Ankita Lokhande: ‘বৌ হতে চান, সংসার করতে চান’, ডিসেম্বরে বিয়ের আগে প্রকাশ্যে বললেন অঙ্কিতা লোখান্ডে

একতা কাপুরের হাত ধরেই ২০০৯ সালে ‘পবিত্র রিস্তা’ ধারাবাহিক দিয়ে মানব-অর্চনা চরিত্রের মধ্যে দিয়েই সুশান্ত আর অঙ্কিতা টেলিভিশন জগতে নায়ক-নায়িকা হিসেবে অভিষেক করেন। আর দুজনে নিজের অভিনয় দিয়ে দর্শকদের মনের মধ্যে জায়গা করে নিয়েছিলেন অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত এবং অঙ্কিতা লোখান্ডে। এই ধারাবাহিকে অভিনয়ের সূত্রেই মানব আর অর্চনার মতোই বাস্তবে প্রেমের সম্পর্কে আবদ্ধ হন। কিন্তু দীর্ঘ ৬ বছরের সম্পর্ক ছিল তাঁদের, তারপরেই ‘পবিত্র রিস্তা’ র অন্ত ঘটে।

সুশান্তের সাথে ব্রেক আপের পর অঙ্কিতা মুভ অন করে ব্যবসায়ী ভিকি জৈনের সঙ্গে চুটিয়ে প্রেম করতে শুরু করেছিলেন। গত বছর সুশান্তের আকস্মিক মৃত্যুতে ভেঙে পড়েছিলেন তাঁর প্রাক্তন প্রেমিকা অঙ্কিতা। আর অঙ্কিতার কঠিন সময়তেও অভিনেত্রীর পাশে ছিলেন ভিকি। পরবর্তীতে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি দীর্ঘ বার্তা শেয়ার করে ভিকিকে সেই সময় পাশে থাকার জন্য ধন্যবাদ জানিয়ে ছিলেব অঙ্কিতা। কিছুদিন আগে প্রয়াত অভিনেতা সুশান্তকে শ্রদ্ধা জানাতে ডিজিটাল প্লাটফর্মে শুরু হয়েছে ‘পবিত্র রিশতা ২’। আর এটাই অভিনেত্রীর শেষ কাজ।

জানা যাচ্ছে, এই ডিসেম্বরের ১২ তারিখে বিয়ের পিঁড়িতে বসতে চলেছেন৷ দুই লাভ বার্ডস অঙ্কিতা লোখান্ডে আর ভিকি। তবে করোনা অভিনেত্রীর ডেস্টিনেশন ওয়েডিং এ কাঁটা হয়ে আছে তাই মুম্বইয়ের এক পাঁচতারা হোটেলে সাত পাক ঘুরতে চলেছেন তিনি। বিয়ের পর গ্র‍্যান্ড রিসেপশন হওয়ার কথা ১৪ ডিসেম্বর। ইতিমধ্যে বিয়ের নিমন্ত্রণ পত্রও পৌঁছে গিয়েছে সকল আমন্ত্রিতদের কাছে। শোনা যাচ্ছে বিয়ের আগে গোয়াতে একটি ব্যাচেলার পার্টিও হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। অঙ্কিতার ঘনিষ্ঠ বন্ধু এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, ‘সমস্ত পরিকল্পনা রয়েছে এবং শীঘ্রই আমন্ত্রণগুলি পাঠানো হবে।’

সম্প্রতি, এক সংবাদমাধ্যমে নিজের বিয়ে নিয়ে অঙ্কিতা জানিয়েছেন, তিনি বিয়ে নামক এই রীতিটাকে দারুণ পছন্দ করেন। তাই তিনি নিজের বিবাহের বিষয় খুব উত্তেজিত। কারণ তিনি মনে করেন দুই ব্যক্তি একসঙ্গে বসবাস করতে এবং একটি পরিবার তৈরি করতে ইচ্ছুক হলে এটা সেরা জিনিস। তিনি আরো বলেন, তিনি বৌ হতে চান এবং সংসার করতে দারুন পছন্দ করবেন। অবশ্য ডিসেম্বরে নিজের বিয়ের গুঞ্জনকে নিয়ে কোনো মন্তব্য করেননি। তিনি বলেছেন, ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে জনসমক্ষে কথা বলতে চান না।

 

Related Articles

Back to top button