নিউজপলিটিক্সরাজ্য

“সৌমিত্র বাবুকেও ছাড়লেন না!”, মমতার উদ্দেশ্যে নজিরবিহীন আক্রমণ বিজেপির প্রথম সারির নেতার

Advertisement

এবারে আর লড়াই শুধু রাজনৈতিক মহলে রইলো না, সৌমিত্র চ্যাটার্জির প্রয়ানে তাকে নিয়েও শুরু হলো রাজনীতি। আজ দুপুরেই মহাপ্রয়ান ঘটলো কিংবদন্তি অভিনেতা সৌমিত্র চ্যাটার্জির। কিছুদিন আগেই বিজেপি নেতা অনুপম হাজরা তাকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে একটি নজিরবিহীন পোস্ট করেছিলেন। ঝড় উঠে গিয়েছিলো সম্পূর্ণ নেট দুনিয়াতে। সকলেই এই মন্তব্যের সমালোচনা করেছিলেন। কিন্তু এদিন সৌমিত্র বাবুর প্রয়ানের পরেও আবারো সোশ্যাল মিডিয়াতে একটি পোস্ট করে সমালোচকদের কড়া বার্তা দিলেন বিজেপি নেতা অনুপম হাজরা। তার সঙ্গে টেনে নিয়ে এলেন রাজনীতির প্রসঙ্গ। এই সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট ঘিরেও সমালোচনার ঝড় নেটদুনিয়াতে।

কিন্তু তার মৃত্যুর আগেই গতকাল রাতে ফেসবুক পেজে একটি পোস্ট করে তিনি লিখে ফেলেন ‘ নক্ষত্র পতন!!! আলোকময় দীপাবলীর রাত অন্ধকার করে চলে গেলেন আমাদের সকলের প্রিয় ফেলুদা!!!”। তখন অবধি সৌমিত্র বাবু মারা যাননি। কিন্তু তখন এরকম একটি পোস্ট করার মানে টা কি? তার এই পোস্ট ঘিরে সমালোচনার ঝড় ওঠে। এমনকি পোস্ট ডিলিট করার পরামর্শ দিয়েছিলেন অনেকেই।

তিনি ফিরে আসবেন, এরকম আশা কেউ করেননি তেমনভাবে। শনিবার রাতেই সমস্ত হাল ছেড়ে দিয়েছিলেন ডাক্তাররা। শেষ রক্ষা আর করা গেলো না। দীর্ঘ ৪০ দিনের লড়াই শেষ হলো। অক্টোবরের প্রথম দিকে করণা আক্রান্ত হওয়ার পরে তাকে ভর্তি করা হয়েছিল একটি বেসরকারি হাসপাতালে। তারপর কখনো ভালো আবার কখনো খারাপ, টানা ৪০ দিনের জন্য যমে মানুষে টানাটানির পরে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করলেন বাঙালির আইকনিক ফেলুদা।

কিন্তু এই মহামানবের মৃত্যুর দিনেও তাকে নিয়ে রাজনৈতিক তরজা বন্ধ হলো না। রবিবার দুপুরে ১২ টা ১৫ নাগাদ তার প্রয়ান ঘটে। কিন্তু তখনো তার মৃত্যুসংবাদ আনুষ্ঠানিক ভাবে ঘোষণা করা হয়নি। এই ঘটনাকেও কেন্দ্র করে সরব হলেন অনুপম হাজরা। নাম না করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে কটাক্ষ করে তিনি বলেন,” সৌমিত্র বাবুকেও ছাড়লেন না! ” এই মন্তব্যেও আবার নতুন করে রাজনৈতিক গন্ধ পাচ্ছেন রাজনৈতিক মহল। মৃত্যুর পরেও রইলো তার মরণসংবাদ ঘিরে চড়ল রাজনৈতিক পারদ।

Tags

Related Articles

Back to top button