টলিউডবিনোদন

Anju Ghosh: ২২ বছর পর ফের অভিনয় জগতে কামব্যাক করছেন ‘বেদের মেয়ে জোৎস্না’র অঞ্জু ঘোষ!

Advertisement

মনে আছে অঞ্জু ঘোষকে? নব্বইয়ের দশকে সুপারডুপার হিট ‘বেদের মেয়ে জোৎস্না’ সিনেমার৷ নায়িকা। আরও অনেক সিনেমাতেই অভিনয় করেছেন অঞ্জু ঘোষ । কিন্তু, আজও বাংলা সিনেমাপ্রেমীরা তাঁকে মনে রেখেছেন ‘বেদের মেয়ে জোৎস্না’ হিসাবেই। ১৯৮৯ সালে প্রথম বাংলাদেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছিল এই ছবি। দুই বাংলার মানুষের কাছে দারুণ জনপ্রিয়তা পেয়েছিল এই সিনেমা। এই সিনেমাতে নিজের সুদক্ষ অভিনয়ের মাধ্যমে জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন ঢালিউড অঞ্জু ঘোষ। পরে টলিউডেও একই নামের ছবি তৈরি হয়েছিল। এদেশে অঞ্জু ঘোষের বিপরীতে অভিনয় করেছিলেন টলিউড অভিনেতা চিরঞ্জিত। 

Advertisement

এই ছবি ছাড়াও বাংলাদেশের একাধিক ছবিতে অভিনয় করেছিলেন। শুধু ঢালিউড নয় পাশাপাশি টলিউডেরও একাধিক ছবিতে অভিনয় করেছিলেন অভিনেত্রী। তবে সেই অঞ্জু ঘোষ সিনেমা ছেড়েছেন অনেক বছর। এমনকী বাংলাদেশও ছেড়েছেন প্রায় ২৩ বছর আগে। ১৯৯৮ সালে বাংলাদেশ ছেড়ে তিনি পাকাপাকি চলে আসেন কলকাতায়। এখন এই ঢালিউড অভিনেত্রী থাকেন সল্টলেকে ভারতীয় নাগরিক হিসাবেই। অনেক বছর ধরেই টলিউড আর ঢালিউড ইন্ডাস্ট্রির থেকে দূরত্ব বজায় রেখেছেন অঞ্জু দেবী। প্রায় ২২ বছর পরে, গত বৃহস্পতিবার, ওপার বাংলা চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির আমন্ত্রণে ঢাকা গিয়েছিলেন অভিনেত্রী। আর সেখানে এফডিসিতে তাঁকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়। সিনেমা জগতে তাঁর বিশেষ অবদানের জন্য ওই সমিতির আজীবন সদস্য করা হয়েছে এই অভিনেত্রীকে। 

বাংলাদেশের এই জনপ্রিয় ছবি ‘বেদের মেয়ে জোৎস্না’য় অভিনেতা ছিলেন ইলিয়াস কাঞ্চন। তিনিও গতকাল ঢাকার ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। আর সেখানেই এদিন অঞ্জু ঘোষ ও ইলিয়াস কাঞ্চনের নতুন ছবি ‘জোৎস্না কেন বনবাসে’র ঘোষণা হয়েছে। আর এই ছবির প্রযোজনায় নাদের খান। এদিন অঞ্জু ঘোষকে নিয়ে আরও একটি নতুন ছবির ঘোষণা করেন শহীদুল হক খান। ‘বেদের মেয়ে জোৎস্না’ সিনেমা মুক্তি পাওয়ার ছয় বছর পর কোনো এক অজ্ঞাত কারণে বাংলাদেশ থেকে কলকাতায় চলে আসেন অঞ্জু।

Advertisement

প্রায় ২২ বছর পরে নিজের দেশে ফিরে তিনি জানান, দেশ ছাড়ার বিষয়ে তার মধ্যে কোনও অভিমান বা ক্ষোভ নেই। অভিনেত্রীর কথায়, ‘আমি বাংলাদেশে ফিরব। আমাকে ফিরতেই হবে। যেসব আনন্দের খবর শুনছি আর ইন্ডাস্ট্রির এমন অবস্থা, আর তাতে আমি ফিরে আসব।’ অঞ্জু এদি। আরও বলেন, ‘আমার কোনদিনও কারোর প্রতি ক্ষোভ ছিল না। ফলে বিশেষ কোনও কারণ বা ব্যক্তির কারণে আমি দেশ ছেড়ে যাইনি। মজার বিষয় হল, আমি কলকাতায় দু’দিনের জন্য গিয়েছিলাম। সেখানে আমার মা থাকতেন। দু’দিনের জন্য গিয়ে সেখান থেকে আর বের হতে পারছি না। এরপর সেখানে সিনেমার পর সিনেমা করতে লাগলাম। তবে এর পেছনে আর কোন কিন্তু নেই।’

একসময় দুই বাংলা মিলিয়ে মোট ৩৫০টির বেশি ছবিতে অভিনয় করেছেন অভিনেত্রী। এদিন নিজের মাতৃভূমি বাংলাদেশের প্রতি নিজের ভালোবাসার কথা জানান নায়িকা। অভিনয় না করলেও নিজের ইন্ডাস্ট্রি সম্পর্কে নিয়মিত খোঁজ রাখেন তিনি। অভিনেত্রীর এই কামব্যাকে বেশ খুশি হয়েছেন অনুগামীরা। বহু সিনেপ্রেমীরা উচ্ছ্বসিত অঞ্জু দেবীকে নতুন করে দেখার জন্য।

 

Advertisement

Related Articles

Back to top button