টলিউডবিনোদন

কঠিন লড়াইয়ে মেয়ের পাশে বাবা, সমস্ত চুল কেটে ফেললেন ঐন্দ্রিলার বাবা

মেয়ে ক্যান্সারে আক্রান্ত, চিকিৎসার জন্য সমস্ত চুল চলে গিয়েছে, তাই তার পাশে দাঁড়াতে এবারে নিজের চুল কেটে ফেললেন ঐন্দ্রিলার বাবা

×
Advertisement

ক্যান্সারের জন্য দিন কয়েক আগে সমস্ত চুলকে বিদায় জানাতে হয়েছে অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মা কে। কিছুদিন আগে পর্যন্ত তাকে দেখা যেত মাথায় অনেকটা চুল নিয়ে অভিনয় করতে। কিন্তু এখন সেই সমস্ত অতীত। তাই মেয়ের এই কঠিন সময়ে তার পাশে দাঁড়ানোর জন্য ঐন্দ্রিলার বাবা তার মাথার সমস্ত চুল কেটে ফেললেন। বাবাকে নিয়ে চিরকালই বেশ আবেগঘন ঐন্দ্রিলা শর্মা।আর মেয়ের জন্য বাবার এই পদক্ষেপের পরে ইনস্টাগ্রামে তিনি তার বাবাকে জড়িয়ে ধরে একটি ছবি শেয়ার করলেন।

Advertisement

তারপর তিনি ক্যাপশন দিলেন, “বাবা কখনো মুখে বলে না ভালোবাসি। কিন্তু নিরবে প্রাণ দিয়ে ভালোবাসে। কাল হঠাৎ তিনি তার মাথার সমস্ত চুল কেটে ফেললেন। বাবার ভালোবাসা হয়তো এরকমই। আমি খুবই সৌভাগ্যবতী।” ঐন্দ্রিলার পাশে থাকার জন্য নিজের লম্বা চুল ছোট করে ফেলেছিলেন বিশেষ বন্ধু সব্যসচি চৌধুরি। আর এবারে তার বাবা তার মাথার সমস্ত চুল কেটে ফেললেন।

ঐন্দ্রিলার পাশে থাকার জন্য সব্যসাচি চৌধুরী নিজের চুল ছোট করে ফেলেছিলেন এবং এই ছবি সোশ্যাল মিডিয়াতে অত্যন্ত ভাইরাল হয়েছিল।অতীতের সব্যসাচী এবং ঐন্দ্রিলা এবং এখনকার সব্যসাচী এবং ঐন্দ্রিলা দুজনের ছবি সোশ্যাল মিডিয়াতে তুমুল ভাইরাল ছিল। একদিকে দেখা যাচ্ছিল দুজনের মাথায় ভর্তি চুল। আরেকদিকে ঐন্দ্রিলার মাথায় কোন চুল নেই এবং সব্যসাচির মাথায় চুল ছোট করে কাটা। অভিনেতা ক্যাপশন দিয়েছিলেন, “৫ মাসের মধ্যে জীবন কতটা বদলে যেতে পারে। আর আমার কোনরকম ব্যান্ড হেয়ার ডে এর সমস্যা থাকল না।”

Advertisement

Related Articles

Back to top button