পলিটিক্সনিউজরাজ্য

আত্মবিশ্বাস অনেকটাই বেড়ে গেল, মমতা পাশে দাঁড়িয়েছেন শুনে কি বললেন অনুব্রত মণ্ডল?

সোমবার অনুব্রতর সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন তার আইনজীবী অনির্বাণ গুহঠাকুরতা

×
Advertisement

বেহালায় প্রাক স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে এদিন গরু পাচার মামলায় আটক অনুব্রত মণ্ডলের পাশে দাঁড়ানোর বার্তা দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার সাথে সাথেই অনুব্রত মণ্ডলের গ্রেফতারি নিয়ে আজ প্রশ্ন তুলেছেন তৃণমূল নেত্রী। পাশাপাশি সভা থেকে সংবাদমাধ্যম এবং বিজেপি কংগ্রেস এবং সিপিএম কে নিশানা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর তার প্রিয় দিদি যে তার পাশে দাঁড়িয়েছেন এই খবর শুনে অত্যন্ত উৎফুল্ল কেষ্ট ওরফে অনুব্রত মণ্ডল। গ্রেফতারের পর থেকে অবশ্য মনমরাই ছিলেন অনুব্রত কিন্তু হঠাৎই দিদির বার্তা যেন নতুন প্রাণ ফিরে পেলেন বীরভূমের এই দোর্দণ্ডপ্রতাপ নেতা।
সোমবার অনুব্রতর সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন তার আইনজীবী অনির্বাণ গুহঠাকুরতা। সূত্রের খবর, আইনজীবী কাজটা কি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পুরো বক্তব্য শুনেছেন অনুব্রত মণ্ডল। তিনি বলেছেন, ‘গতকাল আমার নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বেহালায় আমার সমর্থনে যা বলেছেন তা কাম্য ছিল। আমি জানতাম দিদি আমার পাশে থাকবেন। আমি কোন রকম অপরাধ করিনি। দিদি সেটা বুঝতে পেরেছেন। দিদি আমার সমর্থনে কথা বলায় আমার আত্মবিশ্বাস অনেকটা বেড়ে গিয়েছে। আমি নিজে এই মুহূর্তে অনেকটা স্বস্তি বোধ করছি।’

Advertisement

তবে উল্লেখযোগ্য বিষয়টি হলো পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের গ্রেফতারি নিয়ে কিন্তু মুখ খোলেনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মন্ত্রিসভা থেকে পার্থকে সরিয়ে দিয়েছেন তিনি। রবিবার পার্থর বিধানসভা এলাকাতে গিয়ে পার্থ না বরং সরাসরি অনুব্রত মণ্ডলের পাশে দাঁড়িয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন বিজেপি এবং কেন্দ্রীয় তদন্তকারী দলের বিরুদ্ধে তোপ দেগে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলছেন, “আর কতজনকে গ্রেফতার করবে? আমি নিজেই জেল ভরো আন্দোলনের ডাক দেব। একটা কেষ্ট কে ধরলে লক্ষ লক্ষ কেষ্ট আছে। কেষ্টরা ভয় পায় না।”

Related Articles

Back to top button