ভাইরাল & ভিডিও

প্রথম গান ভাইরালের পর বাদাম কাকুর দ্বিতীয় গান ‘আমি বাদাম বেঁচে খাই’

Advertisement

এই মুহূর্তে গোটা নেটমাধ্যমে বীরভূমের বাদাম বিক্রেতা ভুবন বাদ্যকর গান গেয়ে বাদাম বিক্রি করার এমন অভিনব পদ্ধতির জন্যই ভাইরাল হয়েছেন। এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় সর্বক্ষণ ভুবন বাবুর লেখা ও সুর করা ‘বাদাম বাদাম দাদা কাঁচা বাদাম, আমার কাছে নাই গো বুবু ভাজা বাদাম’,গানটি শোনা যাচ্ছে। নেটদুনিয়ায় একাধিক ইউটিউবার এই গান নিয়ে রীতিমতো কাটাছেঁড়া করে ফেলেছেন। অথচ এদিকে নিজের গানের কপিরাইট হারিয়েছেন ভুবন বাবু। যার জন্য ইতিমধ্যেই তিনি দুবরাজপুর থানায় পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছেন।

Advertisement

তার কথায়, তিনি নেটদুনিয়ায় জনপ্রিয় হওয়ার পর থেকেই সকলে তার সাথে দেখা করতে এসে বাদাম না কিনে শুধু গান শুনেই চলে যান সকলে। সোশ্যাল মিডিয়ায় তার এত জনপ্রিয়তা তার জীবনে ডেকে এনেছে এক বিশাল বিপদ। তার দাবি, এই জনপ্রিয়তার কারণেই তার ব্যবসার ক্ষতি হয়েছে অনেক। তার কথায়, এতকিছুর মধ্যে তিনি কিছুই পাচ্ছেন না। এমনকি তিনি এবং তার পরিবারের সদস্যরা আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন প্রতিনিয়ত। তাদের ভয় এই জনপ্রিয়তার জন্য তিনি অপহরণ হয়ে যেতে পারেন। তার এই ভাবনার জন্য নেটনাগরিকদের কাছে হাসির পাত্র হয়ে উঠেছেন ভুবনবাবু।

https://youtu.be/eJvkBduO3YE

Advertisement

তবে কয়েকদিন আগেই ইউটিউবার স্যান্ডি সাহার চ্যানেলে তিনি তার দ্বিতীয় গান ‘সারেগামা গারে আর গান শোনাবো তোরে’ গানটি গেয়ে সকলকে শুনিয়েছেন। ভুবন বাবুর গান গাওয়ার এই ভিডিওটি শেয়ার করে স্যান্ডি সাহা সকলের কাছে অনুরোধ জানিয়েছিলেন এই গানের কপিরাইট যেন ভুবন বাবুরই থাকে। ইতিমধ্যেই সেই দ্বিতীয় গানটিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

সম্প্রতি একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে যেখানে দেখা যাচ্ছে বীরভূমের এই বাদাম বাবুর দ্বিতীয় গানে এক কিশোরী রাস্তার মধ্যে লোকজনের মাঝে নেচে ভিডিও বানিয়ে তা শেয়ার করেছেন। মেয়েটি লাল রঙের একটি আনারকলি পড়েছিলেন। খোলা চুলে গলায় কালো ওড়না নিয়ে সারা রাস্তায় ঘুরে ঘুরে এই গানে নাচলেন কিশোরী। এই মুহূর্তে এই ভিডিও ভাইরাল নেটিজেনদের একাংশের মধ্যে।

Advertisement

Related Articles

Back to top button