বলিউডবিনোদন

বিতর্ক শুরু ইন্ডিয়ান আইডলে! নেহা আর হিমেশের গান গাওয়া নিয়ে মুখ খুললেন অমিত কুমার

×
Advertisement

ভারতের টেলিভিশিন জগতে সোম থেকে শুক্র ধারাবাহিক দেখানো হলেও শনি ও রবিবার থাকে রিয়ালিটি শো। রিয়ালিটি শোতে থাকে গান, নাচ আর কিছু গেম। গানের মঞ্চ থেকে ভবিষ্যতের তারকা গায়কের সান দেওয়া হয়। এর মধ্যেভযে কয়েকটি সঙ্গীতের প্রতিযোগিতার মঞ্চ থেকে বড় বড় গায়ক-গায়িকা উপহার দিয়েছে বিনোদন জগতকে, তার মধ্যে অন্যতম প্ল্যাটফর্ম হল ইন্ডিয়ান আইডল। ইন্ডিয়ান আইডলে প্রতি সপ্তাহে থাকে বিশেষ অতিথি। কিছুদিন আগে সেই মঞ্চে পৌছে গিয়েছিলেন লেজেন্ড গায়ক কিশোর কুমারের পুত্র অমিত কুমার। 

Advertisement

ইন্ডিয়ান আইডিয়াল মঞ্চ সিজন ১২’র একটি এপিসোডে বিখ্যাত গায়ক কিশোর কুমারকে শ্রদ্ধা জানিয়ে তাঁর গাওয়া গানে প্রতিযোগিরা গান গেয়ে ওঠে। আর সেই প্রতিযোগীদের গান শোনার জন্য মঞ্চে উপস্থিত থাকেন কিশোর পুত্র অমিত কুমার। তবে রিয়ালিটি শোয়ের মধ্যে কতটা সত্যতা থাকে, আর কতখানি লিখিত স্ক্রিপ্টেড হয় তা নিয়ে ফের বিতর্ক শুরু হয়েছে। হঠাৎ এ কথা কেন বলা হচ্ছে? কি হয়েছে। আসল ব্যপার হল কিশোর কুমারের গান গাওয়া এক্কেবারে সহজ নয়। তবে বাজে গান গাওয়ার পর ও প্রশংসা করেছেন কিশোর পুত্র অমিত কুমার।

কিশোর কুমারের গান গেয়েছিলেন এখনকার জনপ্রিয় গায়িকা নেহা কক্কর এবং গায়ক হিমেশ রেশমিয়াও। তবে দুজনের গান একদমই ভালো লাগেনি দর্শকের। এরপর শুরু হয় নানান সমালোচনা। এই বিতর্কের মধ্যে এক সাক্ষাৎকারে সেই এপিসোডের নিন্দা করলেন কিশোরপুত্র অমিত কুমার। কিশোর কুমারের অনুগামীদের মতো অমিত ও বলে উঠলেন এই ইন্ডিয়ান আইডিয়াল মঞ্চ কিংবদন্তীর যথাযোগ্য শ্রদ্ধার্ঘ দিতে ব্যর্থ হয়েছে। অমিত বললেন, তাঁর বাবার গাওয়া গান বর্তমান প্রজন্মের পক্ষে গাওয়া সম্ভব নয়। এই প্রজন্ম কেবল ‘রূপ তেরা মস্তানা’র মতো গানের রিমেক গাইতে পারে।

Advertisement

এই এপিসোড সম্প্রচারিত হওয়ার পর এক সংবাদমাধ্যমের সাক্ষাৎকারে অমিত কুমার জানিয়েছেন, এই শোয়ে অতিথি হয়ে যাওয়ার জন্য তিনি টাকা পেয়েছিলেন। আর চ্যানেল কর্তৃপক্ষ থেকে বলা হয়েছিল গানের শেষে সকলের প্ প্রশংসা করেন তিনি। কথামতো পেশাদার হিসেবে তিনি তাই করেছিলেন। তবে সেই অনুষ্ঠানে কোনো প্রতিযোগীর গানই ব্যক্তিগতভাবে ভালো লাগেনি। বেসুরো লেগেছে বড্ডো। তিনি চেয়েছিলেন শো থেকে বেরিয়ে আসতে তবে তা তিনি পারেননি। শ্যুটিং শেষের অপেক্ষা করছিলেন। তবে তিনি সেই শোয়ের সক প্রতিযোগী এবং বিচারকদের প্রতি তাঁর যথেষ্ট সম্মান জানিয়েছেন। আর বলেন এরকম মাঝে মাঝে ভুল ত্রুটি হয়ে যায়। পেশাদারিত্ব বজায় রাখতে তিনি এই মঞ্চে সকলের প্রশংসা করেছিলেন তবে মন থেকে নয়।

Related Articles

Back to top button