খেলাক্রিকেট

ব্যাট-বলে অসাধারণ পারফরম্যান্স টাইগারদের, দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে ইতিহাস গড়লো বাংলাদেশ!

×
Advertisement

গতকাল বাংলাদেশ-দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যে অনুষ্ঠিত ওডিআই সিরিজের প্রথম ম্যাচে নতুন ইতিহাসের সাক্ষী থাকলো বাংলাদেশি ক্রিকেট প্রেমীরা। দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে ৩৮ রানে প্রোটিয়াদের পরাজিত করল বাংলাদেশি টাইগাররা। আর এর সাথে সাথে ক্রিকেট ইতিহাসে নতুন ইতিহাস রচনা করলো সাকিব আল হাসানরা। এর আগে কখনো বাংলাদেশ ওডিআই সিরিজ খেলতে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে গিয়ে প্রোটিয়াদের পরাজিত করতে পারেনি। তামিম ইকবালের নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশের টাইগাররা সেই কাজ করে দেখালো চলতি সিরিজে। সুপারস্পোর্ট পার্কে এক ঐতিহাসিক জয় নিশ্চিত করলেন তামিমের নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ। সিরিজ শুরুর দুদিন আগে রাসেল ডমিঙ্গো বলেছিলেন, দক্ষিণ আফ্রিকায় এর আগে আসা বাংলাদেশ দল যা করে দেখাতে পারেনি সেটাই এবার করে দেখাবেন।

Advertisement

প্রধান কোচের যেমন কথা তেমন কাজ করে দেখালো তার শিষ্যরা। হেসেখেলে প্রোটিয়াদের পরাজিত করল বাংলাদেশ। এদিন ম্যাচ শুরু হওয়ার পর থেকে বরাবরই ম্যাচে এগিয়ে থেকেছে বাংলাদেশ। ওপেনিং জুটিতে দুর্দান্ত শুরু ম্যাচে জয়ের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। ওপেনিং ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল (৪১) লিটন দাস (৫০) রানের ইনিংস খেলে ইনিংসের দুর্দান্ত সূচনা করেন। এরপর সাকিব আল হাসানের অনবদ্য (৭৭) রানের ইনিংস নির্ধারিত ৫০ ওভারে বাংলাদেশকে ৩১৪ রানে পৌঁছে দেয়।

৩১৫ রানের লক্ষ্যমাত্রা তাড়া করতে নেমে বাংলাদেশের ধারালো বলের সামনে হাত খুলতে পারেননি কোন প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান। জানেমন মালানকে আউট করে প্রোটিয়াদের ১৮ রানের উদ্বোধনী জুটি ভাঙেন শরিফুল ইসলাম। আরেক ওপেনার কাইল ভেরাইনকে আউট করেন তাসকিন আহমেদ। ২৫ বলে ২১ রান করে আউট হন ভেরাইন। নবম ওভারে তাসকিন তাঁর চতুর্থ বলে এইডেন মার্করামকে প্যাভিলিয়নের রাস্তা দেখান। মেহেদি হাসান মিরাজকে ক্যাচ দিয়ে শূন্য রানে আউট হন মার্করাম। দলের জন্য সবচেয়ে নম্বর ইনিংস খেলেন রাসি ভ্যান ডার দাসেন। তিনি ব্যক্তিগত (৮৬) এবং ডেভিড মিলার ব্যক্তিগত (৭৯) রানের ইনিংস খেলেন। দক্ষিণ আফ্রিকা সবকটি উইকেট হারিয়ে শেষ পর্যন্ত ২৭৬ রান করতে সক্ষম হয়। এর ফলে প্রথম ম্যাচেই ৩৮ রানে জয় তুলে নেয় টাইগাররা।

Advertisement

Related Articles

Back to top button