টলিউডবাংলা সিরিয়ালবিনোদন

Mithai: শুটিংয়ের শেষে ভূরিভোজে ব্যস্ত মিঠাই রানী! জানালেন নিজের প্রিয় খাবারের নাম, রইলো ভিডিও

বর্তমানে বাংলা টেলিভিশন জগতের এক নম্বর অভিনেত্রী বললেই সকলের মাথায় আসবে একটাই নাম। হ্যাঁ ঠিক ধরেছেন ইনি আর কেউ নন সকলের প্রিয় মিঠাই রানী। মিঠাইয়ের হাসিখুশি মিষ্টি স্বভাব আর সহজ সরল ভাবে অভিনয় করে মা কাকিমার প্রিয় হয়ে উঠছে। মিঠাই রানীর ভালো নাম হল সৌমিতৃষা কুন্ডু। সবাই এই অভিনেত্রীকে মিঠাই বলে বেশি ডাকে। বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়ে তুফান মেলকে অপছন্দ করেনা এমন মানুষ খুব কম আছে। আর ইতিমধ্যে অভিনেত্রীর অনুগামীর সংখ্যা ও দেখার মতো। সকল অনুগামীরাও মুখিয়ে আছেন প্রিয় অভিনেত্রীর পছন্দ, অপছন্দ, খাওয়া-দাওয়া, প্রিয় মানুষ কে সব জানার জন্য মুখিয়ে থাকেন। অনেক অনুগামীর প্রশ্ন ধারাবাহিকের মতো কি বাস্তবে খাওয়া দাওয়া পছন্দ করেন সৌমিতৃষা?

আর সেই প্রশ্নের উত্তর পাওয়া গেল। তাও আবার মিঠাই এর শ্যুটিং সেট থেকে উঠে আসা এক ভিডিয়োতে। আর তাতেই দেখা গেল পাত পেড়ে মাছ-ভাত খেতে ব্যস্ত সৌমিতৃষা। ধারাবাহিকের প্রধান অভিনেত্রী। তাই সকলের প্রথমে মাথায় আসবে সৌমিতৃষাও অন্য নায়িকাদের মতো নিজের ছিপছিপে ফিগারের জন্য অনেই ওয়ার্ক আউট আর ডায়েট করেন। তবে এই ধারণা সম্পূর্ণ ভুল। তিনি ডায়েট করেন কিন্তু তিনি অন্য মেয়েদের মতো খাদ্যরসিক। আর তিনি কতটা খেতে ভালোবাসেন তা ফের প্রমাণিত হল মিঠাই এর শ্যিটিং সেট থেকে ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিয়োতে। সেই ভিডিয়োটিতে দেখা যাচ্ছে শুটিং সেট এর মধ্যেই মিঠাইয়ের সাজে মাটির থালা, বাটিতে পাত পেড়ে বাঙ্গালীদের মত গুছিয়ে চিংড়ি মাছ আর ভাত চুটিয়ে খাচ্ছেন তুফান মেল।

শ্যুটিংয়ের ফাঁকে বাঙালিরা কাজের মাঝে অবসর সময়ে যেমন দুপুরের ভাত খাওয়া দাওয়ার মতই খেতে বসেছেন অভিনেত্রী। আর যে এই ভিডিয়োটি করছেন সেই ব্যক্তির উদ্দেশ্যে বলছেন, “আমি অন্য কোনো মাছ খাইনা, শুধু চিংড়ি মাছ খাই। আজকে আমার পার্টনার তন্বী দি, কৌশাম্বী দি নেই। থাকলে ভাগ দিতে হতো। ওরা নেই আমি তাই খুব খুশি।” ভিডিওটিতে মিঠাই এও জানায় তার আর বাকি সব মাছের গন্ধ লাগে। অবশ্য এর আগেও মিঠাই এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছিলেন তিনি খুব একটা মাছ খাননা। তবে ফিস ফ্রাই, ফিঙ্গার আর চিংড়ি মাছ খান। তবে মাছের রাজা ইলিশ একদমই পছন্দ নয়। শুধুমাত্র চিংড়ি মাছই রয়েছে তার হৃদয় জুড়ে।

সেই ভিডিয়োয়তে আরো দেখা গেল অভিনেত্রী নিজের খাওয়া শেষে আর পাঁচটা বাঙালির মত মিষ্টির খোঁজ করছিলেন। সেদিন পুরো শ্যুটিংয়ের ফাঁকে সেদিন প্রিন্সেপ ঘাট যাওয়া থেকে, ঘোড়ার গাড়ি-নৌকা চড়া সবই করেছেন সিড আর মিঠাই। আর শ্যুটিং এর সৌজন্যে নিজের প্রোডাকশন সংস্থার প্রশংসা করতেও ভোলেননি অভিনেত্রী সৌমিতৃষা। বর্তমানে ধারাবাহিকে দেখানো হয়েছে নিজের মাকে হারিয়ে মিঠাই এক্কেবারে শোকোস্তব্ধ হয়ে পড়েছে। তবে মিঠাইয়ের এই বিপদে উচ্ছেবাবু সহ গোটা মোদক পরিবার চেষ্টা করছে মনোহারার প্রাণকে একটু হাসি খুশি রাখা যায়।

Related Articles

Back to top button