টলিউডবিনোদন

Sabyasachi Chakraborty: সব্যসাচী চক্রবর্তীর ৬৫ তম জন্মদিনে খোলা চিঠি ছোট ছেলে অর্জুন চক্রবর্তীর



টলিউডের অন্যতম পরিচিত অভিনেতা হলেন সব্যসাচী চক্রবর্তী। অ্যাডভেঞ্চার বিমুখ বাঙালির কাছে তিনি বেশ প্রিয়। সেই অরণ্যপ্রেমী সব্যসাচীর জন্মদিন আজ। সব্যসাচী চক্রবর্তী নামটা এলে মনে হবে একদিকে ফেলুদার মগজাস্ত্র আর কাকাবাবুর পিস্তল। ফেলুদার জার্নিটা শুরুটা হয়েছিল ১৯৮৭ সালে। ছোটপর্দার জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘তেরো পার্বণ’-এ অভিনয় করেছিলেন সব্যসাচী চক্রবর্তী। অভিনয় জীবনের একাবারে শুরুতেই গোরার চরিত্রে অভিনয় করে সকলের প্রিয় হয়ে উঠেছিলেনসব্যসাচী। 

মঞ্চ আর ছোটপর্দায় দুই দাপিয়ে কাজ করেছেন এই অভিনেতা। দুই পর্দাতে কাজ করার মাঝে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়ের সৃষ্ট কাকাবাবুর চরিত্রে অভিনয়ের সুযোগ পান সব্যসাচী। এই অফার পেয়েই হয়ে গেলেন সকলের প্রিয় রাজা রায় চৌধুরী। সব্যসাচীর কাকাবাবুর হাত ধরে যখন দর্শক অ্যাডভেঞ্চার প্রেমী হয়ে ওঠে। এরপর আর সব্যসাচীকে কাকাবাবু নয়, স্বয়ং ফেলুদার চরিত্রেও দেখা গেল সব্যসাচীকে। আর সেখানেও বাজিমাত করলেন সব্যসাচী। নতুন প্রজন্মের দর্শকের কাছে ফেলুদা মানে এখন সৌমিত্রের পর সব্যসাচী।

আজ সকলের প্রিয় ফেলুদার জন্মদিন৷ ৬৪ বসন্ত পেরিয়ে আজ ৬৫তম বসন্তে পা দিলেন। ঘরোয়া আমেজে নিজের জন্মদিন বাড়িতে উদযাপন করলেন। সারাদিনে কোনো শ্যুটিং এর ব্যস্ততা রাখেননি। জন্মদিন স্পেশাল সকালে লুচি- আলু চচ্চড়িতে ব্রেকফাস্ট সেরেছেন। সন্ধ্যাবেলা হবে বার্থ ডে স্পেশাল কেক কাটা। আর সব রান্নাই সব্যসাচীর স্ত্রী মিঠু চক্রবর্তী বাড়িতেই বানিয়েছেন। এই দিন স্বামীর জন্য নিজের হাতে কেক,সঙ্গে পায়েসও রান্না করেছেন।

তবে নিজের জন্মদিনে দুই পুত্র অর্জুন আর গৌরবের মধ্যে,  অর্জুন ওড়িশায় শ্যুটিং থাকাতে বড় ছেলে গৌরব আর পুত্রবধূ ঋদ্ধিমা আর স্ত্রী মিঠুর সাথেই জন্মদিন উদযাপন করলেন। সকলে মিলে জমিয়ে ডিনার সারবেন৷ প্রতিবারের মতো এবারটাও জন্মদিনে ভক্তদের ফোন আর শুভেচ্ছাবার্তা পেয়েছেন। তবে ছোট ছেলে অর্জুন নেই বাবার কাছে। দূরে থেকেও বাবার জন্মদিনে আদুরে শুভেচ্ছা জানালেন। বাবার জন্মদিনে আদুরে ছবি পোস্ট করেন ছোট ছেলে অর্জুন চক্রবর্তী।

অভিনেতার শেয়ার করা ছবিতে দেখা যাচ্ছে, বারাণসীর রাস্তায় রিক্সায় চড়ে ঘুরে বেড়াচ্ছিলেন বাপ ব্যাটা। এইদিন বাবা পরেছেন খদ্দরের পাঞ্জাবী, ছেলেও তাই। কিন্তু অর্জুনের মুখ ছিল ভর্তি দাড়ি। এই ছবিটি ছিল ‘অভিযাত্রিক’ ছবির শ্যুটিং চালাকালীন লোকেশানের জন্য বেরিয়েছিলেন। আর অপুর চরিত্রের জন্য ছিল এই সাজ। সব্যসাচী চক্রবর্তীর জন্মদিনে, বাবার সঙ্গে সেই ছবি পোস্ট করে অর্জুন লেখেন, ‘শুভ জন্মদিন বাবা। তোমার মতো অর্ধেকটাও যদি হতে পারি, আমার জীবন সার্থক হবে।’ প্রবীণ অভিনেতার বিশেষ দিনে বাবা-ছেলে জুটির এই ছবি শেয়ার হতেই এককথায় সুপারহিট। অনুগামীরা ভালোবাসা জানিয়েছেন।

Related Articles

Back to top button