলেশ তিওয়ারির কাঁচরাপাড়ার বাড়িতে গিয়েছিলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। ঠিক তার কয়েক ঘণ্টা পরেই রাত্রে বিজেপি যুব মোর্চার বাড়ি লক্ষ্য করে বোমাবাজি করা হয়। বিজেপির অভিযোগ, তৃণমূল কংগ্রেস এই হামলা চালিয়েছে। তবে শাসক দলের তরফ থেকে এখনো পর্যন্ত কোনো প্রতিক্রিয়া মেলেনি এই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে।

Advertisements
Advertisement

এদিকে বাগদায় হেলেঞ্চায় বিজেপির সাংগঠনিক বৈঠক চলাকালীন সময় হয় তুমুল অশান্তি। জেলা সভাপতি সামনে টেবিল চাপড়ে বিক্ষোভ করেন কর্মীদের একাংশ। আলোচনা ছাড়াই বাগদা বিধানসভার কনভেনারের নাম ঘোষণা করার পর এই অশান্তি শুরু হয়েছিল বলে জানা গিয়েছে বিজেপি সূত্র মারফত। এই নিয়ে শুরু হয়েছে চাপানউতর। সূত্রের খবর, বাগদা বিধানসভা এলাকার কনভেনার হিসেবে ভগিরথ ঘোষের নাম ঘোষণা করা হয়েছিল। তারপর বিক্ষোভ শুরু হয় কর্মী সমর্থকদের মধ্যে।

Advertisements

এদিন চূড়ান্ত বিশৃঙ্খলার মধ্যে বৈঠক ছেড়ে বেরিয়ে যান বিজেপির বনগাঁ সাংগঠনিক জেলার সভাপতি রাম পদ দাস। বাগদা বিজেপির সাংগঠনিক বৈঠকে বিশৃঙ্খলা হয়। গোষ্ঠী দ্বন্দ্বের অভিযোগ করতে শুরু করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। অন্যদিকে, ঘরের ভিতরে অনুষ্ঠান চলেও বাইরে তুমুল হাতাহাতিতে জড়িয়ে এই অভিযোগকে আরো সুগঠিত করে তুললেন কয়েকজন বিজেপি সমর্থক। শনিবার এরকমভাবেই নানা জায়গায় দেখা যায় বিজেপি নেতা কর্মীদের মধ্যে অসন্তোষের ঘটনা।

Advertisements
Advertisement

Related Articles

Back to top button