দেশনিউজ

বাদল অধিবেশনে করোনা সুরক্ষায় সাংসদদের দেওয়া হল বিশেষ কিট

নয়াদিল্লি: করোনা এমন একটা শব্দ যা সারা বিশ্বের মানুষের মধ্যে হাহাকার সৃষ্টি করে দিয়েছে। এই করোনার মধ্যেই শুরু হয়েছে বাদল অধিবেশন। করোনার কথা মাথায় রেখেই সংক্রমনের মোকাবিলা করার জন্য সাংসদদের মাল্টি-ইউটিলিটি কোভিড-১৯ কিট দেওয়া হয়েছে। দূরত্ব বজায় রাখার কারণে সংসদের সামনে স্বচ্ছ প্রাচীর তুলে দেওয়া হয়েছে, যাতে দু’পক্ষের কথোপকথনের মধ্যে ড্রপলেট ছড়িয়ে পড়তে না পারে। এভাবেই অধিবেশনই কিছুকিছু জিনিসের প্রথা ভেঙে অদল বদল করা হয়েছে। এইসব পুরনো প্রথা ভেঙে সংসদের অধিবেশনে যোগদান করছেন সকলে।

জানা গিয়েছে, সাংসদদের দেওয়ার জন্য তৈরি এই মাল্টি-ইউটিলিটি কোভিড-১৯ কিটের প্রত্যেকটিতে রয়েছে ৪০টি করে ডিসপোজেবল মাস্ক, ৫টি করে এন-৯৫ মাস্ক, ২০ বোতল স্যানিটাইজার। যার প্রত্যেকটিতে থাকবে  ৫০ মিলিলিটার করে স্যানিটাইজার। এছাড়াও কিটে থাকছে ফেস শিল্ডস, ৪০ জোড়া গ্লাভস, দরজা খোলা ও বন্ধের জন্য একটা টাচ-ফ্রি হুক। যার ফলে হাত দিয়ে দরজা স্পর্শ করার প্রয়োজন পড়বে না সাংসদদের। দরজা না ধরে ওই হুক দিয়েই খোলা ও বন্ধ করা যাবে। আরও থাকছে মুখ মোছার জন্য হার্বাল স্যানিটাইজেশন ওয়াইপস ও শরীরে ইমিউনিটি বাড়াতে টি-ব্যাগ। করোনার জন্য লকডাউন এর জেরে বন্ধ হয়ে গিয়েছিল বাজেট অধিবেশন এই কারণে সমাজের উপর বন্ধ ছিল লোকসভা নিয়ম অনুযায়ী সমাসের বেশি লোকসভা বন্ধ রাখার নিয়ম নেই সেই পরিপ্রেক্ষিতেই আজ থেকে বসতে চলেছে এবারের বাদল অধিবেশননির্ধারিত সময়ের দু’মাস পর বসতে চলেছে বাদল অধিবেশন। আগামী ১ অক্টোবর পর্যন্ত চলবে বাদল অধিবেশন।

তবে এবার বাদল অধিবেশনে বাদ প্রশ্নোত্তর পর্ব। কাটছাঁট করা হয়েছে জিরো আওয়ারও। যা নিয়ে বিরোধীদের মধ্যে ক্ষোভ সঞ্চার হয়েছে। করোনা আবহে সাংসদদের সুরক্ষা স্বার্থে দুই কক্ষের অধিবেশনের সময় ভাগ করে দেওয়া হয়েছে। লোকসভার প্রথম দিন সকাল ৯টা থেকে ১টা পর্যন্ত এবং বাকি দিনগুলি বিকেল ৩টে থেকে ৭টা পর্যন্ত চলবে। অন্যদিকে, রাজ্যসভা চলবে প্রথম দিন বিকেল ৩টে থেকে ৭টা পর্যন্ত বাকি দিনগুলি সকাল ৯টা থেকে ১ পর্যন্ত।

Related Articles

Back to top button