ভাইরাল & ভিডিও

VIRAL: অবশেষে কটাক্ষের বিরুদ্ধে সকলের সামনে মুখ খুললেন ‘আমব্রেলা গার্ল’, জানুন কী বললেন

×
Advertisement

চলতি বছরের উচ্চমাধ্যমিকের ফলাফল মুক্তি পেয়েছে ১০’ই জুন। আর তারপরেই বেশ কিছু অনূর্তীর্ণ ছাত্র-ছাত্রী তাদের পাশ করিয়ে দেওয়ার দাবিতে অনশন শুরু করে রাস্তায় বসে। তাদের বক্তব্য ছিল, রাষ্ট্রবিজ্ঞানে লেটার নম্বর পাওয়া সত্ত্বেও ইংরাজিতে তাদের পাশ নম্বর দেওয়া হয়নি। আর সেই সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে এক সাংবাদিক সুদীপ্ত বিশ্বাস নামে এক ছাত্রীকে জিজ্ঞাসা করেছিলেন আমব্রেলা বানান। তারপর সে যা উত্তর দিয়েছিল, তা শুনে অবাক হয়ে গিয়েছিলেন সকলেই। আর সেই প্রসঙ্গ টেনেই দিনের পর দিন সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায় ঐ মেয়েটিকে ট্রোল করা হয়েছে। বাদ পরেন নি তার পরিবারের সদস্যরাও। এতদিন চুপ থাকলেও, এবার মুখ খুললেন সুদীপ্তা। ভিডিও বানিয়েই প্রতিবাদ জানালেন তিনি।

Advertisement

সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে তাকে বলতে শোনা গিয়েছে, তাকে নিয়ে এতদিন ধরে বহু ট্রোল ভিডিও বানানো হয়েছে, তবে তিনি সবটাই চুপচাপ হজম করে নিয়েছেন। তবে শুধু শুধু এই বিষয়গুলি তার বাড়ির লোক মেনে নিতে পারছেন না। এই রোস্টিং ভিডিওগুলোতে তার মা ও ভাইকে নিয়েও কটুক্তি করতে দেখা গিয়েছে বহুজনকে। সম্প্রতি সেই প্রসঙ্গেই কথা বলেছেন সুদীপ্তা বিশ্বাস। তার বক্তব্য, আর যাই হোক তার মা ও ভাইকে এভাবে অপমান করা কারোর উচিৎ হয়নি। মাকে অপমান করলে সকলেরই খারাপ লাগে, এই কথা বলে তার মাকে নিয়ে তিনি এমন ভিডিও না বানাতে অনুরোধ করেছেন। এমনকি মাঝে তিনি সুইসাইড করেছেন এই কথাও রটিয়ে দেওয়া হয়েছিল। সম্প্রতি এই ভিডিওটি সুদীপ্তা সেইসমস্ত কথার প্রতিবাদ করার জন্যই বানিয়েছিলেন, যা এই মুহূর্তে নেটিজেনদের মাঝে রীতিমতো ভাইরাল হয়ে গিয়েছে।

Advertisement

ছেলেবেলায় পড়াশোনা করার সময় বাচ্চাদের যে সমস্ত বানান কিছুটা ভোগান্তি দেয়, তাদের মধ্যে আমব্রেলা অন্যতম। এমন বহু ছাত্র ছাত্রীরাই রয়েছেন যারা শুরুতে হোঁচট খেয়েছেন এই বানান নিয়ে। তবে ক্লাস টুয়েলভের এক ছাত্রী আমব্রেলা বানান এমন বলতে পারেন তা আশা করেননি কেউই। সোশ্যাল মিডিয়া কোন বিষয় নিয়ে রোস্টিংয়ের সুযোগ পেলে তা ছেড়ে দেয় না, তা প্রমাণিত হল আবাবো।

আসলে রাস্তায় বসে অনশন করার সময় সাংবাদিককে সুদীপ্তা আমব্রেলা (AMRELA) বানান ভুল বলেছিলেন। আর সেই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে ঝড়ের গতিতে ছড়িয়ে গিয়েছিল সেইসময়। ভুল বানান বলার প্রসঙ্গে সুদীপ্তার বাবা মিডিয়ার সামনে বলেছিলেন সাংবাদিকের উচ্চারণ অনুযায়ী তার মেয়ে ঠিকই বলেছে। সেই নিয়েও কম চর্চা হয়নি। তবে শেষ পর্যন্ত এই ট্রোলিংয়ের চাপ নিতে পারলেন না সুদীপ্তা। বাধ্য হয়েই প্রতিবাদ জানালেন সোশ্যাল মিডিয়ার হাত ধরেই। আপাতত সেই ভিডিওর সূত্র ধরেই নেটিজেনদের মাঝে চর্চায় রয়েছেন তিনি।

Related Articles

Back to top button